• ১৬ই এপ্রিল ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা বৈশাখ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কয়েক কোটি টাকা নিয়ে উধাও বাকেরগঞ্জের বন্ধন রফিক!

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯, ২৩:৫১ অপরাহ্ণ
কয়েক কোটি টাকা নিয়ে উধাও বাকেরগঞ্জের বন্ধন রফিক!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলায় বন্ধন সমিতির নামে দেড়-দুই কোটি টাকা নিয়ে মসজিদের সভাপতি রফিকুল ইসলাম খান উধাও। এতে সহস্রাধিক জনগন অসহায় হয়ে পরেছে। এ নিয়ে ওই এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

অভিযােগ সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ উপজেলার কামারখালি বাজার এবং চরামদ্দি বাজার এলাকায় বন্ধন সমিতির দুইটি শাখা ছিলাে। এই সমিতির প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম খান সহস্রাধিক জনগনের দেড়-দুই কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়ে গেছে। গরিব দুঃখি মেহনতি মানুষের কষ্টে সঞ্চিত অর্থ জমা ছিল বন্ধন সমিতিতে। রফিকুল ইসলাম খান অনেকের কাছ থেকে বেশি লাভের প্রলভন দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নিতাে। সে একলক্ষ টাকায়। প্রতি মাসে ১৫শ টাকা লাভ দিতাে, তখন গ্রাহক বেশি লাভের আশায় ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বন্ধন সমিতিতে জমা করেছিলাে। হঠাৎ করে বন্ধন সমিতির অফিসে তালা ঝুলছে এবং রফিকুল ইসলামের ফোন বন্ধ। এতে গ্রাহকদের মনে সন্দিহান দেখা দিয়েছে যে ভবিষ্যতে তারা টাকা পাবে কিনা।

সূত্র জানায় রফিকুল ইসলাম খান অতীতে আশা সমিতিতে মাঠকর্মী হিসেবে চাকুরী করত। পরে তিনি চাকুরী ছেড়ে এসে বন্ধন সমিতি প্রতিষ্ঠা করেন রফিকুল। ইসলাম মীরমদন হামিদীয়া জামে মসজিদের সভাপতি, স্থানীয় জনগনের প্রশ্ন একজন সুদী ব্যবসায়ী, প্রতারক ও দুর্নীতিবাজ কি করে মসজিদ কমিটির সভাপতি হয়? সে চরামদ্দি ও দাড়িয়াল ইউনিয়নের অসংখ্য পরিবারকে নিঃস্ব করে দিয়েছে।

এ বিষিয়ে মীরমদন হামিদীয়া জামে মসজিদের সেক্রেটারী মােঃ নুরু সিকদারের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এমএ জব্বার বাবুল সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আমরা গ্রাহকদের টাকা উদ্ধারে কাজ করে করে যাচ্ছি।

এ ব্যাপারে বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, অভিযােগ পেলে প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে গ্রাহকগন দ্রুত প্রশাসনের সহযােগিতা কামনা করছে যেনাে রফিকুল ইসলাম খানকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেওয়া হয়।