ঢাকা ০৭:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ! Logo দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি: কালবে সর্বোচ্চ পদ দখলে রেখেছে আগস্টিন! Logo আইআইএফসি ও মার্কটেল বাংলাদেশ’র মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর Logo ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর পরিদর্শনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী Logo সর্বজনীন পেনশন প্রত্যাহারে শাবি শিক্ষক সমিতি মৌন মিছিল ও কালোব্যাজ ধারণ Logo শাবিপ্রবিতে কুমিল্লা স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত Logo শাবিপ্রবি কেন্দ্রে সুষ্ঠভাবে গুচ্ছভর্তির তিন ইউনিটের পরীক্ষা সম্পন্ন




করোনা ছোবলে পৃথিবীজুড়ে মৃত্যুর মিছিল, মানব গোষ্ঠীর অনুভব _ এইচ আর শফিক

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১৯:০২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ ১২৫ বার পড়া হয়েছে

করোনা ভাইরাস! এই মুহূর্তে পৃথিবীর সবচেয়ে আতঙ্ক ও মৃত্যুদূতের নাম। যে শক্তিশালী ভাইরাস পৃথিবীর কোন শক্তি বা শক্তিশালী ব্যক্তি পরোয়া করেনা। চীনের উহান থেকে শুরু করেছে তার মৃত্যুলীলা। যত দিন যাচ্ছে এই মহামারী ভাইরাস পুরো পৃথিবীটাকে ততই মৃত্যুপুরী আর আতঙ্কে পরিণত করছে। বৃটেনের রানী সংক্রমণ আতঙ্কে আছেন হোম কয়ারেইন্টেনে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর শরীরের ধরা পড়েছে করোনা সংক্রমণ। এছাড়াও পৃথিবীর অনেক শক্তিশালী ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছে এই মরণব্যাধি ভাইরাসে। আপনার যত শক্তি ই থাক না কেন পরাজিত হবেন এই ভাইরাস নামক মৃত্যু দূতের সংক্রমণে।

যুগে যুগে পৃথিবীতে অসংখ্য দুর্যোগ, মহামারী, সংক্রমণ ভাইরাস মৃত্যু দূতের আগমন ঘটেছে। সময়ের সাথে সে সকল দুর্যোগ মহামারী জয় করেছে মানবকূল। কিন্তু পৃথিবীতে এ পর্যন্ত সবচেয়ে ভয়ঙ্কর মহামারী সংক্রামক ব্যাধির নাম করোনাভাইরাস।
পৃথিবীর ইতিহাসে প্রতিটি মহামারী ও দুর্যোগের পরে পৃথিবী ঘুরে দাঁড়িয়েছে। প্রতিবার পৃথিবীর মানুষ শিখেছে নতুন কিছু। মানব জীবন ধারায় যুক্ত হয়েছে নতুন সভ্যতা। ঘটেছে নতুন নতুন আবিষ্কার। পৃথিবীর জনপদে দিনকে দিন রূপ পেয়েছে সচেতন জীবনধারার।
হয়তো পৃথিবীর মানব গোষ্ঠীর পাপাচার, সীমাহীন সীমালংঘন, শ্রেষ্ঠ মানব হয়েও অমানবিক হয়ে ওঠা সব পাপের পরিনাম হিসেবে মহান সৃষ্টিকর্তার ক্রোধে মানব গোষ্ঠীর ওপর মৃত্যুদূত হিসেবে পৃথিবীতে এসেছে এসব মুসিবত ব্যাধি ও মহামারী।
পৃথিবীর যে কোন বিপর্যয় মানবজীবনে যেকোনো দুর্যোগে। সে হোক মুসলিম, হোক হিন্দু, হোক বা খ্রিষ্টান, প্রতিটা মানুষের উচিত তার সৃষ্টিকর্তার প্রতি মস্তক অবনত করা। উচিত নিজেদের কৃতকর্ম পাপাচারের জন্য তওবা করা উচিত। সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টি অপরূপ পৃথিবী আকাশ উজ্জ্বল গ্রহ_নক্ষত্র, তার থেকেও অপরূপ শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি মানবকুল। আর এই শ্রেষ্ঠ মানবকুলের সকল পাপাচার মহান সৃষ্টিকর্তা অবশ্যই ক্ষমা করবেন বলে দৃঢ় বিশ্বাস করি।
মহান সৃষ্টিকর্তার দয়ার শেষ নেই। তার রহমত ও দয়ার অন্ত নেই। তিনি তার প্রিয় ও শ্রেষ্ঠ সৃষ্টিকূল কে রক্ষা করবেন ইনশাআল্লাহ। পৃথিবীর মানুষ যতই পাপাচার ও গুনাহ্ করুক না কেনো তার থেকেও মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর দয়ার পরিমাণ অনেক বেশি।
এই মৃত্যু লীলা, মহামারী, এই আতঙ্ক পেরিয়ে মানব গোষ্ঠী আবারও ঘুরে দাঁড়াবে। পৃথিবী আবারো আগের মত নতুন কিছু সভ্যতা শিখবে। মানব জীবনে ফিরে আসবে নতুন সভ্যতা।

