জাহিদকে বাঁচাতে আরও দুই লাখ টাকা প্রয়োজন

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:২৯ অপরাহ্ণ, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জেলা প্রতিনিধি, রাজশাহীঃ
চার বছরের শিশু জাহিদ হাসান ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত। কিন্তু অর্থের অভাবে ছেলের অপারেশন করাতে পারছেন না ভ্যানচালক বাবা। এতে ধীরে ধীরে খারাপের দিকে যাচ্ছে শিশু জাহিদের শারীরিক অবস্থা।

জাহিদ হাসান রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরসভার চকসিংগা গ্রামের হতদরিদ্র ভ্যানচালক এমরান আলীর ছেলে।

সম্প্রতি জাহিদকে রাজধানীর আগারগাঁও নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানকার চিকিৎসক জাহিদ হাসান সব পরীক্ষা নিরীক্ষা দেখে দ্রুত অপারেশনের পরামর্শ দিয়েছেন। আর এজন্য প্রায় আড়াই লাখ টাকা খরচ হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে সোমবার পর্যন্ত ৪০ হাজার টাকা জোগাড় হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিশুটির বাবা ভ্যানচালক এমরান আলী। এখনও দুই লাখ টাকা প্রয়োজন। সেই অর্থ জোগাড় করতে না পারায় জাহিদের অপারেশন পিছিয়ে পড়েছে।

জাহিদ হাসানের মা তারা বেগম জাগো নিউজকে জানান, শ্বশুর আলী মুদ্দিনের মৃত্যুর পর আড়াই শতাংশ জমি পেয়েছিলেন তার স্বামী। এ জমির উপর দুটি টিনের ছাপড়া ঘর তুলে কোনোমতে বসবাস করেন তারা।

তিনি বলেন, স্বামী ভ্যান চালিয়ে যে আয় করে সেই টাকা দিয়ে তিন ছেলে ও দুই মেয়ের লেখাপড়ার খরচও চালাতে পারছি না। ছোট ছেলের চিকিৎসা করাবো কীভাবে?

এমরান আলী জানান, ছেলের চিকিৎসায় সহযোগিতা চেয়ে বিভিন্নস্থানে এক সপ্তাহ ধরে মাইকিং করা হয়েছে। কিন্তু সেইভাবে কেউ এগিয়ে আসেনি। আরও দুই লাখ টাকা প্রয়োজন। ডাক্তার দ্রুত ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেছেন। জানি না পারবো কীনা? ছেলের জীবন বাঁচাতে সমাজের বিত্তবানদের সহায়তা চেয়েছেন তিনি।

জাহিদকে সাহায্য পাঠানো যাবে তার বাবার ০১৭৪৮-১১৭৩৭২ নম্বরে।

আপনার মতামত লিখুন :