ঢাকা ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo ঐতিহ্যবাহী সোহরাওয়ার্দী কলেজ সাংবাদিক সমিতির কমিটি গঠন Logo চেয়ারম্যানের আহ্লাদে বেপরোয়া বিআইডব্লিউটিএ‘র কর্মচারি পান্না বিশ্বাস! Logo রাজউকে বদলী ও পদায়নে ভয়ংকর দুর্নীতি ফাঁস: নেপথ্য নায়ক প্রধান প্রকৌশলী  Logo কুবির শেখ হাসিনা হলের গ্যাস লিক, আতঙ্কে শিক্ষার্থীরা Logo ইন্টার্ন চিকিৎসকের হাত-পা ভেঙে দিলেন সহকর্মীরা Logo ঐতিহ্যবাহী শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে অফিসার্স কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত  Logo একজন মমতাময়ী মায়ের উদাহরণ শাবির প্রাধ্যক্ষ জোবেদা কনক Logo বাংলা বিভাগের নতুন চেয়ারম্যান ড. শামসুজ্জামান মিলকী Logo মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি শিক্ষার্থীদের দক্ষ জনশক্তি ও উদ্যোক্তা তৈরীতে ভূমিকা রাখবেঃ ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ জহিরুল হক  Logo কুবিতে প্রক্টরের সামনে সহকারী প্রক্টরকে মারতে তেড়ে গেলেন ২ নেতা




ঢাকার আইডিবিতে শুরু হলো সিটি আইটি মেগা ফেয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় : ০১:১৪:৩৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২২ ৬৭ বার পড়া হয়েছে

বিসিএস কম্পিউটার সিটি (আইডিবি) এর আয়োজনে শুরু হয়েছে দেশের বৃহত্তম কম্পিউটার ও ল্যাপটপ মেলা ‘সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২’।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) থেকে রাজধানীর আগারগাঁও এর আইডিবি ভবনে অবস্থিত বিসিএস কম্পিউটার সিটিতে শুরু হওয়া ১০ দিনব্যাপী মেলা সন্ধ্যায় উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ‘প্রযুক্তির সোপানে উৎকর্ষের শীর্ষে’ স্লোগানে মেলা চলবে আগামী ৭ জানুয়ারি ২০২৩ পর্যন্ত।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আবদুল্লাহ এইচ কাফি, সম্মানীয় আজীবন চেয়ারম্যান, এওয়ার্ড কমিটি, এসোসিও, ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, সভাপতি, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি, জসীম উদ্দিন খোন্দকার, পরিচালক, গ্লোবাল ব্র্যান্ড প্রাইভেট লিমিটেড, আহমেদ হাসান জুয়েল, প্রথম সভাপতি, বিসিএস কম্পিউটার সিটি, আইডিবি, মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, সেক্রেটারি জেনারেল, বিসিএস কম্পিউটার সিটি এবং মোহাম্মদ জাহেদ আলী ভূঁইয়া, আহবায়ক, সিটিআইটি মেগা ফেয়ার ২০২২। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বিসিএস কম্পিউটার সিটির প্রেসিডেন্ট এ এল মজহার ইমাম চৌধুরী (পিনু চৌধুরী)।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, নতুন প্রজম্মের জানা প্রয়োজন হুট করেই বাংলাদেশ ডিজিটাল হয়নি। এর জন্য নানা চড়াই-উৎড়াই পার করতে হয়েছে। এই ডিজিটাল বাংলাদেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ আইডিবি ভবন। আর এই কম্পিউটার সিটি কোনো কালেই দূর্বল ছিল না, এখনও নেই। অন্য যেকোনো মার্কেটের চেয়ে এই মার্কেট বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কারণ দেশে এই একটি মার্কেট যেখানে পারিবারিক পরিবেশে সবাই কেনাকাটা করতে পারে।

