ঢাকা ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




বনের ভেতর গলায় ওড়না পেঁচানো নারীর লাশ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৩৬:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০১৯ ৮৩ বার পড়া হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল;

টাঙ্গাইলের সখীপুরে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় অজ্ঞাত পরিচয় এক নারীর (৩০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নের নয়াপাড়া পশ্চিম আমবাগ এলাকায় সামাজিক বনায়নের ভেতর থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে সখীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, দুপুরে স্থানীয়রা একটি সামাজিক বনায়নের ভেতর গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ওই নারীর মরদেহ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

তিনি আরও বলেন, ওই নারীর পরনে কালো রংয়ের বোরকা ও থ্রিপিছ ছিল। দুর্বৃত্তরা তাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছে। আসামিদের গ্রেফতার করতে কাজ করছে পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বনের ভেতর গলায় ওড়না পেঁচানো নারীর লাশ

আপডেট সময় : ০৯:৩৬:১৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০১৯

জেলা প্রতিনিধি টাঙ্গাইল;

টাঙ্গাইলের সখীপুরে গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় অজ্ঞাত পরিচয় এক নারীর (৩০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নের নয়াপাড়া পশ্চিম আমবাগ এলাকায় সামাজিক বনায়নের ভেতর থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে সখীপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, দুপুরে স্থানীয়রা একটি সামাজিক বনায়নের ভেতর গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ওই নারীর মরদেহ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

তিনি আরও বলেন, ওই নারীর পরনে কালো রংয়ের বোরকা ও থ্রিপিছ ছিল। দুর্বৃত্তরা তাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছে। আসামিদের গ্রেফতার করতে কাজ করছে পুলিশ।