ঢাকা ০৯:১৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




কানাডার জাতীয় নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশি নারী এমপি প্রার্থী হিসেবে লড়বেন ডা. গুলশান

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১৩:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অগাস্ট ২০২১ ২২ বার পড়া হয়েছে

কানাডা প্রতিনিধি : কানাডায় অনুষ্ঠিতব্য ২০ সেপ্টেম্বর ৪৪ তম জাতীয় নির্বাচনে ‘নিউ ডেমোক্রেটিক পার্টি – এনডিপি’র থেকে এমপি পদে প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে লড়বেন ডা. গুলশান আক্তার। তার আসনটি হলো- কানাডার ক্যালগেরীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসনগুলোর মধ্যে একটি- ক্যালগেরী কনফেডারেশন। গত বুধবার পার্টির সরাসরি মনোনয়নে এই আসনের প্রার্থীতা নিশ্চিত করেন ডা. গুলশান।

 

ডা. গুলশান আক্তার নির্বাচিত হলে নর্থ আমেরিকার মধ্যে প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে তিনি ইতিহাস সৃষ্টি করবেন। একইসঙ্গে নির্বাচনে বিজয়ী হলে ডাঃ গুলশান আক্তার কানাডায় প্রথম বাংলাদেশী নারী এমপি হওয়ার গৌরব অর্জন করবেন। এর আগে তিনি ২০১৯ সালে আলবার্টা প্রদেশে ৩০ তম প্রাদেশিক নির্বাচনে এমএলএ পদে নির্বাচন করেছিলেন। পাশাপাশি তিনি ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন কাউন্সিল ফর ইলেক্ট্রোরাল ডিস্ট্রিক্টস অব আলবার্টার। বর্তমানে তিনি পার্টিটির ফেডারেল কাউন্সিল আলবার্টার রিপ্রেজেন্টেটিভ হিসেবে দক্ষতার সাথে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন।

 

কানাডায় প্রতিষ্ঠিত পিয়ারলেস ট্রেনিং ইনস্টিটিউট এবং নোশান ক্রিয়েটিভ হাউজ লিমিটেড (প্রস্তাবিত-নোশান টিভি)র কর্ণধার, বাংলাদেশসহ গ্রুপ অব কোম্পানীর মালিক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক ডা: গুলশান আক্তার শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সামাজিক উন্নয়নে রেখেছেন ব্যাপক অবদান। বৈশ্বিক করোনা সংকটের শুরু থেকেই করোনা প্রতিরোধ ও সচেতনতা বাড়াতে বাংলাদেশ এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আর্থিক সহযোগিতার পাশাপাশি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ডা: গুলশান। তার এ মহৎ কাজের পিছনে অদম্য উৎসাহ ও সহযোগিতা করে যাচ্ছেন স্বামী ইঞ্জিনিয়ার জাহিদুল আলম এবং একমাত্র সন্তান আসওয়াদ তাহসিন।

 

ডা. গুলশান প্রাক্তন আর এমসি। রংপুর মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস করেন। পরে দক্ষতার ক্যাটাগরীতে চিকিৎসা বিভাগে ২০০৯ পাড়ি জমান কানাডায়। সেখানে বিভিন্ন রেগুলেটরী পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়ে প্রথম সারির স্বাস্থ্য কর্মকর্তা হিসেবে সাফল্যের সাথে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। একইসঙ্গে তিনি কানাডায় অবস্থানরত বিদেশি চিকিৎসকদেরকে আলট্রাসাউন্ড এর উপর ট্রেনিং দিয়ে কানাডা এবং আমেরিকায় সেবা প্রদানের রেজিস্ট্রেসনপ্রাপ্তিতে সহায়তা করছেন।

 

তাঁর এ মনোনয়নে বাংলাদেশ এবং বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উষ্ণ অভিনন্দন জানানো হয়েছে এবং নির্বাচনে ডাঃ গুলশান আক্তারের বিজয় কামনা করেছেন বাংলাদেশ থেকে নোশান টিভির ডিরেক্টর অব অপারেশনস সিদ্ধার্থ দে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




error: Content is protected !!