তিনি আরো বলেন, কম্পিউটার ইন্ডাস্ট্রির জন্য যা যা প্রয়োজন তা আজীবন করে যাবো। মেট্রোরেল চালুর আগে বেশ কঠিন সময় পার করেছে আইডিবি। মেট্রোরেল চালুর পার এবার বন্দীদশা থেকে বের হয়েছে, এটি কিন্তু খুশির সংবাদ। আর এই আনন্দের মাঝে এই রকম সেলিব্রেশন দরকার ছিল। মেলার আয়োজন একটি সঠিক সিদ্ধান্ত বলে মনে করছি। এছাড়া মেলায় প্যাভিলিয়ন, স্টল তৈরির মাধ্যমে এখানে অন্য একধরনের আমেজ তৈরি হয়েছে। একটি কথা বলে শেষ করতে চাই, বাংলাদেশ ডিজিটালকরণে আমরা সব সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছি; স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তেও আমরা যোদ্ধা হিসেবে কাজ করে যাবো।

বিসিএস কম্পিউটার সিটির প্রেসিডেন্ট এ এল মজহার ইমাম চৌধুরী (পিনু চৌধুরী) বলেন, আইডিবির মেলা আমাদের প্রাণের মেলা। ১০ দিন ব্যাপী এই মেলাতে মার্কেটজুড়েই থাকবে সকল দোকানে অফার-ছাড়-ডিসকাউন্ট। এছাড়া যারা প্যাভিলন, স্টল দিয়েছে ক্রেতারা তাদের কাছে মেলায় বিশেষ সুবিধা পাবে। মেট্রোরেল চালুর পরদিনই আমরা মেলা শুরু করলাম, আশা করছি সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২ সাড়া ফেলবে।

সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২ এর আহবায়ক মোহাম্মদ জাহেদ আলী ভূঁইয়া বলেন, আজ বৃহস্পতিবার উদ্বোধনের মাধ্যমে শুরু হলো সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২। দেশের বৃহত্তম কম্পিউটার ও ল্যাপটপ মেলাতে অংশ নেয়া সকল ব্র্যান্ড এবং স্পন্সরসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। কেনাকাটা এবং মেলা ঘুরে দেখতে আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত সকলকে আইডিবি ভবনে আসার জন্য অনুরোধ করছি।

সিটি আইটি মেগা ফেয়ার সম্পর্কে আয়োজকরা জানান, এবারের ‘সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২’ মেলায় স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের ৬টির (আসুস, ডেল, গিগাবাইট, এইচপি, লেনেভো এবং লজিটেক) প্যাভিলন রয়েছে। মেলায় স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের প্যাভিলন ছাড়াও পার্টিসিপেন্ট হিসেবে স্টলে রয়েছে ইন্টারনেট সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান স্টারগেট কমিউনিকেশন লিমিটেড, সিকিউরিটি ডিভাইস শিমো, কন্সালটেন্সি ফার্ম এএইচজেড অ্যাসোসিয়েট এবং বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থার বিশ্বমানের দোয়েল ল্যাপটপ। মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে এমএসআই এর সৌজন্যে গেমিং কম্পিটিশন, এক্সপি-পেন এর সৌজন্যে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, টেন্ডা রাউটার সৌজন্যে ফটোগ্রফি কম্পিটিশন।

এছাড়া মেলা উপলক্ষ্যে মার্কেটজুড়েই থাকবে নানা ধরনের অফার-ছাড়, ডিসকাউন্ট। যারা স্পন্সর তারা ক্রেতাদের বাড়তি সুবিধা দিচ্ছে। ১০ দিন ধরে চলবে এই আয়োজন। আয়োজন সফল করতে আয়োজকরা সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করেছে। তবে এবারের মেলায় শিক্ষার্থীরা প্রাধাণ্য পাচ্ছে। এছাড়া মেলায় রয়েছে ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের জন্য গেমিং প্রতিযোগিতা, বেস্ট পিসি বিল্ডারর্স প্রতিযোগিতা, র‌্যাফেল ড্রসহ আরো অনেক আয়োজন।

