ঢাকা ০৯:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




লক্ষ্মীপুরে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে রাতভর গণধর্ষণ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৫২:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৫ বার পড়া হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মামার বাড়িতে যাওয়ার সময় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে পরিত্যক্ত বাড়িতে আটকে রেখে রাতভর গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার উপজেলার চরবংশী ইউনিয়নের চরবংশী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রীর পরিবার ও পুলিশ জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রী তার মামার বাড়িতে যাচ্ছিল। পথে মেঘনা বাজার এলাকা থেকে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায় চরইন্দুরিয়া গ্রামের বখাটে যুবক রাজিব, রাকিব ও রিদয়। তারা পার্শ্ববর্তী একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে আটকে রেখে ওই ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ছাত্রীটি অচেতন হয়ে পড়লে তার হাত-পা বেঁধে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা।

পরে শনিবার রাতে স্থানীয়রা ওই বাড়িতে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তাকে দেখতে পায়। পরিচয় নিশ্চিত হয়ে ওই ছাত্রীর অভিভাবকদের খবর দেয়া হলে পরিবারের সদস্যরা গিয়ে তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তোতা মিয়া বলেন, গণধর্ষণের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আগামীকাল সোমবার সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




error: Content is protected !!

লক্ষ্মীপুরে স্কুলছাত্রীকে অপহরণ করে রাতভর গণধর্ষণ

আপডেট সময় : ০৯:৫২:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জেলা প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে মামার বাড়িতে যাওয়ার সময় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে পরিত্যক্ত বাড়িতে আটকে রেখে রাতভর গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার উপজেলার চরবংশী ইউনিয়নের চরবংশী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রীর পরিবার ও পুলিশ জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রী তার মামার বাড়িতে যাচ্ছিল। পথে মেঘনা বাজার এলাকা থেকে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যায় চরইন্দুরিয়া গ্রামের বখাটে যুবক রাজিব, রাকিব ও রিদয়। তারা পার্শ্ববর্তী একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে আটকে রেখে ওই ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ছাত্রীটি অচেতন হয়ে পড়লে তার হাত-পা বেঁধে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় ধর্ষকরা।

পরে শনিবার রাতে স্থানীয়রা ওই বাড়িতে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় তাকে দেখতে পায়। পরিচয় নিশ্চিত হয়ে ওই ছাত্রীর অভিভাবকদের খবর দেয়া হলে পরিবারের সদস্যরা গিয়ে তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তোতা মিয়া বলেন, গণধর্ষণের ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আগামীকাল সোমবার সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।