ঢাকা ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করা আমাদের অঙ্গীকারঃ ড. তৌফিক রহমান চৌধুরী  Logo মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির নতুন বাসের উদ্বোধন Logo মানসম্পন্ন শিক্ষা নিশ্চিত করতে শিক্ষকদের ভূমিকা অগ্রগণ্য: ভিসি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার!




মুকসুদপুরে সতন্ত্র চেয়ারম্যানের হামলার শিকার ইউপি আ লীগের যুগ্ম সম্পাদক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩১:২১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২১ ১১৯ বার পড়া হয়েছে

আহত দশ, তিন দোকান ভাংচুরও লুটপাট

 

নিজস্ব প্রতিবেদক 

 

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে সতন্ত্র ইউপি নির্বাচিত চেয়ারম্যানের কর্মী সমর্থকের হামলার শীকার হয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ওবাইদুর রহমান লিটনসহ ১০ জন আহত ও তিনটি দোকান ঘর ভাংচুর লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার ১ ডিসেম্বর সন্ধায় উপজেলার মোচনা ইউনিয়নের মোচনা বাজারে এসব ঘটনা ঘটে।

এসময় দোকান পাট ভাংচুর করে নগদ ৯০ হাজার টাকা ও প্রায় ১৯ লাখ টাকার মালামাল লুট হয়। এই ঘটনায় মোচনা গ্রামের আব্দুল্লাহর ৮ বছরের শিশু অনিকা আহত হয়েছে, তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন বাজারের ব্যবসায়ি রাসেল ( ৩৫), কালু মোল্যা ) ৩২), মাসুদ ( ৪০), লিটন ( ৩২), বাদল ( ৪৫)। এদের স্থায়ীন প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

মোচনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুর রহমান লিটন জানান, অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনিত নৌকা প্রার্থীর নির্বাচন করায় স্বতন্ত্রপ্রার্থী নির্বাচিত চেয়ারম্যান এমদাদ হোসেন মোল্যার কর্মী সমর্থকরা আমার উপর হামলা করে আহত করেছে।

মোচনা বাজারে আমার তিনটি দোকান ঘর ভাংচুর করে প্রায় প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি করেছে।

নগদ ৯০ হাজার টাকা এবং প্রায় ১৯ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়েছে। এই ঘটনায় ইট দিয়ে ৮ বছরের শিশুর মাথা থেতলে দিয়েছে এবং প্রায় দশ জনকে আহত করেছে।

এমদাদ হোসেন মোল্যার ভাই মনির মোল্যা, ভাতিজা ভাতিজা, পলাশ, রুবেলসহ প্রায় শতাধিক লোক অর্তকিত হামলা চালিয়ে মারধর ও লুটপাট করেছে।

এ বিষয়ে মুকসুদপুর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মুকসুদপুর থানার ওসি আবু বক্কর মিয়া জানান, খবর শুনেই সেখানে দুইজন অফিসারসহ বেশ কয়েকজন পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

তারা অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত। তবে ক্ষতিগ্রস্থরা কেউ আবেদন করলে পুলিশি আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




মুকসুদপুরে সতন্ত্র চেয়ারম্যানের হামলার শিকার ইউপি আ লীগের যুগ্ম সম্পাদক

আপডেট সময় : ১০:৩১:২১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর ২০২১

আহত দশ, তিন দোকান ভাংচুরও লুটপাট

 

নিজস্ব প্রতিবেদক 

 

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে সতন্ত্র ইউপি নির্বাচিত চেয়ারম্যানের কর্মী সমর্থকের হামলার শীকার হয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ওবাইদুর রহমান লিটনসহ ১০ জন আহত ও তিনটি দোকান ঘর ভাংচুর লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার ১ ডিসেম্বর সন্ধায় উপজেলার মোচনা ইউনিয়নের মোচনা বাজারে এসব ঘটনা ঘটে।

এসময় দোকান পাট ভাংচুর করে নগদ ৯০ হাজার টাকা ও প্রায় ১৯ লাখ টাকার মালামাল লুট হয়। এই ঘটনায় মোচনা গ্রামের আব্দুল্লাহর ৮ বছরের শিশু অনিকা আহত হয়েছে, তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন বাজারের ব্যবসায়ি রাসেল ( ৩৫), কালু মোল্যা ) ৩২), মাসুদ ( ৪০), লিটন ( ৩২), বাদল ( ৪৫)। এদের স্থায়ীন প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

মোচনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুর রহমান লিটন জানান, অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনিত নৌকা প্রার্থীর নির্বাচন করায় স্বতন্ত্রপ্রার্থী নির্বাচিত চেয়ারম্যান এমদাদ হোসেন মোল্যার কর্মী সমর্থকরা আমার উপর হামলা করে আহত করেছে।

মোচনা বাজারে আমার তিনটি দোকান ঘর ভাংচুর করে প্রায় প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি করেছে।

নগদ ৯০ হাজার টাকা এবং প্রায় ১৯ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়েছে। এই ঘটনায় ইট দিয়ে ৮ বছরের শিশুর মাথা থেতলে দিয়েছে এবং প্রায় দশ জনকে আহত করেছে।

এমদাদ হোসেন মোল্যার ভাই মনির মোল্যা, ভাতিজা ভাতিজা, পলাশ, রুবেলসহ প্রায় শতাধিক লোক অর্তকিত হামলা চালিয়ে মারধর ও লুটপাট করেছে।

এ বিষয়ে মুকসুদপুর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মুকসুদপুর থানার ওসি আবু বক্কর মিয়া জানান, খবর শুনেই সেখানে দুইজন অফিসারসহ বেশ কয়েকজন পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

তারা অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত। তবে ক্ষতিগ্রস্থরা কেউ আবেদন করলে পুলিশি আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।