ঢাকা ০৪:৪৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




৪৬ দিন পর লঞ্চ চলাচল শুরু, আনন্দিত দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৩২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ মে ২০২১ ৮১ বার পড়া হয়েছে

নুরে আলম (বরিশাল) বাবুগঞ্জঃ দীর্ঘ দেড় মাস (৪৬দিন) পর আজ সোমবার থেকে আবারও ঢাকা-বরিশাল চাদপুর বাবুগঞ্জসহ বিভিন্ন নৌরুটে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল শুরু।

এবছরের গত ৫ই এপ্রিল করোনার সংক্রমন রোধে বাংলাদেশ সরকার সারা দেশে লকডাউন ঘোষনা করেন। তার পর দিন ৬ই এপ্রিল বিআইডব্লিউটিএ বন্ধ করে দেয় প্রায় ৭শ যাত্রীবাহী নৌযান।

নৌযান বন্ধ হওয়ার পর লঞ্চ শ্রমিকরা পরিবার নিয়ে মানবতার জীবন যাপন করেছেন। লকডাউনের মধ্যে শ্রমিকরা নৌযান চালু করার দাবিতে ঢাকা,বরিশাল,চাদপুর,বাবুগঞ্জ,পয়সারহাটসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন।

পরে ২২শে মে শনিবার দুপুর ১২টায় লঞ্চ মালিক ও শ্রমিক নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে লঞ্চ চালুর দাবি করেন। পরদিন ২৩শে মে রবিবার যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল করার অনুমতি দেয় সরকার। এবং বাধ্যতামূলক যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ করায় লঞ্চ মালিক ও শ্রমিকদের।

এদিকে লঞ্চ চালুর সংবাদ পেয়ে আনন্দিত দক্ষিণাঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ, এবং খুশির বন্যা বইছে লঞ্চ শ্রমিকদের মাঝে। ঢাকা, বরিশালসহ বাবুগঞ্জেও দেখা গেছে আনন্দের মিছিল।

শ্রমিক নেতা ও ঢাকা-বাবুগঞ্জ নৌরুটে পুবালী৯ লঞ্চের সুুপারভাইজার সজল আহমেদ ও ঢাকা-মিরগঞ্জ নৌরুটের আচল৬ লঞ্চের সুপারভাইজার মানিক হোসেন, বলেন করোনা মহামারীর জন্য গত ৬ই এপ্রিল থেকে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচলের নিষেধাজ্ঞা জারি করান সরকার। দফায় দফায় লঞ্চ চালুুর দাবি করা হলেও অনুমতি দেয়নি সরকার। তবে গত ২২শে মে লঞ্চ মালিক ও শ্রমিক নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে । পর দিন ২৩শে মে রবিবার বিআইডব্লিউএ স্বাভাবিকভাবে লঞ্চ চলাচলের ঘোষণা দেন। দীর্ঘ ৪৬ দিন পর আজ সোমবার ২৪শে মে লঞ্চ চলাচলের অনুমতি পেয়েছি। প্রায় ৭শ লঞ্চে শ্রমিক রয়েছে ২০হাজারের অধিক, লঞ্চ বন্ধ থাকা অবস্থায় মা বাবা ভাই বোন বউ বাচ্চা নিয়ে কষ্টের দিন গুল গুনতে হয়েছে শ্রমিকদের। লঞ্চ চালুর খবর শুনে খুশিতে আত্মহারা শ্রমিকরা,তাদের আত্মহারা খুশিতে বিভিন্ন স্থানে হয়েছ আনন্দ মিছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




৪৬ দিন পর লঞ্চ চলাচল শুরু, আনন্দিত দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ

আপডেট সময় : ০৮:৩২:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ মে ২০২১

নুরে আলম (বরিশাল) বাবুগঞ্জঃ দীর্ঘ দেড় মাস (৪৬দিন) পর আজ সোমবার থেকে আবারও ঢাকা-বরিশাল চাদপুর বাবুগঞ্জসহ বিভিন্ন নৌরুটে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল শুরু।

এবছরের গত ৫ই এপ্রিল করোনার সংক্রমন রোধে বাংলাদেশ সরকার সারা দেশে লকডাউন ঘোষনা করেন। তার পর দিন ৬ই এপ্রিল বিআইডব্লিউটিএ বন্ধ করে দেয় প্রায় ৭শ যাত্রীবাহী নৌযান।

নৌযান বন্ধ হওয়ার পর লঞ্চ শ্রমিকরা পরিবার নিয়ে মানবতার জীবন যাপন করেছেন। লকডাউনের মধ্যে শ্রমিকরা নৌযান চালু করার দাবিতে ঢাকা,বরিশাল,চাদপুর,বাবুগঞ্জ,পয়সারহাটসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করেন।

পরে ২২শে মে শনিবার দুপুর ১২টায় লঞ্চ মালিক ও শ্রমিক নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে লঞ্চ চালুর দাবি করেন। পরদিন ২৩শে মে রবিবার যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল করার অনুমতি দেয় সরকার। এবং বাধ্যতামূলক যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ করায় লঞ্চ মালিক ও শ্রমিকদের।

এদিকে লঞ্চ চালুর সংবাদ পেয়ে আনন্দিত দক্ষিণাঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ, এবং খুশির বন্যা বইছে লঞ্চ শ্রমিকদের মাঝে। ঢাকা, বরিশালসহ বাবুগঞ্জেও দেখা গেছে আনন্দের মিছিল।

শ্রমিক নেতা ও ঢাকা-বাবুগঞ্জ নৌরুটে পুবালী৯ লঞ্চের সুুপারভাইজার সজল আহমেদ ও ঢাকা-মিরগঞ্জ নৌরুটের আচল৬ লঞ্চের সুপারভাইজার মানিক হোসেন, বলেন করোনা মহামারীর জন্য গত ৬ই এপ্রিল থেকে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচলের নিষেধাজ্ঞা জারি করান সরকার। দফায় দফায় লঞ্চ চালুুর দাবি করা হলেও অনুমতি দেয়নি সরকার। তবে গত ২২শে মে লঞ্চ মালিক ও শ্রমিক নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে । পর দিন ২৩শে মে রবিবার বিআইডব্লিউএ স্বাভাবিকভাবে লঞ্চ চলাচলের ঘোষণা দেন। দীর্ঘ ৪৬ দিন পর আজ সোমবার ২৪শে মে লঞ্চ চলাচলের অনুমতি পেয়েছি। প্রায় ৭শ লঞ্চে শ্রমিক রয়েছে ২০হাজারের অধিক, লঞ্চ বন্ধ থাকা অবস্থায় মা বাবা ভাই বোন বউ বাচ্চা নিয়ে কষ্টের দিন গুল গুনতে হয়েছে শ্রমিকদের। লঞ্চ চালুর খবর শুনে খুশিতে আত্মহারা শ্রমিকরা,তাদের আত্মহারা খুশিতে বিভিন্ন স্থানে হয়েছ আনন্দ মিছিল।