ঢাকা ০৯:৪২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




সিলেটে সাইবার ট্রাইব্যুনালে ছাত্রদল ও ছাত্রশিবির সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

প্রতিনিধি, সিলেট
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৪:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪ ৮২ বার পড়া হয়েছে

সিলেটের সাইবার ট্রাইবুনাল আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী সহ ৩ ছাত্রশিবির ও ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার(০১লা মার্চ) মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিলেট জেলা বারের সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট মামুনুর রশীদ চৌধুরী মামুন এবং মামলার বাদী বাংলাদেশ আওয়ামী নবীনলীগ কুলাউড়া উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ও শ্রমিকলীগ সহ-সভাপতি রাহিম আহমদ মান্না।

বাদী জানান, ফেসবুক ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ নবীনলীগ ও ব্যক্তিগত ভাবে বাদী রাহিম আহমদ মান্নাকে গালিগালাজ ও হত্যার হুমকি দেয়ায় মনক্ষুন্ন হয়ে তিনি এই ৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামীরা হচ্ছেন সিলেটের কুলাউড়া থানার দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল গফফার খানের ছেলে ছাত্রশিবির নেতা মাহফুজুর রহমান খান, মৌলভীবাজার সদর থানার আখাইলকুড়া গ্রামের আছিদ চৌধুরীর ছেলে ছাত্রদল নেতা আশরাফ চৌধুরী শুভ, কানাইঘাট থানার কাড়বাল্লা পূর্ব গ্রামের মোহাম্মদ রফিক উদ্দিন এর ছেলে শিবির নেতা মোহাম্মদ নাজমুল ইসলাম বাবুল ও কুলাউড়া থানার দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল গফফার খানের ছেলে ও শাবিপ্রবির সাবেক শিক্ষার্থী এবং শিবির নেতা সাইফুর রহমান খান ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মামলার আসামীরা অত্যন্ত উগ্র, উশৃঙ্খল, সন্ত্রাসী, স্বাধীনতা বিরোধী, মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী ও রাষ্ট্র বিরোধী চক্রের লোক। তারা বিভিন্ন সময় বংগবন্ধু, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি এডিট ও বিকৃত করে নানা অশালীন এবং নানা বেঙ্গাত্বক পোস্ট তাদের ফেইসবুক আইডিতে আপলোড করে তা প্রচার করেন। মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা বিরোধী, বঙ্গবন্ধু বিরোধী ও রাষ্ট্রদ্রোহী একাধিক পোস্ট প্রচার ও বাদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গালাগালি ও হত্যার হুমকি দেয়ার কারণে রাহিম আহমদ মান্না বিচলিত ও মনক্ষুন্য হয়ে এ মামলা দায়ের করেন বলে আরজিতে উল্লেখ করেছেন।

এদিকে সিলেটের সাইবার ট্রাইবুনাল মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য এসএমপি’র কোতোয়ালি থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ইতিমধ্যেই মামলাটির তদন্তের দায়িত্বে থাকা তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

মামলার বিষয়ে জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা এহসানুল মাহবুব জুবায়েরকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন এ সকল মামলা ,উদ্দেশ্য প্রণোদিত ,মিথ্যা, ও ভিত্তিহীন। বিগত দুই বছর থেকে এ সকল কর্মীরা দেশের বাহিরে উচ্চশিক্ষার জন্য অবস্থান করছে, এ মামালার কারণে তারা রাজনৈতিক, সামজিক , পারিবারিক ও মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।আমি এসকল মামলা হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, উক্ত মামলার ১নং আসামী মাহফুজুর রহমান খানের বিরুদ্ধে পরবর্তী ১৬ নভেম্বর ২০২৩ সালে সিলেটের এয়ারপোর্টে থানায় ১৫(৩)/২৫ ধারায় বিস্ফোরক আইনে ৪২ নম্বর আসামী অভিযুক্ত করে এস আই বিদুৎ বাদী হয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সিলেটে সাইবার ট্রাইব্যুনালে ছাত্রদল ও ছাত্রশিবির সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