কানাডার জাতীয় নির্বাচনে প্রথম বাংলাদেশি নারী এমপি প্রার্থী হিসেবে লড়বেন ডা. গুলশান

আপডেট সময় : ১২:১৩:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ অগাস্ট ২০২১

কানাডা প্রতিনিধি : কানাডায় অনুষ্ঠিতব্য ২০ সেপ্টেম্বর ৪৪ তম জাতীয় নির্বাচনে ‘নিউ ডেমোক্রেটিক পার্টি – এনডিপি’র থেকে এমপি পদে প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে লড়বেন ডা. গুলশান আক্তার। তার আসনটি হলো- কানাডার ক্যালগেরীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসনগুলোর মধ্যে একটি- ক্যালগেরী কনফেডারেশন। গত বুধবার পার্টির সরাসরি মনোনয়নে এই আসনের প্রার্থীতা নিশ্চিত করেন ডা. গুলশান।

 

ডা. গুলশান আক্তার নির্বাচিত হলে নর্থ আমেরিকার মধ্যে প্রথম বাংলাদেশি নারী হিসেবে তিনি ইতিহাস সৃষ্টি করবেন। একইসঙ্গে নির্বাচনে বিজয়ী হলে ডাঃ গুলশান আক্তার কানাডায় প্রথম বাংলাদেশী নারী এমপি হওয়ার গৌরব অর্জন করবেন। এর আগে তিনি ২০১৯ সালে আলবার্টা প্রদেশে ৩০ তম প্রাদেশিক নির্বাচনে এমএলএ পদে নির্বাচন করেছিলেন। পাশাপাশি তিনি ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন কাউন্সিল ফর ইলেক্ট্রোরাল ডিস্ট্রিক্টস অব আলবার্টার। বর্তমানে তিনি পার্টিটির ফেডারেল কাউন্সিল আলবার্টার রিপ্রেজেন্টেটিভ হিসেবে দক্ষতার সাথে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন।

 

কানাডায় প্রতিষ্ঠিত পিয়ারলেস ট্রেনিং ইনস্টিটিউট এবং নোশান ক্রিয়েটিভ হাউজ লিমিটেড (প্রস্তাবিত-নোশান টিভি)র কর্ণধার, বাংলাদেশসহ গ্রুপ অব কোম্পানীর মালিক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক ডা: গুলশান আক্তার শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও সামাজিক উন্নয়নে রেখেছেন ব্যাপক অবদান। বৈশ্বিক করোনা সংকটের শুরু থেকেই করোনা প্রতিরোধ ও সচেতনতা বাড়াতে বাংলাদেশ এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আর্থিক সহযোগিতার পাশাপাশি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ডা: গুলশান। তার এ মহৎ কাজের পিছনে অদম্য উৎসাহ ও সহযোগিতা করে যাচ্ছেন স্বামী ইঞ্জিনিয়ার জাহিদুল আলম এবং একমাত্র সন্তান আসওয়াদ তাহসিন।

 

ডা. গুলশান প্রাক্তন আর এমসি। রংপুর মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস করেন। পরে দক্ষতার ক্যাটাগরীতে চিকিৎসা বিভাগে ২০০৯ পাড়ি জমান কানাডায়। সেখানে বিভিন্ন রেগুলেটরী পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হয়ে প্রথম সারির স্বাস্থ্য কর্মকর্তা হিসেবে সাফল্যের সাথে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। একইসঙ্গে তিনি কানাডায় অবস্থানরত বিদেশি চিকিৎসকদেরকে আলট্রাসাউন্ড এর উপর ট্রেনিং দিয়ে কানাডা এবং আমেরিকায় সেবা প্রদানের রেজিস্ট্রেসনপ্রাপ্তিতে সহায়তা করছেন।

 

তাঁর এ মনোনয়নে বাংলাদেশ এবং বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উষ্ণ অভিনন্দন জানানো হয়েছে এবং নির্বাচনে ডাঃ গুলশান আক্তারের বিজয় কামনা করেছেন বাংলাদেশ থেকে নোশান টিভির ডিরেক্টর অব অপারেশনস সিদ্ধার্থ দে।