‘মেট্রোরেলের গতিতে কেনাকাটা হবে তুড়িতে’ বিষয়টি মাথায় রেখে মেলা চলাকালীন সময়ে ক্রেতাদের জন্য রয়েছে সকল পণ্যের উপর আকর্ষণীয় মূল্যছাড় ও পুরস্কার। এছাড়া দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে র‌্যাফেল ড্র এর মাধ্যমে আকর্ষণীয় পুরষ্কার জেতার সুযোগ। আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া ‘সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২’ প্রতিদিন সকাল ১০টায় থেকে শুরু হয়ে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য মেলা প্রাঙণ খোলা থাকবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিসিএস কম্পিউটার সিটির সদস্য, ব্যবসায়ীবৃন্দ এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমের সম্মানিত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ঢাকার আইডিবিতে শুরু হলো সিটি আইটি মেগা ফেয়ার

আপডেট সময় : ০১:১৪:৩৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২২

বিসিএস কম্পিউটার সিটি (আইডিবি) এর আয়োজনে শুরু হয়েছে দেশের বৃহত্তম কম্পিউটার ও ল্যাপটপ মেলা ‘সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২’।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) থেকে রাজধানীর আগারগাঁও এর আইডিবি ভবনে অবস্থিত বিসিএস কম্পিউটার সিটিতে শুরু হওয়া ১০ দিনব্যাপী মেলা সন্ধ্যায় উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ‘প্রযুক্তির সোপানে উৎকর্ষের শীর্ষে’ স্লোগানে মেলা চলবে আগামী ৭ জানুয়ারি ২০২৩ পর্যন্ত।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আবদুল্লাহ এইচ কাফি, সম্মানীয় আজীবন চেয়ারম্যান, এওয়ার্ড কমিটি, এসোসিও, ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, সভাপতি, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি, জসীম উদ্দিন খোন্দকার, পরিচালক, গ্লোবাল ব্র্যান্ড প্রাইভেট লিমিটেড, আহমেদ হাসান জুয়েল, প্রথম সভাপতি, বিসিএস কম্পিউটার সিটি, আইডিবি, মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান, সেক্রেটারি জেনারেল, বিসিএস কম্পিউটার সিটি এবং মোহাম্মদ জাহেদ আলী ভূঁইয়া, আহবায়ক, সিটিআইটি মেগা ফেয়ার ২০২২। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বিসিএস কম্পিউটার সিটির প্রেসিডেন্ট এ এল মজহার ইমাম চৌধুরী (পিনু চৌধুরী)।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, নতুন প্রজম্মের জানা প্রয়োজন হুট করেই বাংলাদেশ ডিজিটাল হয়নি। এর জন্য নানা চড়াই-উৎড়াই পার করতে হয়েছে। এই ডিজিটাল বাংলাদেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ আইডিবি ভবন। আর এই কম্পিউটার সিটি কোনো কালেই দূর্বল ছিল না, এখনও নেই। অন্য যেকোনো মার্কেটের চেয়ে এই মার্কেট বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। কারণ দেশে এই একটি মার্কেট যেখানে পারিবারিক পরিবেশে সবাই কেনাকাটা করতে পারে।

তিনি আরো বলেন, কম্পিউটার ইন্ডাস্ট্রির জন্য যা যা প্রয়োজন তা আজীবন করে যাবো। মেট্রোরেল চালুর আগে বেশ কঠিন সময় পার করেছে আইডিবি। মেট্রোরেল চালুর পার এবার বন্দীদশা থেকে বের হয়েছে, এটি কিন্তু খুশির সংবাদ। আর এই আনন্দের মাঝে এই রকম সেলিব্রেশন দরকার ছিল। মেলার আয়োজন একটি সঠিক সিদ্ধান্ত বলে মনে করছি। এছাড়া মেলায় প্যাভিলিয়ন, স্টল তৈরির মাধ্যমে এখানে অন্য একধরনের আমেজ তৈরি হয়েছে। একটি কথা বলে শেষ করতে চাই, বাংলাদেশ ডিজিটালকরণে আমরা সব সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছি; স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তেও আমরা যোদ্ধা হিসেবে কাজ করে যাবো।

