ক্রিকেটারদের জন্য আইসিসির নতুন গাইডলাইন

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৪৪ অপরাহ্ণ, ২৩ মে ২০২০

স্পোর্টস ডেস্ক;  করোনা পরবর্তী ক্রিকেট নিয়ে আগামী ২৯ মে বড় বড় সব নির্দেশনা আসতে চলেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার (আইসিসি) বোর্ড সভায়। বাইশ গজে বল গড়ানোর আগে একগুচ্ছ গাইডলাইন ঘোষণা করা হয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার পক্ষ থেকে।

বিশ্বজুড়ে ক্রিকেট নতুন করে শুরু করতে বিস্তৃত গাইডলাইন দিয়েছে আইসিসি। যা কঠোরভাবে মেনে চলতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আইসিসি বলছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে প্রতিটি দলের জন্য চিফ মেডিকেল অফিসার নিয়োগ করতে হবে। অনুশীলন বা ম্যাচে বায়োসফটি স্কিম বাস্তবায়নের দায়িত্বে থাকবেন তারা।

গাইডলাইনে বিদেশ সফরের সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য চাটার্ড ফ্লাইটের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বলা হয়েছে, ম্যাচের আগে আলাদা প্রস্তুতি ক্যাম্প, স্বাস্থ্য, তাপমাত্রা পরীক্ষা এবং কোভিড -নাইনটির পরীক্ষা করার প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনা করুন। ভ্রমণের কমপক্ষে ১৪ দিন আগে নিশ্চিত করুন যে দলটি করোনা মুক্ত।

বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থার গাইডলাইন অনুযায়ী, খেলোয়াড়রা নিজেদের ব্যক্তিগত জিনিস যেমন ক্যাপ, তোয়ালে, সানগ্লাস, জাম্পার ইত্যাদি আম্পায়ার বা সতীর্থদের হাতে হস্তান্তর করতে পারবেন না। অবশ্যই তাদের শারীরিক দূরত্বও বজায় রাখতে হবে।

তবে খেলোয়াড়দের জিনিসপত্র কে রাখবে তা এখনও অস্পষ্ট। শুধু তাই নয়, বল ধরার সময় আম্পায়ারদেরও গ্লাভস ব্যবহার করতে হবে। খেলোয়াড়রা তাদের ক্যাপ এবং সানগ্লাস মাঠে রাখতে পারবেন না কারণ এটি হেলমেটের মতো পেনাল্টি রান যোগ করতে পারে।
আইসিসি চায় খেলোয়াড়রা ম্যাচের আগে এবং পরে ড্রেসিংরুমে কম সময় ব্যয় করবে। এরই মধ্যে আইসিসির ক্রিকেট কমিটি বলে থুতু নিষিদ্ধ করার ওপর নিষেধাজ্ঞার সুপারিশ করেছে। এখন খেলোয়াড়দের বল স্পর্শ করার পরে চোখ, নাক এবং মুখ স্পর্শ না করার এবং বলের সংস্পর্শে আসার পরে তাদের হাত পরিষ্কার করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এমনকি খেলোয়াড়দের সমস্যা বাড়তে পারে কারণ অনুশীলনের সময় তাদের টয়লেট ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হবে না।

আপনার মতামত লিখুন :