রাজউক চেয়ারম্যান সাঈদ নূর আলমের লাগামহীন কর্মকাণ্ড

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৪৪ অপরাহ্ণ, ০৯ জানুয়ারি ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক) চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে উত্তরাতে প্লট জালিয়াতি করে কোটি কোটি টাকার বিনিময়ে ৮টি প্লট বরাদ্ধ প্রদান এবং বদলি বাণিজ্য করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ বেশ কিছু দিন যাবৎ চলে আসছিল। তিনি পরিচালক এষ্টেট-১ নুরূল ইসলামের সহায়তায় প্লট জালিয়াতিসহ সব ধরণের বদলি বাণিজ্যগুলো করে থাকেন। যেটি রাজউকের সকল স্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীর জানা।

আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে তার (চেয়ারম্যান) এর পিআরএল এ যাওয়ার কথা রয়েছে। ইতিমধ্যে তিনি জেনে গেছেন তার মেয়াদ বাড়ার কোন পরিকল্পনা বর্তমান সরকারের নেই। যার জন্য তিনি বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন।

সম্প্রতি গত ০৬/০১/২০২১ তারিখে একজন সংসদ সদস্য হোসনে আরা ৩১৬, মহিলা আসন-১৬ সদস্য, কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি, তার নিজের ব্যক্তিগত কাজে রাজউক চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে গেলে তিনি তাকে ৩ ঘন্টা বাহিরে অপেক্ষা করান এবং পবর্তীতে এমপি হোসনে আরা তার রুমে গেলে তিনি তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন এবং তাকে রুম থেকে বের হয়ে যেতে বলেন বলে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বরাবর কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তার সংসদের প্যাডে লিখিত অভিযোগ করেছেন উক্ত মহিলা এমপি হোসনে আরা।

এ বিষয়ে রাজউকের চেয়ারম্যানের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন, একজন এমপির সাথে এমন আচারন করার তো কথা-ই না। যদি আমার অফিসের অন্য কেউ করে থাকে তাহলে এমপি ওনাকে (সংসদ সদস্য হোসনে আরা) কে ফোন করে সরি বলে নিবো।

আপনার মতামত লিখুন :