বিসিএস কম্পিউটার সিটির প্রেসিডেন্ট এ এল মজহার ইমাম চৌধুরী (পিনু চৌধুরী) বলেন, আইডিবির মেলা আমাদের প্রাণের মেলা। ১০ দিন ব্যাপী এই মেলাতে মার্কেটজুড়েই থাকবে সকল দোকানে অফার-ছাড়-ডিসকাউন্ট। এছাড়া যারা প্যাভিলন, স্টল দিয়েছে ক্রেতারা তাদের কাছে মেলায় বিশেষ সুবিধা পাবে। মেট্রোরেল চালুর পরদিনই আমরা মেলা শুরু করলাম, আশা করছি সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২ সাড়া ফেলবে।

সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২ এর আহবায়ক মোহাম্মদ জাহেদ আলী ভূঁইয়া বলেন, আজ বৃহস্পতিবার উদ্বোধনের মাধ্যমে শুরু হলো সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২। দেশের বৃহত্তম কম্পিউটার ও ল্যাপটপ মেলাতে অংশ নেয়া সকল ব্র্যান্ড এবং স্পন্সরসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। কেনাকাটা এবং মেলা ঘুরে দেখতে আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত সকলকে আইডিবি ভবনে আসার জন্য অনুরোধ করছি।

সিটি আইটি মেগা ফেয়ার সম্পর্কে আয়োজকরা জানান, এবারের ‘সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২’ মেলায় স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের ৬টির (আসুস, ডেল, গিগাবাইট, এইচপি, লেনেভো এবং লজিটেক) প্যাভিলন রয়েছে। মেলায় স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের প্যাভিলন ছাড়াও পার্টিসিপেন্ট হিসেবে স্টলে রয়েছে ইন্টারনেট সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান স্টারগেট কমিউনিকেশন লিমিটেড, সিকিউরিটি ডিভাইস শিমো, কন্সালটেন্সি ফার্ম এএইচজেড অ্যাসোসিয়েট এবং বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থার বিশ্বমানের দোয়েল ল্যাপটপ। মেলায় দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে এমএসআই এর সৌজন্যে গেমিং কম্পিটিশন, এক্সপি-পেন এর সৌজন্যে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, টেন্ডা রাউটার সৌজন্যে ফটোগ্রফি কম্পিটিশন।

এছাড়া মেলা উপলক্ষ্যে মার্কেটজুড়েই থাকবে নানা ধরনের অফার-ছাড়, ডিসকাউন্ট। যারা স্পন্সর তারা ক্রেতাদের বাড়তি সুবিধা দিচ্ছে। ১০ দিন ধরে চলবে এই আয়োজন। আয়োজন সফল করতে আয়োজকরা সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করেছে। তবে এবারের মেলায় শিক্ষার্থীরা প্রাধাণ্য পাচ্ছে। এছাড়া মেলায় রয়েছে ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের জন্য গেমিং প্রতিযোগিতা, বেস্ট পিসি বিল্ডারর্স প্রতিযোগিতা, র‌্যাফেল ড্রসহ আরো অনেক আয়োজন।

‘মেট্রোরেলের গতিতে কেনাকাটা হবে তুড়িতে’ বিষয়টি মাথায় রেখে মেলা চলাকালীন সময়ে ক্রেতাদের জন্য রয়েছে সকল পণ্যের উপর আকর্ষণীয় মূল্যছাড় ও পুরস্কার। এছাড়া দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে র‌্যাফেল ড্র এর মাধ্যমে আকর্ষণীয় পুরষ্কার জেতার সুযোগ। আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া ‘সিটি আইটি মেগা ফেয়ার ২০২২’ প্রতিদিন সকাল ১০টায় থেকে শুরু হয়ে রাত ৮টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য মেলা প্রাঙণ খোলা থাকবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিসিএস কম্পিউটার সিটির সদস্য, ব্যবসায়ীবৃন্দ এবং বিভিন্ন গণমাধ্যমের সম্মানিত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।