ঢাকা ০৯:০৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম Logo কুবি বাংলা বিভাগের অ্যালামনাইদের ইফতার ও দোয়া মাহফিল




১৮ দিনের মাথায় পদ্মা সেতুর পিলারে আবারও ফেরির ধাক্কা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:২১:০৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অগাস্ট ২০২১ ১১১ বার পড়া হয়েছে

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:

ফের পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দিয়েছে রো রো ফেরি। সোমবার সন্ধ্যায় মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটে যাওয়ার সময় বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নামে রো রো ফেরি পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলারে ধাক্কা দেয়। ১৮ দিনের মধ্যে পদ্মা সেতুর পিলারে দুই বার ধাক্কা দেওয়ার ঘটনা ঘটল।

বিআইডব্লিউটিসির মেরিন অফিসার আহাম্মদ আলী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধাক্কা খাওয়ার পর ফেরিতে থাকা একটি পণ্যবাহী ট্রাক অপর দুটি প্রাইভেট কারের ওপর পড়ে যায়। এতে প্রাইভেটকার ২টি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। ধাক্কা খেয়ে ফেরির তলায় ফাটল দেখা দিয়েছে। ফেরিটি এখন লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটের ২ নম্বর ফেরি ঘাটে রয়েছে।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মুল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, সেতুর ১০ নাম্বার পিলারে ফেরির ধাক্কা লাগার খবর শুনেছি। আমাদের লোক এর মধ্যে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধাক্কা লাগা পিলারের পর্যবেক্ষণ করেছে। খবর পেয়েছি আগের ধাক্কা লেগে ১৭ নম্বর পিলারের পাইল ক্যাপে যতটুকু কংক্রিট উঠে গিয়ে ছিল এবার তার থেকে কম ক্ষতি হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসব ব্যাপারে আইনানুগ বা অন্য কোনো ব্যবস্থা নেয়ার এখনো কোন নির্দেশনা পাইনি।

উল্লেখ্য, এর আগে ২৩ জুলাই নির্মাণাধীন পদ্মা বহুমুখী সেতুর ১৭ নম্বর পিলারের সঙ্গে শাহজালাল নামের রো রো ফেরির ধাক্কা লাগে। এতে ফেরিটির অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হন। ঘটনার পর পরই ফেরির ইনচার্জ ইনল্যান্ড মাস্টার অফিসার আব্দুর রহমানকে বরখাস্ত করে বিআইডব্লিউটিসি। ঘটনার তদন্তে ওই দিনই ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিআইডব্লিউটিসি।

তাদের দাখিল করা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিলারের সঙ্গে সংঘর্ষের পেছনে রো রো ফেরিটির ইনচার্জ মাস্টার আব্দুর রহমান ও সুকানি সাইফুল ইসলামের দায়িত্তহীনতা রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




১৮ দিনের মাথায় পদ্মা সেতুর পিলারে আবারও ফেরির ধাক্কা

আপডেট সময় : ১০:২১:০৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অগাস্ট ২০২১

লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি:

ফের পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দিয়েছে রো রো ফেরি। সোমবার সন্ধ্যায় মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটে যাওয়ার সময় বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর নামে রো রো ফেরি পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলারে ধাক্কা দেয়। ১৮ দিনের মধ্যে পদ্মা সেতুর পিলারে দুই বার ধাক্কা দেওয়ার ঘটনা ঘটল।

বিআইডব্লিউটিসির মেরিন অফিসার আহাম্মদ আলী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধাক্কা খাওয়ার পর ফেরিতে থাকা একটি পণ্যবাহী ট্রাক অপর দুটি প্রাইভেট কারের ওপর পড়ে যায়। এতে প্রাইভেটকার ২টি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। ধাক্কা খেয়ে ফেরির তলায় ফাটল দেখা দিয়েছে। ফেরিটি এখন লৌহজংয়ের শিমুলিয়া ঘাটের ২ নম্বর ফেরি ঘাটে রয়েছে।

পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মুল সেতু) দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, সেতুর ১০ নাম্বার পিলারে ফেরির ধাক্কা লাগার খবর শুনেছি। আমাদের লোক এর মধ্যে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধাক্কা লাগা পিলারের পর্যবেক্ষণ করেছে। খবর পেয়েছি আগের ধাক্কা লেগে ১৭ নম্বর পিলারের পাইল ক্যাপে যতটুকু কংক্রিট উঠে গিয়ে ছিল এবার তার থেকে কম ক্ষতি হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এসব ব্যাপারে আইনানুগ বা অন্য কোনো ব্যবস্থা নেয়ার এখনো কোন নির্দেশনা পাইনি।

উল্লেখ্য, এর আগে ২৩ জুলাই নির্মাণাধীন পদ্মা বহুমুখী সেতুর ১৭ নম্বর পিলারের সঙ্গে শাহজালাল নামের রো রো ফেরির ধাক্কা লাগে। এতে ফেরিটির অন্তত ২০ জন যাত্রী আহত হন। ঘটনার পর পরই ফেরির ইনচার্জ ইনল্যান্ড মাস্টার অফিসার আব্দুর রহমানকে বরখাস্ত করে বিআইডব্লিউটিসি। ঘটনার তদন্তে ওই দিনই ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে বিআইডব্লিউটিসি।

তাদের দাখিল করা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিলারের সঙ্গে সংঘর্ষের পেছনে রো রো ফেরিটির ইনচার্জ মাস্টার আব্দুর রহমান ও সুকানি সাইফুল ইসলামের দায়িত্তহীনতা রয়েছে।