ঢাকা ১২:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo ১৭ মার্চ ও ২৬ মার্চের আহ্বায়কসহ তিনজনকে প্রত্যাহারের আহ্বান কুবি শিক্ষক সমিতির Logo সিলেটে সাইবার ট্রাইব্যুনালে ছাত্রদল ও ছাত্রশিবির সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের Logo ড. ইউনূসের মামলা পর্যবেক্ষণ করছে জাতিসংঘ Logo কাভার্ডভ্যান ও অটোরিকশার সংঘর্ষে ছাত্র নিহত, আহত ৩ Logo রাজশাহীতে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫ Logo এবার ঢাবি অধ্যাপক নাদিরের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ  Logo সন্দ্বীপ থানার ওসির পিপিএম পদক লাভ Logo মালয়েশিয়ায় ১৩৪ বাংলাদেশি গ্রেফতার Logo শাবির ছাত্রীহলে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্থাপন, কমবে চুরি ও বহিরাগত প্রবেশ, বাড়বে নিরাপত্তা Logo গণতন্ত্র মঞ্চের কর্মসূচিতে হামলার নিন্দা ১২ দলীয় জোটের




আইজিপি পদে আলোচনায় তিনজন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৮ জানুয়ারী ২০২৩ ১০০ বার পড়া হয়েছে

 

তিনমাস আগে পুলিশ মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) দায়িত্ব নেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। তিনি বাংলাদেশ পুলিশের ৩১তম আইজিপি। তার চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১১ জানুয়ারি। ফলে মাত্র সাড়ে তিনমাসেরও কম সময়ের ব্যবধানে ৩২তম আইজিপি পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ। আগামীতে কে হচ্ছেন দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী এ বাহিনীর প্রধান, তা নিয়ে জল্পনার শেষ নেই। নতুন কোনো কর্মকর্তা এ পদে আসছেন নাকি বর্তমান আইজিপিকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়ে মেয়াদ বাড়ানো হবে, তা নিয়ে চলছে আলোচনা।

 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গন এ বছর অস্থির থাকতে পারে। রাজনৈতিক সহিংসতার আশঙ্কাও করছেন বিভিন্ন মহল। রাজনীতির মাঠের সহিংসতা মোকাবিলায় প্রধান ভূমিকা রাখে পুলিশ। ঠিক এমন সময়ে পুলিশপ্রধানের দায়িত্বে কে আসছেন, তা নিয়ে হিসাব-নিকাশ চলছে। চাপের মধ্যেও দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনে সক্ষম এমন কর্মকর্তাকে দায়িত্বে রাখতে চাইছে সরকার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আইজিপি হওয়ার দৌড়ে বর্তমান পুলিশপ্রধান চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনসহ বেশ কয়েকজন আলোচনায় রয়েছেন। তবে আইজিপি পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের নজির না থাকায় বর্তমান আইজিপির মেয়াদ বাড়ানো হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। সেক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা ও দক্ষতা বিবেচনায় নতুন আইজিপি পদে আসতে পারেন পুলিশ সদরদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (প্রশাসন) মো. কামরুল আহসান। অথবা অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের (এটিইউ) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি এস এম রুহুল আমিন।

 

তবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মাধ্যমে বর্তমান আইজিপির মেয়াদ বাড়ানোর সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না সংশ্লিষ্টরা। যদি তাই হয়, সেক্ষেত্রে পুলিশ বাহিনীতে নতুন রেকর্ড গড়বেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশ সদরদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় নির্বাচন ও নানা ধরনের সংকট মোকাবিলায় দক্ষতার সঙ্গে ভূমিকা রাখতে পারবেন- এমন কর্মকর্তাই নতুন আইজিপি পদে নিয়োগ পাবেন। সার্বিক পরিস্থিতি ও প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে বর্তমান আইজিপির চুক্তিভিত্তিক মেয়াদ বাড়ানোসহ যোগ্য ও দক্ষ কয়েকজনের নাম প্রস্তাব করে একটি ফাইল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

 

