ঢাকা ০৪:৪০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




ভুয়া ওয়েবসাইট খোলার অভিযোগে কথিত গবেষক এনামুল আটক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১৪:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৮ ১৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক,

বিভিন্ন নিউজপোর্টালের ভুয়া ওয়েবসাইট খোলার অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে র‍্যাব-২ এর সদস্যরা। শনিবার (২৪ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর বিমানবন্দর রেলস্টেশন থেকে তাকে আটক করা হয়।

এ প্রসঙ্গে র‍্যাব জানায়, এনামুল হক নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তিনি নিজেকে পিএইচডি গবেষক হিসেবে পরিচয় দিতেন।

তারা আরও জানায়, আটক এনামুল দক্ষিণ কোরিয়া থেকে বিভিন্ন নামে ভুয়া ওয়েবসাইট পরিচালনা করতেন। তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

র‍্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার এসপি মহিউদ্দিন ফারুক জানান, এনামুল দক্ষিণ কোরিয়া থেকে বিভিন্ন অনলাইনের নামে ২২টি ভুয়া ওয়েবসাইট খুলেছিলেন। কিছুদিন আগে তিনি চাকরির পরীক্ষার জন্য দেশে আসেন। এরপর এনামুল হক অপহরণের নাটক সাজিয়েছিলেন।

তিনি আরও জানান, অপহরণের নাটক সাজিয়ে তিনি কোরিয়া পালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন।তবে পূর্বের তথ্য অনুযায়ী আজ সকালে এনামুলকে আটক করা হয়। তিনি পাবনা ঈশ্বরদী থেকে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে করে ঢাকায় আসেন।

এর আগে, গত বুধবার (২১ নভেম্বর) দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার জন্য আশকোনার বন্ধুর বাসা থেকে রাত ১০টার দিকে বের হয়েছিলেন এনামুল হক মিলন। রাত ১টায় তার বিমানে ওঠার কথা ছিল। বন্ধুর ছোট ভাই তাকে রিকশায় উঠিয়ে বিদায় দেন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছিলো।

এনামুলের গ্রামের বাড়ি পাবনায়। তার বাবার নাম ফজলুল হক। এক পুত্র সন্তানের বাবা এনামুল বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশুনা শেষ করে বৃত্তি নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার কিওংপুক ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (কেএনইউ) পিএইচডি করছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ভুয়া ওয়েবসাইট খোলার অভিযোগে কথিত গবেষক এনামুল আটক

আপডেট সময় : ১১:১৪:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক,

বিভিন্ন নিউজপোর্টালের ভুয়া ওয়েবসাইট খোলার অভিযোগে এক যুবককে আটক করেছে র‍্যাব-২ এর সদস্যরা। শনিবার (২৪ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর বিমানবন্দর রেলস্টেশন থেকে তাকে আটক করা হয়।

এ প্রসঙ্গে র‍্যাব জানায়, এনামুল হক নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তিনি নিজেকে পিএইচডি গবেষক হিসেবে পরিচয় দিতেন।

তারা আরও জানায়, আটক এনামুল দক্ষিণ কোরিয়া থেকে বিভিন্ন নামে ভুয়া ওয়েবসাইট পরিচালনা করতেন। তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

র‍্যাব-২ এর কোম্পানি কমান্ডার এসপি মহিউদ্দিন ফারুক জানান, এনামুল দক্ষিণ কোরিয়া থেকে বিভিন্ন অনলাইনের নামে ২২টি ভুয়া ওয়েবসাইট খুলেছিলেন। কিছুদিন আগে তিনি চাকরির পরীক্ষার জন্য দেশে আসেন। এরপর এনামুল হক অপহরণের নাটক সাজিয়েছিলেন।

তিনি আরও জানান, অপহরণের নাটক সাজিয়ে তিনি কোরিয়া পালিয়ে যেতে চেয়েছিলেন।তবে পূর্বের তথ্য অনুযায়ী আজ সকালে এনামুলকে আটক করা হয়। তিনি পাবনা ঈশ্বরদী থেকে সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনে করে ঢাকায় আসেন।

এর আগে, গত বুধবার (২১ নভেম্বর) দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার জন্য আশকোনার বন্ধুর বাসা থেকে রাত ১০টার দিকে বের হয়েছিলেন এনামুল হক মিলন। রাত ১টায় তার বিমানে ওঠার কথা ছিল। বন্ধুর ছোট ভাই তাকে রিকশায় উঠিয়ে বিদায় দেন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ রয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছিলো।

এনামুলের গ্রামের বাড়ি পাবনায়। তার বাবার নাম ফজলুল হক। এক পুত্র সন্তানের বাবা এনামুল বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশুনা শেষ করে বৃত্তি নিয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার কিওংপুক ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (কেএনইউ) পিএইচডি করছেন।