ঢাকা ০৯:১০ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মির্জাগঞ্জ এলজিইডি প্রকৌশলী আশিকুরের ঘুস-দুর্নীতি! Logo দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত ঊর্ধ্বগতি ; বিপাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা Logo পরিবেশের জন্য ই-বর্জ্য হুমকি স্বরূপ ; তা উত্তরণের উপায় Logo বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ Logo ঐতিহ্যবাহী সোহরাওয়ার্দী কলেজ সাংবাদিক সমিতির কমিটি গঠন Logo চেয়ারম্যানের আহ্লাদে বেপরোয়া বিআইডব্লিউটিএ‘র কর্মচারি পান্না বিশ্বাস! Logo রাজউকে বদলী ও পদায়নে ভয়ংকর দুর্নীতি ফাঁস: নেপথ্য নায়ক প্রধান প্রকৌশলী  Logo কুবির শেখ হাসিনা হলের গ্যাস লিক, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা Logo ইন্টার্ন চিকিৎসকের হাত-পা ভেঙে দিলেন সহকর্মীরা Logo ঐতিহ্যবাহী শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে অফিসার্স কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত 




স্বাধীনতা স্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে বিএনপি নেতাদের ওপর হামলা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৮:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯ ৩৫ বার পড়া হয়েছে

ফরিদপুর ব্যুরো; স্বাধীনতা স্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে হামলার শিকার হয়েছেন ফরিদপুর জেলা বিএনপি, স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার সকালে শহরের গোয়ালচামট এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। তবে কে বা কারা এ হামলা করেছে তা এখনও জানা যায়নি।

আহতদের মধ্যে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক ও জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ জুলফিকার হোসেন জুয়েলকে ফরিদপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হয়েছে।

এদিকে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদাররেস আলী ইছা ও জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক একেএম কিবরিয়া স্বপন গুরুতর আহত হয়েছেন।

এ ছাড়া আহত হয়েছেন জেলা বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক দিলদার হোসেন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি লিটন বিশ্বাস, ছাত্রদলের আল আমীন তুষার, শ্রমিক দলের বিল্লাল তালুকদার প্রমুখ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিএনপি ও স্বেচ্ছাসেবক দল পৃথকভাবে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে ফেরার সময় স্মৃতিস্তম্ভের অদূরে এ হামলা চালানো হয়।

হামলাকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে আহত করে নেতাকর্মীদের। এ সময় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ পৌঁছার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সভাপতি জহিরুল হক শাহজাদা মিয়া এবং বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ রিংকুসহ নেতৃবৃন্দ এ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করার জোর দাবি জানান।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ওসি এএসএম নাসিম বলেন, হামলার ঘটনায় তিনজন আহত হওয়ার খবর শুনেছি। তবে এ ঘটনায় থানায় এখনও কেউ অভিযোগ করেনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




স্বাধীনতা স্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে বিএনপি নেতাদের ওপর হামলা

আপডেট সময় : ০৩:৫৮:১২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯

ফরিদপুর ব্যুরো; স্বাধীনতা স্তম্ভে ফুল দিয়ে ফেরার পথে হামলার শিকার হয়েছেন ফরিদপুর জেলা বিএনপি, স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

মঙ্গলবার সকালে শহরের গোয়ালচামট এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। তবে কে বা কারা এ হামলা করেছে তা এখনও জানা যায়নি।

আহতদের মধ্যে জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক ও জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ জুলফিকার হোসেন জুয়েলকে ফরিদপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হয়েছে।

এদিকে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোদাররেস আলী ইছা ও জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক একেএম কিবরিয়া স্বপন গুরুতর আহত হয়েছেন।

এ ছাড়া আহত হয়েছেন জেলা বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক দিলদার হোসেন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি লিটন বিশ্বাস, ছাত্রদলের আল আমীন তুষার, শ্রমিক দলের বিল্লাল তালুকদার প্রমুখ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিএনপি ও স্বেচ্ছাসেবক দল পৃথকভাবে স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পমাল্য অর্পণ শেষে ফেরার সময় স্মৃতিস্তম্ভের অদূরে এ হামলা চালানো হয়।

হামলাকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও লাঠিসোটা দিয়ে পিটিয়ে আহত করে নেতাকর্মীদের। এ সময় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ পৌঁছার আগেই হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপির সভাপতি জহিরুল হক শাহজাদা মিয়া এবং বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ রিংকুসহ নেতৃবৃন্দ এ হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করার জোর দাবি জানান।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ওসি এএসএম নাসিম বলেন, হামলার ঘটনায় তিনজন আহত হওয়ার খবর শুনেছি। তবে এ ঘটনায় থানায় এখনও কেউ অভিযোগ করেনি।