ঢাকা ০৯:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




জোটের প্রার্থী টিপুর পাশে নেই আ’লীগ, স্বতন্ত্র বড় চ্যালেঞ্জ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:২৪:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৯৭ বার পড়া হয়েছে

নুরে আলম, বাবুগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি: জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিএনপি ছাড়াই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৩ (বাবুগঞ্জ-মুলাদী) আসনে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু ১৪ দলীয় জোটের প্রার্থী হয়ে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে করছেন।

তবে জয়ের ব্যাপারে তার রয়েছে বড় ২ টি চ্যালেঞ্জ। একটি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের প্রকাশ্যে বিরোধিতা এবং অন্যটি স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমানকে নিয়ে।

জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু নির্বাচিত হয়েই বিভিন্ন সময়ে সরকার ও আ’লীগের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নির্বাচনের আগে গত ৪ নভেম্বর বাবুগঞ্জ উপজেলা আ’লীগ বিশেষ বর্ধিত সভা করেন। এবং প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেন ‘সরকারের বিরোধী বিভিন্ন ধরনের বিদ্বেষ ও সংবিধান পরিপন্থী উস্কানি মূলক সাম্প্রদায়িক বক্তব্য এবং আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দদের মানহানি কর বক্তব্য দেন।’ এছাড়াও গোলাম কিবরিয়া টিপুর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। এতে শোনা যায়, তিনি উপজেলা আ’লীগকে উদ্দেশ্য করে বলেন কাঁঠাল পাতা ছাগল খায় এবং বর্ধিত সভা করে নেতারা ডিমান্ড বাড়াচ্ছে। তার এসব কথায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ।

তার এমন কর্মকান্ডে নির্বাচনের শুরুতেই বাবুগঞ্জ-মুলাদী উপজেলা আ’লীগের বড় একটি অংশ স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমানের ট্রাক প্রতীকের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এতেই বড় একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমান সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপুর জয়ের ব্যাপারে। এ আসনে জাতীয় পার্টির এককভাবে নির্বাচন করে জয়ী হওয়া সম্ভব না। এদিকে নির্বাচনে ভোটের মাঠ দখলে রখেছেন আতিকুর রহমান , দিচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি।

এছাড়াও এ আসন থেকে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচনে লড়ছেন সাবেক সংসদ সদস্য ওয়ার্কার্স পার্টির বরিশাল জেলা শাখার সম্পাদক শেখ টিপু সুলতান (হাতুড়ি), স্বতন্ত্র আমিনুল হক কবির (ঈগল), তৃণমূল বিএনপির শাহানাজ হোসেন (সোনালী আঁশ) এবং সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের শরিক জাগ্রত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আজমল হোসেন জিহাদ (ছড়ি)।

আতিকুর রহমান ‘আমাদের সময়’কে বলেন, ‘বর্তমান সংসদ গোলাম কিবরিয়া টিপু এ পাঁচ কোন উন্নয়ন করেনি। শুধু তার নেতাকর্মীদের পকেট ভারি করেছেন। সাধারন মানুষ ও ভোটারা তাকে চায় তারা চায় উন্নয়ন। তাই আমি উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছি এবং জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।’

গোলাম কিবরিয়া টিপু ‘আমাদের সময়’কে বলেন, ‘জনগণ আমার সাথেই আছে, আমি গত পাঁচ বছরে ৩৬০ কোটি টাকার উন্নয়ন করেছি, তাই জনগণ আমাকে ভোট দেবে। এবং আমি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবো।

জোটের প্রার্থী হিসেবে আপনি উপজেলা আ’লীগের সমর্থন পাচ্ছেন কিনা সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, দক্ষিণ বাংলার অভিভাবক আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ গত শনিবার সাংবাকিদের বলেছেন বরিশাল-৩ আসনে জাতীয় পার্টিকে দেওয়া হয়েছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষরিত চিঠিতে আমাকে জোটের প্রার্থী ঘোষনা দিয়েছেন।’

এদিকে বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামা লীগের নেতারা এবিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




