ঢাকা ০২:০৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




রাজধানীতেই অর্ধশতাধিক গ্যাং কালচারে ভয়ংকর কিশোররা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৩০:৫৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ জানুয়ারী ২০২১ ১০৫ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীতে গ্যাং কালচারে ভয়ংকর কিশোররা। কেউ কেউ নিজেদের শক্তি-সামর্থ্য দেখাতে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র বহন করে। ভার্চুয়াল মাধ্যমে গ্রুপ সৃষ্টি করে সংঘবদ্ধ অপরাধে জড়ানো কিশোর গ্যাংয়ের সংখ্যা খোদ রাজধানীতেই অর্ধশতাধিক।

এরই মধ্যে কিশোর গ্যাংয়ের অপরাধ বন্ধে দুই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে এক্ষেত্রে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ বেশি জরুরি বলে মনে করছেন তারা।

ভয়ংকর হয়ে উঠেছে ‘গ্যাং কালচার’। গ্যাংগুলো উদ্ভট সব নামে পরিচিত। স্কুলের গণ্ডি পেরোনোর আগেই রাজধানীর পাড়া-মহল্লায় কিশোরদের একটি অংশের বেপরোয়া আচরণ স্থানীয়দের জন্যও আতঙ্কের কারণ হয়ে উঠেছে।

প্রথমদিকে এরা ইভটিজিং বা বখাটেপনার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও সম্প্রতি খুন, অপহরণ, চাঁদাবাজি, ছিনতাই, মাদক কেনাবেচা, ধর্ষণ এবং দলবেঁধে এক গ্রুপ আরেক গ্রুপের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ার মতো অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। ভার্চুয়াল জগতের কিশোররা এতটাই বেপরোয়া যে, এরা তুচ্ছ ঘটনায় নিজেদের ফেসবুক গ্রুপে স্ট্যাটাস দিয়ে খুন করে বসে। আগে সম্প্রতি রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে একটি ঘটনায়ই এদের বেপরোয়া আচরণের বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি সোহেল রানা বলছেন, অপরাধে জড়িয়ে পড়া কিশোরদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তবে শুধু আইন প্রয়োগ করে বা পুলিশি ব্যবস্থার মাধ্যমে এর সমাধান সহজ নয়। কিশোর অপরাধ দমনে পরিবার ও সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে।

এরই মধ্যে কিশোর গ্যাং অপরাধ বন্ধে র‌্যাবের পক্ষ থেকে দুই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। র‍্যাবের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ বলছেন, কিশোর অপরাধ বন্ধে প্রথমত আইনি পদক্ষেপের মাধ্যমে এবং পরে সংশোধন করেও তাদের ভাল পথে ফিরেয়ে আনার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

র‌্যাবের হিসেব বলছে, রাজধানীতে ৫০টির বেশি কিশোর গ্যাং রয়েছে। প্রতিটি গ্যাংয়ে সদস্য রয়েছে ১৫ থেকে ২০ জন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




রাজধানীতেই অর্ধশতাধিক গ্যাং কালচারে ভয়ংকর কিশোররা

আপডেট সময় : ১০:৩০:৫৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ জানুয়ারী ২০২১

রাজধানীতে গ্যাং কালচারে ভয়ংকর কিশোররা। কেউ কেউ নিজেদের শক্তি-সামর্থ্য দেখাতে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র বহন করে। ভার্চুয়াল মাধ্যমে গ্রুপ সৃষ্টি করে সংঘবদ্ধ অপরাধে জড়ানো কিশোর গ্যাংয়ের সংখ্যা খোদ রাজধানীতেই অর্ধশতাধিক।

এরই মধ্যে কিশোর গ্যাংয়ের অপরাধ বন্ধে দুই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে এক্ষেত্রে প্রতিকারের চেয়ে প্রতিরোধ বেশি জরুরি বলে মনে করছেন তারা।

ভয়ংকর হয়ে উঠেছে ‘গ্যাং কালচার’। গ্যাংগুলো উদ্ভট সব নামে পরিচিত। স্কুলের গণ্ডি পেরোনোর আগেই রাজধানীর পাড়া-মহল্লায় কিশোরদের একটি অংশের বেপরোয়া আচরণ স্থানীয়দের জন্যও আতঙ্কের কারণ হয়ে উঠেছে।

প্রথমদিকে এরা ইভটিজিং বা বখাটেপনার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও সম্প্রতি খুন, অপহরণ, চাঁদাবাজি, ছিনতাই, মাদক কেনাবেচা, ধর্ষণ এবং দলবেঁধে এক গ্রুপ আরেক গ্রুপের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ার মতো অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে। ভার্চুয়াল জগতের কিশোররা এতটাই বেপরোয়া যে, এরা তুচ্ছ ঘটনায় নিজেদের ফেসবুক গ্রুপে স্ট্যাটাস দিয়ে খুন করে বসে। আগে সম্প্রতি রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে একটি ঘটনায়ই এদের বেপরোয়া আচরণের বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি সোহেল রানা বলছেন, অপরাধে জড়িয়ে পড়া কিশোরদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তবে শুধু আইন প্রয়োগ করে বা পুলিশি ব্যবস্থার মাধ্যমে এর সমাধান সহজ নয়। কিশোর অপরাধ দমনে পরিবার ও সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে।

এরই মধ্যে কিশোর গ্যাং অপরাধ বন্ধে র‌্যাবের পক্ষ থেকে দুই ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। র‍্যাবের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল আশিক বিল্লাহ বলছেন, কিশোর অপরাধ বন্ধে প্রথমত আইনি পদক্ষেপের মাধ্যমে এবং পরে সংশোধন করেও তাদের ভাল পথে ফিরেয়ে আনার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

র‌্যাবের হিসেব বলছে, রাজধানীতে ৫০টির বেশি কিশোর গ্যাং রয়েছে। প্রতিটি গ্যাংয়ে সদস্য রয়েছে ১৫ থেকে ২০ জন।