ঢাকা ০৭:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




রাজধানীতে করোনায় বেশি আক্রান্ত পুরান ঢাকা, এরপর মিরপুর

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৫০:২৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ এপ্রিল ২০২০ ৭৯ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন রিপোর্ট | 

দিন দিন বেড়েই চলছে করোনার সংক্রমণ। বলার অপেক্ষা রাখে না রাজধানী ঢাকাতেই সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে। তারমধ্যে পুরান ঢাকায় আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। রাজধানীতে আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মিরপুর। অপরদিকে ঢাকার বাইরে আরও ৪১টি জেলায় ছড়িয়েছে করোনার সংক্রমণ। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন ২০৯ জনসহ দেশে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা এক হাজার ১২ জন।
মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিনে নতুন ২০৯ জনের এই ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানটির অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও রোগ গবেষণা ইন্সটিটিউটের (আইইডিসিআর) দেওয়া তথ্যানুযায়ী, সবচেয়ে বেশি ১১৪ জন কোভিড-১৯ সংক্রমিত ব্যক্তি পাওয়া গেছে পুরান ঢাকায়। এরপরেই রয়েছে মিরপুর। এর মধ্যে পুরান ঢাকার ওয়ারী এলাকায় ২৫ জন, লালবাগে ১৮ জন, হাজারীবাগে আটজন, বংশালে সাতজন, সূত্রাপুরে ছয়জন, সোয়ারীঘাটে তিনজন, বাবুবাজারে ১১ জন এবং চকবাজারে ছয়জনের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া আজিমপুরে ছয়জন, জেলগেট এলাকায় দুজন, ইসলামপুরে দুজন, নারিন্দায় দুজন, চানখাঁরপুলে দুজন, কোতোয়ালিতে দুজন, সূত্রাপুরে দুজন ও লক্ষ্মীবাজারে দুজনের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর বাইরে উর্দু রোড, বুয়েট আবাসিক এলাকা, কদমতলী, মিটফোর্ড এলাকা, নবাবপুর, ঢাকেশ্বরী, নওয়াবপুর, আরমানিটোলা, ধোলাইখাল ও দয়াগঞ্জে একজন করে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন।
এদিকে রাজধানীর বৃহত্তর মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় এখন পর্যন্ত ৭২ জনের মধ্যে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে টোলারবাগে ১৯ জন, মিরপুর- ১১ এলাকায় ১১ জন, মিরপুর-১ এলাকায় ছয়জন, মিরপুর-১৪ এলাকায় পাঁচজন, মিরপুর-১০ এলাকায় দশজন এবং মিরপুর-১২ এলাকায় ১০ জনের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এছাড়া মিরপুর ৬, পীরেরবাগ, শাহআলীবাগ ও মিরপুর-১৩ এলাকায় দুজন করে কোভিড-১৯ সংক্রমিত পাওয়া গেছে। এছাড়াও কল্যাণপুর, কাজীপাড়া, জুরাইন এবং মানিকদিতে একজন করে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে।
উল্লেখ্য, দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে আইইডিসিআর। তার ১০ দিন পর দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় একজনের। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও গত ক’দিনে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এ সংখ্যা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে মানুষকে ঘরে রাখতে রাজপথের পাশাপাশি পাড়া-মহল্লায় টহল দিচ্ছে সশস্ত্র বাহিনী, র‌্যাব ও পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




রাজধানীতে করোনায় বেশি আক্রান্ত পুরান ঢাকা, এরপর মিরপুর

আপডেট সময় : ১১:৫০:২৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ এপ্রিল ২০২০

অনলাইন রিপোর্ট | 

দিন দিন বেড়েই চলছে করোনার সংক্রমণ। বলার অপেক্ষা রাখে না রাজধানী ঢাকাতেই সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে। তারমধ্যে পুরান ঢাকায় আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। রাজধানীতে আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মিরপুর। অপরদিকে ঢাকার বাইরে আরও ৪১টি জেলায় ছড়িয়েছে করোনার সংক্রমণ। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় নতুন ২০৯ জনসহ দেশে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা এক হাজার ১২ জন।
মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত বুলেটিনে নতুন ২০৯ জনের এই ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার তথ্য জানান প্রতিষ্ঠানটির অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও রোগ গবেষণা ইন্সটিটিউটের (আইইডিসিআর) দেওয়া তথ্যানুযায়ী, সবচেয়ে বেশি ১১৪ জন কোভিড-১৯ সংক্রমিত ব্যক্তি পাওয়া গেছে পুরান ঢাকায়। এরপরেই রয়েছে মিরপুর। এর মধ্যে পুরান ঢাকার ওয়ারী এলাকায় ২৫ জন, লালবাগে ১৮ জন, হাজারীবাগে আটজন, বংশালে সাতজন, সূত্রাপুরে ছয়জন, সোয়ারীঘাটে তিনজন, বাবুবাজারে ১১ জন এবং চকবাজারে ছয়জনের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া আজিমপুরে ছয়জন, জেলগেট এলাকায় দুজন, ইসলামপুরে দুজন, নারিন্দায় দুজন, চানখাঁরপুলে দুজন, কোতোয়ালিতে দুজন, সূত্রাপুরে দুজন ও লক্ষ্মীবাজারে দুজনের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর বাইরে উর্দু রোড, বুয়েট আবাসিক এলাকা, কদমতলী, মিটফোর্ড এলাকা, নবাবপুর, ঢাকেশ্বরী, নওয়াবপুর, আরমানিটোলা, ধোলাইখাল ও দয়াগঞ্জে একজন করে কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন।
এদিকে রাজধানীর বৃহত্তর মিরপুরের বিভিন্ন এলাকায় এখন পর্যন্ত ৭২ জনের মধ্যে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে টোলারবাগে ১৯ জন, মিরপুর- ১১ এলাকায় ১১ জন, মিরপুর-১ এলাকায় ছয়জন, মিরপুর-১৪ এলাকায় পাঁচজন, মিরপুর-১০ এলাকায় দশজন এবং মিরপুর-১২ এলাকায় ১০ জনের মধ্যে কোভিড-১৯ সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এছাড়া মিরপুর ৬, পীরেরবাগ, শাহআলীবাগ ও মিরপুর-১৩ এলাকায় দুজন করে কোভিড-১৯ সংক্রমিত পাওয়া গেছে। এছাড়াও কল্যাণপুর, কাজীপাড়া, জুরাইন এবং মানিকদিতে একজন করে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে।
উল্লেখ্য, দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে আইইডিসিআর। তার ১০ দিন পর দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় একজনের। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও গত ক’দিনে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে এ সংখ্যা। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে মানুষকে ঘরে রাখতে রাজপথের পাশাপাশি পাড়া-মহল্লায় টহল দিচ্ছে সশস্ত্র বাহিনী, র‌্যাব ও পুলিশ।