জোটের প্রার্থী টিপুর পাশে নেই আ’লীগ, স্বতন্ত্র বড় চ্যালেঞ্জ

আপডেট সময় : ০৬:২৪:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩

নুরে আলম, বাবুগঞ্জ (বরিশাল) প্রতিনিধি: জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিএনপি ছাড়াই দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বরিশাল-৩ (বাবুগঞ্জ-মুলাদী) আসনে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু ১৪ দলীয় জোটের প্রার্থী হয়ে লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে করছেন।

তবে জয়ের ব্যাপারে তার রয়েছে বড় ২ টি চ্যালেঞ্জ। একটি উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের প্রকাশ্যে বিরোধিতা এবং অন্যটি স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমানকে নিয়ে।

জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে উপজেলা আওয়ামী লীগের সমর্থন নিয়ে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু নির্বাচিত হয়েই বিভিন্ন সময়ে সরকার ও আ’লীগের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে নির্বাচনের আগে গত ৪ নভেম্বর বাবুগঞ্জ উপজেলা আ’লীগ বিশেষ বর্ধিত সভা করেন। এবং প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করেন ‘সরকারের বিরোধী বিভিন্ন ধরনের বিদ্বেষ ও সংবিধান পরিপন্থী উস্কানি মূলক সাম্প্রদায়িক বক্তব্য এবং আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দদের মানহানি কর বক্তব্য দেন।’ এছাড়াও গোলাম কিবরিয়া টিপুর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। এতে শোনা যায়, তিনি উপজেলা আ’লীগকে উদ্দেশ্য করে বলেন কাঁঠাল পাতা ছাগল খায় এবং বর্ধিত সভা করে নেতারা ডিমান্ড বাড়াচ্ছে। তার এসব কথায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ।

তার এমন কর্মকান্ডে নির্বাচনের শুরুতেই বাবুগঞ্জ-মুলাদী উপজেলা আ’লীগের বড় একটি অংশ স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমানের ট্রাক প্রতীকের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এতেই বড় একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে বর্তমান সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপুর জয়ের ব্যাপারে। এ আসনে জাতীয় পার্টির এককভাবে নির্বাচন করে জয়ী হওয়া সম্ভব না। এদিকে নির্বাচনে ভোটের মাঠ দখলে রখেছেন আতিকুর রহমান , দিচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি।

এছাড়াও এ আসন থেকে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচনে লড়ছেন সাবেক সংসদ সদস্য ওয়ার্কার্স পার্টির বরিশাল জেলা শাখার সম্পাদক শেখ টিপু সুলতান (হাতুড়ি), স্বতন্ত্র আমিনুল হক কবির (ঈগল), তৃণমূল বিএনপির শাহানাজ হোসেন (সোনালী আঁশ) এবং সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের শরিক জাগ্রত বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আজমল হোসেন জিহাদ (ছড়ি)।

আতিকুর রহমান ‘আমাদের সময়’কে বলেন, ‘বর্তমান সংসদ গোলাম কিবরিয়া টিপু এ পাঁচ কোন উন্নয়ন করেনি। শুধু তার নেতাকর্মীদের পকেট ভারি করেছেন। সাধারন মানুষ ও ভোটারা তাকে চায় তারা চায় উন্নয়ন। তাই আমি উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছি এবং জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।’

গোলাম কিবরিয়া টিপু ‘আমাদের সময়’কে বলেন, ‘জনগণ আমার সাথেই আছে, আমি গত পাঁচ বছরে ৩৬০ কোটি টাকার উন্নয়ন করেছি, তাই জনগণ আমাকে ভোট দেবে। এবং আমি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবো।

জোটের প্রার্থী হিসেবে আপনি উপজেলা আ’লীগের সমর্থন পাচ্ছেন কিনা সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে বলেন, দক্ষিণ বাংলার অভিভাবক আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ গত শনিবার সাংবাকিদের বলেছেন বরিশাল-৩ আসনে জাতীয় পার্টিকে দেওয়া হয়েছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষরিত চিঠিতে আমাকে জোটের প্রার্থী ঘোষনা দিয়েছেন।’

এদিকে বাবুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামা লীগের নেতারা এবিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।