ঢাকা ০৩:৩৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




কিশোরগঞ্জে নতুন ৪ জন কোরনা রোগী শনাক্ত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৪১:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০ ৫৮ বার পড়া হয়েছে

মোঃ নাঈম মিয়া, কিশোরগঞ্জ; 

কিশোরগঞ্জ জেলায় নতুন করে দুই চিকিৎসকসহ চার জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট ১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার (১৩ এপ্রিল) সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন কিশোরগঞ্জ জেলা থেকে রোববার (১২ এপ্রিল) ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথ (আইপিএইচ) এ পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে ৪ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।এই ৪ জনের মধ্যে করিমগঞ্জ উপজেলার দুইজন চিকিৎসক, পাকুন্দিয়া উপজেলার একজন ও ভৈরব উপজেলার একজন রয়েছেন।সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান আরো জানান, রোববার (১২ এপ্রিল) পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলা থেকে মোট ১৭৯ জনের কোভিড-১৯ নমুনা পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে মোট ১৫ জনের করোনা পজেটিভ এবং বাকি ১৬৪ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। উপজেলাওয়ারী হিসেবে করিমগঞ্জ উপজেলায় সর্বোচ্চ ৬ জন, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ২ জন, ইটনা উপজেলায় ২ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ২ জন, ভৈরব উপজেলায় ২ জন এবং হোসেনপুর উপজেলার একজন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।এরমধ্যে গত ৬ এপ্রিল করিমগঞ্জের জঙ্গলবাড়ি মুসলিমপাড়া গ্রামের মারা যাওয়া সেলিম মিয়া ও তার পরিবারের তিন সদস্য রয়েছেন। সেলিম মিয়ার মা, ভাই ও স্ত্রী’র নমুনায় কোভিড-১৯ পজেটিভ ধরা পড়েছে। সর্বশেষ সোমবার (১৩ এপ্রিল) করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুইজন চিকিৎসকের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




কিশোরগঞ্জে নতুন ৪ জন কোরনা রোগী শনাক্ত

আপডেট সময় : ০৪:৪১:৩৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০

মোঃ নাঈম মিয়া, কিশোরগঞ্জ; 

কিশোরগঞ্জ জেলায় নতুন করে দুই চিকিৎসকসহ চার জনের করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ পজেটিভ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট ১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার (১৩ এপ্রিল) সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন কিশোরগঞ্জ জেলা থেকে রোববার (১২ এপ্রিল) ৫০ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য মহাখালীর ইনস্টিটিউট অব পাবলিক হেলথ (আইপিএইচ) এ পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে ৪ জনের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।এই ৪ জনের মধ্যে করিমগঞ্জ উপজেলার দুইজন চিকিৎসক, পাকুন্দিয়া উপজেলার একজন ও ভৈরব উপজেলার একজন রয়েছেন।সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান আরো জানান, রোববার (১২ এপ্রিল) পর্যন্ত কিশোরগঞ্জ জেলা থেকে মোট ১৭৯ জনের কোভিড-১৯ নমুনা পাঠানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে মোট ১৫ জনের করোনা পজেটিভ এবং বাকি ১৬৪ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। উপজেলাওয়ারী হিসেবে করিমগঞ্জ উপজেলায় সর্বোচ্চ ৬ জন, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ২ জন, ইটনা উপজেলায় ২ জন, পাকুন্দিয়া উপজেলায় ২ জন, ভৈরব উপজেলায় ২ জন এবং হোসেনপুর উপজেলার একজন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।এরমধ্যে গত ৬ এপ্রিল করিমগঞ্জের জঙ্গলবাড়ি মুসলিমপাড়া গ্রামের মারা যাওয়া সেলিম মিয়া ও তার পরিবারের তিন সদস্য রয়েছেন। সেলিম মিয়ার মা, ভাই ও স্ত্রী’র নমুনায় কোভিড-১৯ পজেটিভ ধরা পড়েছে। সর্বশেষ সোমবার (১৩ এপ্রিল) করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুইজন চিকিৎসকের কোভিড-১৯ পজেটিভ এসেছে।