কোরআন ছিঁড়ে টুকরো টুকরো করে পোড়ায় এই কবিরাজ

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:৩৭ অপরাহ্ণ, ১৪ অক্টোবর ২০২০

অনলাইন ডেস্ক;

কোরআন শরীফ ছিঁড়ে টুকরা টুকরা করা ও পোড়ানোর কারণে মনির হোসেন (৩৩) নামে এক ফকিরকে (কবিরাজ) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলায় ঘটে এমন ঘটনা। এ ঘটনায় জাহাঙ্গীর হাওলাদার নামে একজন থানায় অভিযোগ করেন।

মনির হাওলাদার উপজেলার সিড্যা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের আমির হোসেন হাওলাদারের ছেলে। এর আগে বেশ কয়েক বছর জেল খেটেছে মনির।

বুধবার সকাল থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভণ্ড কবিরাজ মনির কোরআনের পাতা ছিঁড়ছে- এমন একটি ছবি ভাইরাল হয়।

এরপর থেকেই ডামুড্যা উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ও সাধারণ মানুষ মনিরের ফাঁসির দাবি জানান।

একই এলাকার জাহাঙ্গীর হাওলাদার বলেন, ভণ্ড ফকির মনির কোরআন অবমাননা করে মুসলমানের সর্বোচ্চ ধর্মীয়গ্রন্থ পবিত্র আল কোরআনের পাতা ছিঁড়ে কুফরি কালাম করে মানুষকে ধোঁকা দিচ্ছে। তাই আমি বাধ্য হয়েই মনির হাওলাদারের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করি।

এলাকাবাসী জানান, কোরআনকে অবমাননা করে দীর্ঘ দিন যাবত মনির বিভিন্ন রোগের ঝাড়ফুঁক দিয়ে আসছে। ফকিরগিরি ও তাবিজে মানুষের উপকার হয় বলে অনেকেই জানান কিন্তু সে কীভাবে এটা করত তা কেউ জানত না। এছাড়া তার বিরুদ্ধে নারী কেলেঙ্কারিরও অভিযোগ রয়েছে বেশ কয়েকটি।

ডামুড্যা থানার ওসি মেহেদী হাসান বলেন, আমরা ঘটনা শুনে তদন্ত যাই। মনির হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করে শরীয়তপুর আদালতে পাঠিয়েছি।

আপনার মতামত লিখুন :