ঢাকা ১০:২০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo এমপি আনার খুন: রহস্যময় রূপে শীর্ষ দুই ব্যবসায়ী Logo রূপালী ব্যাংকের ডিজিএম কর্তৃক সহকর্মী নারীকে যৌন হয়রানি: ধামাচাপা দিতে মরিয়া তদন্ত কমিটি Logo প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা হাতিয়ে বহাল তবিয়তে মাদারীপুরের দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারl Logo যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় Logo ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান Logo টাটা মটরস বাংলাদেশে উদ্বোধন করলো টাটা যোদ্ধা Logo আশা শিক্ষা কর্মসূচী কর্তৃক অভিভাবক মতবিনিময় সভা Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১




ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দলটি হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে: আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০১:০৭:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ১৪৪ বার পড়া হয়েছে

‘বিএনপির রাজনীতি হচ্ছে মিথ্যা আর হত্যার রাজনীতি, ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দলটি হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

 

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে নিজ নির্বাচনী এলাকায় সফরে এলে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন চত্বরে তিনি এ মন্তব্য করেন।

 

এ সময় আনিসুল হক বলেন, হত্যার রাজনীতির পর মিথ্যা কথার রাজনীতিই হলো বিএনপি রাজনৈতিক আদর্শ। ঠিক তারই ধারাবাহিকতায় ২০০১ সালে যখন একটা নির্বাচনের মাধ্যমে তারা ক্ষমতা দখল করে তখন বিএনপি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য বাংলার জনগণের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

 

বিএনপির কেবল থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী, ভাই-বোন এমনকি পরিবার কাউকে তারা বাদ দেয়নি। ২০০৪ সালের ঘটনাকে স্মরণ করে দিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য বিএনপি ১৯ বার চেষ্টা চালিয়েছে। আল্লার রহমতে প্রতিবারই শেখ হাসিনা হত্যার হাত থেকে বেঁচে যান। আইনমন্ত্রী জনগণের ওপর প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, আপনারা দেখেছেন ২০০৬ সালের প্রহসন, ওই সময়ে যা করেছে বিএনপির আদর্শের মধ্যেই তা লেখা আছে এবং তারা তাই করেছে।

 

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলার মানুষ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শুধু উন্নয়নই দেখে নাই রাজনৈতিক শান্তিও দেখেছেন। আমরা ওই শান্তির রাজনীতি অব্যাহত রাখতে চাই। আমরা জনগণের কাছে জনগণের প্রাপ্য ভোটাধিকার পৌঁছে দিয়েছি, ইনশাআল্লাহ ২০২৪ সালে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে সেটা আবারও প্রমাণ করব।

 

এ সময় আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব গোলাম সারোয়ার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক মো. শাহগীর আলম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেন, আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অংগ্যজাই মারমা, আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

পরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বিভিন্ন কর্মশালায় অংশ নিতে তার সংসদীয় এলাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় যান।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দলটি হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে: আইনমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০১:০৭:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

‘বিএনপির রাজনীতি হচ্ছে মিথ্যা আর হত্যার রাজনীতি, ক্ষমতায় আসার পর থেকেই দলটি হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

 

শনিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে নিজ নির্বাচনী এলাকায় সফরে এলে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন চত্বরে তিনি এ মন্তব্য করেন।

 

এ সময় আনিসুল হক বলেন, হত্যার রাজনীতির পর মিথ্যা কথার রাজনীতিই হলো বিএনপি রাজনৈতিক আদর্শ। ঠিক তারই ধারাবাহিকতায় ২০০১ সালে যখন একটা নির্বাচনের মাধ্যমে তারা ক্ষমতা দখল করে তখন বিএনপি প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য বাংলার জনগণের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে।

 

বিএনপির কেবল থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী, ভাই-বোন এমনকি পরিবার কাউকে তারা বাদ দেয়নি। ২০০৪ সালের ঘটনাকে স্মরণ করে দিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য বিএনপি ১৯ বার চেষ্টা চালিয়েছে। আল্লার রহমতে প্রতিবারই শেখ হাসিনা হত্যার হাত থেকে বেঁচে যান। আইনমন্ত্রী জনগণের ওপর প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, আপনারা দেখেছেন ২০০৬ সালের প্রহসন, ওই সময়ে যা করেছে বিএনপির আদর্শের মধ্যেই তা লেখা আছে এবং তারা তাই করেছে।

 

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলার মানুষ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শুধু উন্নয়নই দেখে নাই রাজনৈতিক শান্তিও দেখেছেন। আমরা ওই শান্তির রাজনীতি অব্যাহত রাখতে চাই। আমরা জনগণের কাছে জনগণের প্রাপ্য ভোটাধিকার পৌঁছে দিয়েছি, ইনশাআল্লাহ ২০২৪ সালে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের মাধ্যমে সেটা আবারও প্রমাণ করব।

 

এ সময় আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব গোলাম সারোয়ার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক মো. শাহগীর আলম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেন, আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অংগ্যজাই মারমা, আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলসহ যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

পরে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বিভিন্ন কর্মশালায় অংশ নিতে তার সংসদীয় এলাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় যান।