ঢাকা ০৪:৪১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




ক্যাম্পাস ও সিলেটের মহাসড়কে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের শান্তি সমাবেশ

প্রতিনিধি, সিলেট
  • আপডেট সময় : ০৬:০৩:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩ ১৩৬০ বার পড়া হয়েছে

বিএনপি-জামায়াতের ডাকা ৭২ ঘন্টা অবরোধ প্রতিহত করতে প্রথম দিন থেকে তৃতীয় দিন পর্যন্ত দফায় দফায় শান্তি মিছিল করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এরমধ্যে মঙ্গলবার শান্তিমিছিল ও সমাবেশ করে সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক খলিলুর রহমানের অনুসারী এবং বুধবার শান্তিমিছিল ও সমাবেশ করে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সহসভাপতি মামুন শাহ নেতৃত্বাধীন গ্রুপ।

বৃহস্পতিবার(০২রা নভেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, বেলা ১১ টায় শাহপরান হলের সামনে থেকে শান্তি মিছিল বের করে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন মিয়া সহ তার অনুসারীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয় ফটক হয়ে সিলেট সুনামগঞ্জ মহাসড়কে এসে শেষ হয় এবং সমাবেশে মিলিত হয়। এরপর বিকেল ৪ টায় একই স্থান হতে মিছিল বের করে সাবেক উপ দপ্তর সম্পাদক সজিবুর রহমানের অনুসারীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয় ফটক হয়ে সিলেট সুনামগঞ্জ মহাসড়কে এসে শেষ হয় এবং সমাবেশে মিলিত হয়।

সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক খলিলুর রহমান বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে জনগণের ভাগ্যন্নোয়নে কাজ করে আসছে। অথচ বিএনপি জামায়াত এসব দেখেনা। তারা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। তাদের টার্গেট একটাই, তারা চায় দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়। তাই বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশের অংশ হিসেবে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ দেশের প্রয়োজনে রাজপথে থাকবে।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সহসভাপতি মামুন শাহ বলেন, বিএনপি জামায়াত সমাবেশের নামে জ্বালাও পোড়াও করেছে। তারা পুলিশকে হত্যা করেছে। তারা ২৮ অক্টোবর বিচারপতির বাসায় হামলা করেছে। পুলিশ হাসপাতালে হামলা করেছে। যারা জ্বালাও, পোড়াও করে ক্ষমতা দখল করতে চায়। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা যেভাবে দেশ চালাচ্ছে তাতে বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়েছে, শিগগীরই আরও সামনে এগিয়ে যাবে। তাই প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে বিএনপি জামায়াতের এসব নৈরাজ্য রোধে ছাত্রলীগ সব সময় রাজপথে থাকবে।

সাবেক উপদপ্তর সম্পাদক সজিবুর রহমান বলেন, একটি কুচক্রি মহল এ দেশের স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে মদত দিয়ে দেশের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করা পায়তারা করছে। বর্তমান সরকার প্রধান দেশের তিন তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী সফল রাষ্ট্রানায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে তারা নষ্ট করতে চায়। এসব কুচক্রিমহলকে প্রতিহত করতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগ পূর্বে যেমন রাজপথে ছিল, এখনো রাজপথে আছে, থাকবে ইনশআল্লাহ। তাই জামাত-বিএনপির ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে ছাত্রলীগের সকল নেতাদের সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন মিয়া বলেন, দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে এবং আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য বিএনপি জামাত মানুষ হত্যা করে আগুন সন্ত্রাসের মাধ্যমে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। তারা ২০১৩-১৪ সালের মতো আবারও দেশে আগুন সন্ত্রাসের মাধ্যমে মানুষ পুড়িয়ে মানুষের জানমালের ক্ষতি সাধন করে চলেছে। কিন্তু শাবিপ্রবি ছাত্রলীগ দেশের স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি বিএনপি জামাতের আগুন ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড প্রতিহত করতে রাজপথে থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ক্যাম্পাস ও সিলেটের মহাসড়কে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের শান্তি সমাবেশ