লেখক:  হাফিজুর রহমান শফিক _(গণমাধ্যমকর্মী)

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




করোনা ছোবলে পৃথিবীজুড়ে মৃত্যুর মিছিল, মানব গোষ্ঠীর অনুভব _ এইচ আর শফিক

আপডেট সময় : ১২:১৯:০২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০

করোনা ভাইরাস! এই মুহূর্তে পৃথিবীর সবচেয়ে আতঙ্ক ও মৃত্যুদূতের নাম। যে শক্তিশালী ভাইরাস পৃথিবীর কোন শক্তি বা শক্তিশালী ব্যক্তি পরোয়া করেনা। চীনের উহান থেকে শুরু করেছে তার মৃত্যুলীলা। যত দিন যাচ্ছে এই মহামারী ভাইরাস পুরো পৃথিবীটাকে ততই মৃত্যুপুরী আর আতঙ্কে পরিণত করছে। বৃটেনের রানী সংক্রমণ আতঙ্কে আছেন হোম কয়ারেইন্টেনে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর শরীরের ধরা পড়েছে করোনা সংক্রমণ। এছাড়াও পৃথিবীর অনেক শক্তিশালী ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছে এই মরণব্যাধি ভাইরাসে। আপনার যত শক্তি ই থাক না কেন পরাজিত হবেন এই ভাইরাস নামক মৃত্যু দূতের সংক্রমণে।

যুগে যুগে পৃথিবীতে অসংখ্য দুর্যোগ, মহামারী, সংক্রমণ ভাইরাস মৃত্যু দূতের আগমন ঘটেছে। সময়ের সাথে সে সকল দুর্যোগ মহামারী জয় করেছে মানবকূল। কিন্তু পৃথিবীতে এ পর্যন্ত সবচেয়ে ভয়ঙ্কর মহামারী সংক্রামক ব্যাধির নাম করোনাভাইরাস।
পৃথিবীর ইতিহাসে প্রতিটি মহামারী ও দুর্যোগের পরে পৃথিবী ঘুরে দাঁড়িয়েছে। প্রতিবার পৃথিবীর মানুষ শিখেছে নতুন কিছু। মানব জীবন ধারায় যুক্ত হয়েছে নতুন সভ্যতা। ঘটেছে নতুন নতুন আবিষ্কার। পৃথিবীর জনপদে দিনকে দিন রূপ পেয়েছে সচেতন জীবনধারার।
হয়তো পৃথিবীর মানব গোষ্ঠীর পাপাচার, সীমাহীন সীমালংঘন, শ্রেষ্ঠ মানব হয়েও অমানবিক হয়ে ওঠা সব পাপের পরিনাম হিসেবে মহান সৃষ্টিকর্তার ক্রোধে মানব গোষ্ঠীর ওপর মৃত্যুদূত হিসেবে পৃথিবীতে এসেছে এসব মুসিবত ব্যাধি ও মহামারী।
পৃথিবীর যে কোন বিপর্যয় মানবজীবনে যেকোনো দুর্যোগে। সে হোক মুসলিম, হোক হিন্দু, হোক বা খ্রিষ্টান, প্রতিটা মানুষের উচিত তার সৃষ্টিকর্তার প্রতি মস্তক অবনত করা। উচিত নিজেদের কৃতকর্ম পাপাচারের জন্য তওবা করা উচিত। সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টি অপরূপ পৃথিবী আকাশ উজ্জ্বল গ্রহ_নক্ষত্র, তার থেকেও অপরূপ শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি মানবকুল। আর এই শ্রেষ্ঠ মানবকুলের সকল পাপাচার মহান সৃষ্টিকর্তা অবশ্যই ক্ষমা করবেন বলে দৃঢ় বিশ্বাস করি।
মহান সৃষ্টিকর্তার দয়ার শেষ নেই। তার রহমত ও দয়ার অন্ত নেই। তিনি তার প্রিয় ও শ্রেষ্ঠ সৃষ্টিকূল কে রক্ষা করবেন ইনশাআল্লাহ। পৃথিবীর মানুষ যতই পাপাচার ও গুনাহ্ করুক না কেনো তার থেকেও মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর দয়ার পরিমাণ অনেক বেশি।
এই মৃত্যু লীলা, মহামারী, এই আতঙ্ক পেরিয়ে মানব গোষ্ঠী আবারও ঘুরে দাঁড়াবে। পৃথিবী আবারো আগের মত নতুন কিছু সভ্যতা শিখবে। মানব জীবনে ফিরে আসবে নতুন সভ্যতা।

লেখক:  হাফিজুর রহমান শফিক _(গণমাধ্যমকর্মী)