ঢাকা ০৭:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ




অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে প্রথম বাংলাদেশী নারী প্রার্থী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:২১:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০১৯ ১১৬ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্কঃ প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে বসতে যাচ্ছেন কোনো বাংলাদেশী নারী। আগামী ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত সাবরিনা ফারুকি অস্ট্রেলিয়ান লেবার পার্টির (এএলপি) প্রার্থী হিসেবে লড়বেন। আসন্ন এই নির্বাচনে দেশটির নিউ সাউথ ওয়েলস (এসএসডব্লিউ) আইন পরিষদের একটি আসনে প্রার্থীতা করছেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার দুই কক্ষবিশিষ্ট পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ এসএসডব্লিউ পরিষদে সাবরিনা ফারুকির প্রার্থীতার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ নামের একটি অস্ট্রেলিয়ান সংবাদ মাধ্যম। তাদের প্রচারিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, জন্মসূত্রে সাবরিনা বাংলাদেশের নাগরিক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করেন।

২০১৪ সালে উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্যের রাজধানী সিডনিতে যান তিনি। পরে সেখানে তিনি ‘ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস’ থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন এবং পরবর্তীতে ‘ইউনিভার্সিটি অব সিডনি’ থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে প্রথম বাংলাদেশী নারী প্রার্থী

আপডেট সময় : ১১:২১:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০১৯

অনলাইন ডেস্কঃ প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে বসতে যাচ্ছেন কোনো বাংলাদেশী নারী। আগামী ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত সাবরিনা ফারুকি অস্ট্রেলিয়ান লেবার পার্টির (এএলপি) প্রার্থী হিসেবে লড়বেন। আসন্ন এই নির্বাচনে দেশটির নিউ সাউথ ওয়েলস (এসএসডব্লিউ) আইন পরিষদের একটি আসনে প্রার্থীতা করছেন তিনি।

অস্ট্রেলিয়ার দুই কক্ষবিশিষ্ট পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ এসএসডব্লিউ পরিষদে সাবরিনা ফারুকির প্রার্থীতার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ‘সিডনি মর্নিং হেরাল্ড’ নামের একটি অস্ট্রেলিয়ান সংবাদ মাধ্যম। তাদের প্রচারিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, জন্মসূত্রে সাবরিনা বাংলাদেশের নাগরিক। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করেন।

২০১৪ সালে উচ্চশিক্ষা অর্জনের জন্য অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস অঙ্গরাজ্যের রাজধানী সিডনিতে যান তিনি। পরে সেখানে তিনি ‘ইউনিভার্সিটি অব নিউ সাউথ ওয়েলস’ থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন এবং পরবর্তীতে ‘ইউনিভার্সিটি অব সিডনি’ থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।