আপডেট সময় : ০৬:০৩:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩

বিএনপি-জামায়াতের ডাকা ৭২ ঘন্টা অবরোধ প্রতিহত করতে প্রথম দিন থেকে তৃতীয় দিন পর্যন্ত দফায় দফায় শান্তি মিছিল করেছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(শাবিপ্রবি) ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এরমধ্যে মঙ্গলবার শান্তিমিছিল ও সমাবেশ করে সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক খলিলুর রহমানের অনুসারী এবং বুধবার শান্তিমিছিল ও সমাবেশ করে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সহসভাপতি মামুন শাহ নেতৃত্বাধীন গ্রুপ।

বৃহস্পতিবার(০২রা নভেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, বেলা ১১ টায় শাহপরান হলের সামনে থেকে শান্তি মিছিল বের করে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন মিয়া সহ তার অনুসারীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয় ফটক হয়ে সিলেট সুনামগঞ্জ মহাসড়কে এসে শেষ হয় এবং সমাবেশে মিলিত হয়। এরপর বিকেল ৪ টায় একই স্থান হতে মিছিল বের করে সাবেক উপ দপ্তর সম্পাদক সজিবুর রহমানের অনুসারীরা। মিছিলটি ক্যাম্পাসের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিশ্ববিদ্যালয় ফটক হয়ে সিলেট সুনামগঞ্জ মহাসড়কে এসে শেষ হয় এবং সমাবেশে মিলিত হয়।

সাবেক পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক খলিলুর রহমান বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে জনগণের ভাগ্যন্নোয়নে কাজ করে আসছে। অথচ বিএনপি জামায়াত এসব দেখেনা। তারা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। তাদের টার্গেট একটাই, তারা চায় দেশকে পিছিয়ে দিতে চায়। তাই বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশের অংশ হিসেবে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ দেশের প্রয়োজনে রাজপথে থাকবে।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সহসভাপতি মামুন শাহ বলেন, বিএনপি জামায়াত সমাবেশের নামে জ্বালাও পোড়াও করেছে। তারা পুলিশকে হত্যা করেছে। তারা ২৮ অক্টোবর বিচারপতির বাসায় হামলা করেছে। পুলিশ হাসপাতালে হামলা করেছে। যারা জ্বালাও, পোড়াও করে ক্ষমতা দখল করতে চায়। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা যেভাবে দেশ চালাচ্ছে তাতে বাংলাদেশ যেভাবে এগিয়েছে, শিগগীরই আরও সামনে এগিয়ে যাবে। তাই প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে বিএনপি জামায়াতের এসব নৈরাজ্য রোধে ছাত্রলীগ সব সময় রাজপথে থাকবে।

সাবেক উপদপ্তর সম্পাদক সজিবুর রহমান বলেন, একটি কুচক্রি মহল এ দেশের স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তিকে মদত দিয়ে দেশের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করা পায়তারা করছে। বর্তমান সরকার প্রধান দেশের তিন তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী সফল রাষ্ট্রানায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে তারা নষ্ট করতে চায়। এসব কুচক্রিমহলকে প্রতিহত করতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগ পূর্বে যেমন রাজপথে ছিল, এখনো রাজপথে আছে, থাকবে ইনশআল্লাহ। তাই জামাত-বিএনপির ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে ছাত্রলীগের সকল নেতাদের সজাগ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুমন মিয়া বলেন, দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে এবং আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য বিএনপি জামাত মানুষ হত্যা করে আগুন সন্ত্রাসের মাধ্যমে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। তারা ২০১৩-১৪ সালের মতো আবারও দেশে আগুন সন্ত্রাসের মাধ্যমে মানুষ পুড়িয়ে মানুষের জানমালের ক্ষতি সাধন করে চলেছে। কিন্তু শাবিপ্রবি ছাত্রলীগ দেশের স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি বিএনপি জামাতের আগুন ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড প্রতিহত করতে রাজপথে থাকবে।