• ২২শে এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৯ই বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

৯৯৯-এ ফোন দিয়ে বন্দিদশা থেকে উদ্ধার নারী ও শিশুসহ ৬২ জন

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত এপ্রিল ৫, ২০১৯, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ
৯৯৯-এ ফোন দিয়ে বন্দিদশা থেকে উদ্ধার নারী ও শিশুসহ ৬২ জন

জেলা প্রতিনিধি; নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় ইট তৈরির বকেয়া মজুরি চাওয়ায় নারী ও শিশুসহ ৬২ জনকে একটি ঘরে দুইদিন আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতনের গুরুতর অভিযোগ উঠেছে ইটভাটার মালিক আলিম ও মিজানের বিরুদ্ধে।

বুধবার রাতে ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে বন্দরের ফুনকুল এলাকায় অবস্থিত এ বি এফ ব্রিক ফিল্ড থেকে নারী ও শিশুসহ ৬২ জন শ্রমিককে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে বৃহস্পতিবার পুলিশ তা নিশ্চিত করে।

কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ এসআই আনোয়ার হুসাইন জানান, ৩ মার্চ থেকে ঝড়-বৃষ্টি হওয়ায় ইট তৈরির কাজ বন্ধ হয়ে যায়। গত ১ এপ্রিল রাতে ইটভাটার মালিক আলিম ও মিজানের কাছে ইট তৈরির বকেয়া মজুরি ৫০ হাজার ৫০০ টাকা চায় ইটভাটা শ্রমিক কুতুবউদ্দিন। কিন্তু তারা তা না দিয়ে উল্টো শ্রমিকদের মারধর ও নির্যাতন চালিয়ে ইটভাটার একটি ঘরে আটকে রাখেন।

অনাহারে দুইদিন অবরুদ্ধ থাকার পর ইটভাটা শ্রমিকরা ৯৯৯-এ ফোন করে তাদের উদ্ধারের জন্য সহযোগিতা চান। পরে ৯৯৯ এর সংবাদের ভিত্তিতে কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ওই ইটভাটার ঘর থেকে ১৪ জন নারী ও ৯ জন শিশুসহ মোট ৬২ জনকে উদ্ধার করে।

তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মালিক মিজান ও আলিম পালিয়ে যায়। পরে মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ইয়ানবীর মাধ্যমে বকেয়া ৫০ হাজার ৫০০ টাকা আদায় করে শ্রমিকদের শেরপুর নিজ গ্রামে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে বন্দর ইটভাটা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আজিজ দেওয়ানের কাছে জানতে তাকে ফোন করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:১৭
  • ১২:০১
  • ৪:৩০
  • ৬:২৬
  • ৭:৪৩
  • ৫:৩৩