ঢাকা ০৪:৫৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




নোয়াখালীতে নির্বাচন নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৫৮:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০১৯ ১৬ বার পড়া হয়েছে

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের উভয় গ্রুপের চারজন গুলিবিদ্ধসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

এ সময় গোলাগুলি ছাড়াও ১৫-২০টি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় থেকে ঘণ্টাব্যাপী উপজেলার কবিরহাট বাজারে মিছিলে দু’গ্রুপ মিছিল নিয়ে মুখোমুখী হলে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- ইকবাল হোসেন (৪২), ইব্রাহিম খলিল (৪০), জয়নাল আবদিন (৩৫), বোবা মুন্সি (৩০) এবং গুরুতর আহতরা হলেন- মো. হাসান (১৮), রয়েল (৩২) ও শরীফ (২৯)। অজ্ঞাতনা আহত আরও কয়েকজনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালেসহ মাইজদীর বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুন নাহার শিউলী ও বিদ্রোহী প্রার্থী খাদেমা আক্তারের কর্মীদের মধ্যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই সংঘর্ষ হয়।

পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে এসে কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কবিরহাট থানার ওসি মির্জা মো. হাসান জানান, দু’গ্রুপের মিছিল মুখোমুখি হলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে খবর পেয়েছি। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মাতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




নোয়াখালীতে নির্বাচন নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধসহ আহত ১০

আপডেট সময় : ১১:৫৮:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০১৯

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের উভয় গ্রুপের চারজন গুলিবিদ্ধসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

এ সময় গোলাগুলি ছাড়াও ১৫-২০টি ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় থেকে ঘণ্টাব্যাপী উপজেলার কবিরহাট বাজারে মিছিলে দু’গ্রুপ মিছিল নিয়ে মুখোমুখী হলে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধরা হলেন- ইকবাল হোসেন (৪২), ইব্রাহিম খলিল (৪০), জয়নাল আবদিন (৩৫), বোবা মুন্সি (৩০) এবং গুরুতর আহতরা হলেন- মো. হাসান (১৮), রয়েল (৩২) ও শরীফ (২৯)। অজ্ঞাতনা আহত আরও কয়েকজনকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালেসহ মাইজদীর বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুন নাহার শিউলী ও বিদ্রোহী প্রার্থী খাদেমা আক্তারের কর্মীদের মধ্যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ওই সংঘর্ষ হয়।

পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে এসে কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

কবিরহাট থানার ওসি মির্জা মো. হাসান জানান, দু’গ্রুপের মিছিল মুখোমুখি হলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে খবর পেয়েছি। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মাতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।