ঢাকা ০৪:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ! Logo দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি: কালবে সর্বোচ্চ পদ দখলে রেখেছে আগস্টিন! Logo আইআইএফসি ও মার্কটেল বাংলাদেশ’র মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর Logo ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর পরিদর্শনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী Logo সর্বজনীন পেনশন প্রত্যাহারে শাবি শিক্ষক সমিতি মৌন মিছিল ও কালোব্যাজ ধারণ Logo শাবিপ্রবিতে কুমিল্লা স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত Logo শাবিপ্রবি কেন্দ্রে সুষ্ঠভাবে গুচ্ছভর্তির তিন ইউনিটের পরীক্ষা সম্পন্ন




বঙ্গবন্ধুর অবদানেই আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি: শাবি উপাচার্য

প্রতিনিধি, শাবিপ্রবি
  • আপডেট সময় : ০৩:৪১:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩ ১০৮ বার পড়া হয়েছে

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযথ মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস, ২০২৩ পালিত হয়।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) দিবসের কর্মসূচির মধ্যে ছিল বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ও দেশান্তবোধক গান প্রচার, জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সাথে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, শিশু কিশোরদের নিয়ে অনুষ্ঠান, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং প্রার্থনা সভা।

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম সকাল ৮:৩০ মিনিটে যথাক্রমে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করেন। উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ সকাল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এসময় কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. এস এম সাইফুল ইসলাম, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকবৃন্দ এবং বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উপাচার্য পুষ্পস্তবক অর্পণের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটি, ডিনবৃন্দ,বিভিন্ন আবাসিক হল, বিভাগ এবং সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পরে সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটরিয়ামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বক্তৃতা ও রচনায় সাবলীলতা ও দূরদর্শিতা শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, এ জাতি বঙ্গবন্ধুর কাছে চির ঋণী। তাঁর অবদানের ফলেই আমরা স্বাধীন দেশে আমাদের জন্য উন্নতির জন্য কাজ করতে পারছি। তবে আমাদের লক্ষ্য থাকতে হবে যাতে আমরা দক্ষ ও যোগ্য জনশক্তি তৈরি করতে পারি। এজন্য আমাদের একেবারে প্রথম থেকে শিশুদের প্রতি যত্নবান হতে হবে। তাদের যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে।

উপাচার্য আরোও বলেন, অর্থনৈতিক স্বাধীনতা ছাড়া রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্থহীন। এখনো গরীব মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। তারা সমান সুযোগ ভোগ করতে পারে না। তাই অর্থনৈতিক মুক্তি এখন অপরিহার্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন তাই অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন। আমাদেরকেও নিজ নিজ অবস্থানে কাজ করে যেতে হবে। সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম ।

আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. কবির হোসেন । এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এপ্লাইড সায়েন্সেস অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. আরিফুল ইসলাম, সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মস্তাবুর রহমান, প্রফেসর ড. সৈয়দ সামসুল আলম, প্রফেসর ড. মো. আখতারুল ইসলাম. অফিসার্স এসোসিশনের সভাপতি মোহাম্মদ মুর্শেদ আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা খলিলুর সজিবুর রহমান ও সুমন মিয়া প্রমুখ।

আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. এস এম সাইফুল ইসলাম এবং সঞ্চালনা করেন বঙ্গবন্ধু গবেষণা সেলের পরিচালক প্রফেসর ড. আব্দুল গনি।

আলোচনা সভা আগে বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত শিশু কিশোরদের নিয়ে ক্রিড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ।

বাদ যোহর কেন্দ্রীয় মসজিদে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। তাছাড়া সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় সেন্টারে প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বঙ্গবন্ধুর অবদানেই আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি: শাবি উপাচার্য

আপডেট সময় : ০৩:৪১:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৭ মার্চ ২০২৩

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযথ মর্যাদায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস, ২০২৩ পালিত হয়।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) দিবসের কর্মসূচির মধ্যে ছিল বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ও দেশান্তবোধক গান প্রচার, জাতীয় সংগীত পরিবেশনের সাথে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, শিশু কিশোরদের নিয়ে অনুষ্ঠান, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং প্রার্থনা সভা।

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম সকাল ৮:৩০ মিনিটে যথাক্রমে জাতীয় পতাকা ও বিশ্ববিদ্যালয় পতাকা উত্তোলন করেন। উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ সকাল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। এসময় কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক ড. এস এম সাইফুল ইসলাম, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষকবৃন্দ এবং বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উপাচার্য পুষ্পস্তবক অর্পণের পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটি, ডিনবৃন্দ,বিভিন্ন আবাসিক হল, বিভাগ এবং সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পরে সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মিনি অডিটরিয়ামে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বক্তৃতা ও রচনায় সাবলীলতা ও দূরদর্শিতা শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, এ জাতি বঙ্গবন্ধুর কাছে চির ঋণী। তাঁর অবদানের ফলেই আমরা স্বাধীন দেশে আমাদের জন্য উন্নতির জন্য কাজ করতে পারছি। তবে আমাদের লক্ষ্য থাকতে হবে যাতে আমরা দক্ষ ও যোগ্য জনশক্তি তৈরি করতে পারি। এজন্য আমাদের একেবারে প্রথম থেকে শিশুদের প্রতি যত্নবান হতে হবে। তাদের যোগ্য করে গড়ে তুলতে হবে।

উপাচার্য আরোও বলেন, অর্থনৈতিক স্বাধীনতা ছাড়া রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্থহীন। এখনো গরীব মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়নি। তারা সমান সুযোগ ভোগ করতে পারে না। তাই অর্থনৈতিক মুক্তি এখন অপরিহার্য। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন তাই অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য কাজ করছেন। আমাদেরকেও নিজ নিজ অবস্থানে কাজ করে যেতে হবে। সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম ।

আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. কবির হোসেন । এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, এপ্লাইড সায়েন্সেস অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. আরিফুল ইসলাম, সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ মস্তাবুর রহমান, প্রফেসর ড. সৈয়দ সামসুল আলম, প্রফেসর ড. মো. আখতারুল ইসলাম. অফিসার্স এসোসিশনের সভাপতি মোহাম্মদ মুর্শেদ আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা খলিলুর সজিবুর রহমান ও সুমন মিয়া প্রমুখ।

আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক প্রফেসর ড. এস এম সাইফুল ইসলাম এবং সঞ্চালনা করেন বঙ্গবন্ধু গবেষণা সেলের পরিচালক প্রফেসর ড. আব্দুল গনি।

আলোচনা সভা আগে বিশ্ববিদ্যালয় মুক্তমঞ্চে অনুষ্ঠিত শিশু কিশোরদের নিয়ে ক্রিড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করেন উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ।

বাদ যোহর কেন্দ্রীয় মসজিদে মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। তাছাড়া সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয় সেন্টারে প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।