আপডেট সময় : ০৯:৫৪:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ মার্চ ২০২৪

সিলেটের সাইবার ট্রাইবুনাল আদালতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী সহ ৩ ছাত্রশিবির ও ছাত্রদল নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার(০১লা মার্চ) মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিলেট জেলা বারের সিনিয়র আইনজীবী এডভোকেট মামুনুর রশীদ চৌধুরী মামুন এবং মামলার বাদী বাংলাদেশ আওয়ামী নবীনলীগ কুলাউড়া উপজেলার সাধারণ সম্পাদক ও শ্রমিকলীগ সহ-সভাপতি রাহিম আহমদ মান্না।

বাদী জানান, ফেসবুক ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ নবীনলীগ ও ব্যক্তিগত ভাবে বাদী রাহিম আহমদ মান্নাকে গালিগালাজ ও হত্যার হুমকি দেয়ায় মনক্ষুন্ন হয়ে তিনি এই ৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলা দায়ের করেন।

মামলার আসামীরা হচ্ছেন সিলেটের কুলাউড়া থানার দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল গফফার খানের ছেলে ছাত্রশিবির নেতা মাহফুজুর রহমান খান, মৌলভীবাজার সদর থানার আখাইলকুড়া গ্রামের আছিদ চৌধুরীর ছেলে ছাত্রদল নেতা আশরাফ চৌধুরী শুভ, কানাইঘাট থানার কাড়বাল্লা পূর্ব গ্রামের মোহাম্মদ রফিক উদ্দিন এর ছেলে শিবির নেতা মোহাম্মদ নাজমুল ইসলাম বাবুল ও কুলাউড়া থানার দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল গফফার খানের ছেলে ও শাবিপ্রবির সাবেক শিক্ষার্থী এবং শিবির নেতা সাইফুর রহমান খান ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মামলার আসামীরা অত্যন্ত উগ্র, উশৃঙ্খল, সন্ত্রাসী, স্বাধীনতা বিরোধী, মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী ও রাষ্ট্র বিরোধী চক্রের লোক। তারা বিভিন্ন সময় বংগবন্ধু, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি এডিট ও বিকৃত করে নানা অশালীন এবং নানা বেঙ্গাত্বক পোস্ট তাদের ফেইসবুক আইডিতে আপলোড করে তা প্রচার করেন। মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা বিরোধী, বঙ্গবন্ধু বিরোধী ও রাষ্ট্রদ্রোহী একাধিক পোস্ট প্রচার ও বাদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গালাগালি ও হত্যার হুমকি দেয়ার কারণে রাহিম আহমদ মান্না বিচলিত ও মনক্ষুন্য হয়ে এ মামলা দায়ের করেন বলে আরজিতে উল্লেখ করেছেন।

এদিকে সিলেটের সাইবার ট্রাইবুনাল মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য এসএমপি’র কোতোয়ালি থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ইতিমধ্যেই মামলাটির তদন্তের দায়িত্বে থাকা তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

মামলার বিষয়ে জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা এহসানুল মাহবুব জুবায়েরকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন এ সকল মামলা ,উদ্দেশ্য প্রণোদিত ,মিথ্যা, ও ভিত্তিহীন। বিগত দুই বছর থেকে এ সকল কর্মীরা দেশের বাহিরে উচ্চশিক্ষার জন্য অবস্থান করছে, এ মামালার কারণে তারা রাজনৈতিক, সামজিক , পারিবারিক ও মানসিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।আমি এসকল মামলা হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, উক্ত মামলার ১নং আসামী মাহফুজুর রহমান খানের বিরুদ্ধে পরবর্তী ১৬ নভেম্বর ২০২৩ সালে সিলেটের এয়ারপোর্টে থানায় ১৫(৩)/২৫ ধারায় বিস্ফোরক আইনে ৪২ নম্বর আসামী অভিযুক্ত করে এস আই বিদুৎ বাদী হয়ে আরও একটি মামলা দায়ের করেন।