এদিকে, আলোচনায় থাকা পুলিশ কর্মকর্তারা সরকারের বিভিন্ন মহলে যোগাযোগও রাখছেন। দেশের ৩২তম পুলিশপ্রধান পদের জন্য শেষ মুহূর্তে চলছে দৌড়ঝাঁপ। তবে সরকার সংকট মোকাবিলায় দক্ষতা ও জ্যেষ্ঠতা দেখে নতুন আইজিপি নিয়োগের দিকে হাঁটতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




আইজিপি পদে আলোচনায় তিনজন

আপডেট সময় : ০৭:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৮ জানুয়ারী ২০২৩

 

তিনমাস আগে পুলিশ মহাপরিদর্শকের (আইজিপি) দায়িত্ব নেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন। তিনি বাংলাদেশ পুলিশের ৩১তম আইজিপি। তার চাকরির মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী ১১ জানুয়ারি। ফলে মাত্র সাড়ে তিনমাসেরও কম সময়ের ব্যবধানে ৩২তম আইজিপি পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ। আগামীতে কে হচ্ছেন দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী এ বাহিনীর প্রধান, তা নিয়ে জল্পনার শেষ নেই। নতুন কোনো কর্মকর্তা এ পদে আসছেন নাকি বর্তমান আইজিপিকে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দিয়ে মেয়াদ বাড়ানো হবে, তা নিয়ে চলছে আলোচনা।

 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গন এ বছর অস্থির থাকতে পারে। রাজনৈতিক সহিংসতার আশঙ্কাও করছেন বিভিন্ন মহল। রাজনীতির মাঠের সহিংসতা মোকাবিলায় প্রধান ভূমিকা রাখে পুলিশ। ঠিক এমন সময়ে পুলিশপ্রধানের দায়িত্বে কে আসছেন, তা নিয়ে হিসাব-নিকাশ চলছে। চাপের মধ্যেও দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনে সক্ষম এমন কর্মকর্তাকে দায়িত্বে রাখতে চাইছে সরকার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আইজিপি হওয়ার দৌড়ে বর্তমান পুলিশপ্রধান চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনসহ বেশ কয়েকজন আলোচনায় রয়েছেন। তবে আইজিপি পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের নজির না থাকায় বর্তমান আইজিপির মেয়াদ বাড়ানো হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। সেক্ষেত্রে জ্যেষ্ঠতা ও দক্ষতা বিবেচনায় নতুন আইজিপি পদে আসতে পারেন পুলিশ সদরদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (প্রশাসন) মো. কামরুল আহসান। অথবা অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের (এটিইউ) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি এস এম রুহুল আমিন।

 

তবে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মাধ্যমে বর্তমান আইজিপির মেয়াদ বাড়ানোর সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না সংশ্লিষ্টরা। যদি তাই হয়, সেক্ষেত্রে পুলিশ বাহিনীতে নতুন রেকর্ড গড়বেন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

 

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও পুলিশ সদরদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় নির্বাচন ও নানা ধরনের সংকট মোকাবিলায় দক্ষতার সঙ্গে ভূমিকা রাখতে পারবেন- এমন কর্মকর্তাই নতুন আইজিপি পদে নিয়োগ পাবেন। সার্বিক পরিস্থিতি ও প্রেক্ষাপট বিবেচনায় নিয়ে বর্তমান আইজিপির চুক্তিভিত্তিক মেয়াদ বাড়ানোসহ যোগ্য ও দক্ষ কয়েকজনের নাম প্রস্তাব করে একটি ফাইল প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

 

এদিকে, আলোচনায় থাকা পুলিশ কর্মকর্তারা সরকারের বিভিন্ন মহলে যোগাযোগও রাখছেন। দেশের ৩২তম পুলিশপ্রধান পদের জন্য শেষ মুহূর্তে চলছে দৌড়ঝাঁপ। তবে সরকার সংকট মোকাবিলায় দক্ষতা ও জ্যেষ্ঠতা দেখে নতুন আইজিপি নিয়োগের দিকে হাঁটতে পারে।