ঢাকা ০৮:৩০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




“দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও দীপ্তর স্বপ্ন শিল্পপতি হবে সে”

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:০৩:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ মে ২০২৩ ১০২ বার পড়া হয়েছে

“দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও দীপ্তর স্বপ্ন শিল্পপতি হবে সে”

জবি প্রতিনিধি :
গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের সি-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৭ মে (শনিবার) অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুপুরে ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় আজকের ভর্তি পরীক্ষা।

গুচ্ছ সি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস কেন্দ্রে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছেন দীপ্ত বিশ্বাস নামে এক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী। ওই শিক্ষার্থীর বাসা পুরান ঢাকার নারিন্দায়। শিক্ষার্থীর বাবার নাম প্রতীক কুমার বিশ্বাস ও মা দীপিকা রানী সরকার। দীপ্ত কবি নজরুল সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ ৫.০০ পেয়ে উত্তীর্ণ হন।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মেধাবী শিক্ষার্থী দীপ্ত বলেন,এইবারের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় তার প্রথম পছন্দ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। যদি গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ের চান্স হয় আমি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবো এবং আমার স্বপ্ন আমি শিল্পপতি হবো।

ভর্তি পরীক্ষার শেষে দীপ্ত  বলেন, আমি আজকে ৭০টি প্রশ্নের উত্তর দাগিয়েছি। আশা করি সবগুলাই হবে। আমি শিল্পপতি হয়ে আমার মতো দৃষ্টি প্রতিবন্ধী যারা আছে তাদের জন্য বিশেষ কিছু করতে চাই। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছিলাম ফলাফল এখনো পাইনি।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছেলের সাথে এসেছিলেন তার মা দীপিকা রাণী সরকার, পরীক্ষার পুরোটা সময় তাকে দেখা গিয়েছিল তিনি সৃষ্টিকর্তার কাছে সন্তানের জন্য প্রার্থনা করেছেন।

পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক এবং ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ বিভিন্ন হল পরিদর্শন করেন।

এসময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ গোলাম মোস্তফা, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ রইছ উদদীন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল হোসেন, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ শাহজাহান, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এস এম মাসুম বিল্লাহ, লাইফ এন্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মনিরুজ্জামান খন্দকার, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ ওহিদুজ্জামান এবং প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




“দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও দীপ্তর স্বপ্ন শিল্পপতি হবে সে”

আপডেট সময় : ০৫:০৩:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ মে ২০২৩

“দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হয়েও দীপ্তর স্বপ্ন শিল্পপতি হবে সে”

জবি প্রতিনিধি :
গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের সি-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৭ মে (শনিবার) অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুপুরে ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় আজকের ভর্তি পরীক্ষা।

গুচ্ছ সি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস কেন্দ্রে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছেন দীপ্ত বিশ্বাস নামে এক দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী। ওই শিক্ষার্থীর বাসা পুরান ঢাকার নারিন্দায়। শিক্ষার্থীর বাবার নাম প্রতীক কুমার বিশ্বাস ও মা দীপিকা রানী সরকার। দীপ্ত কবি নজরুল সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ ৫.০০ পেয়ে উত্তীর্ণ হন।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মেধাবী শিক্ষার্থী দীপ্ত বলেন,এইবারের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় তার প্রথম পছন্দ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। যদি গুচ্ছ বিশ্ববিদ্যালয়ের চান্স হয় আমি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবো এবং আমার স্বপ্ন আমি শিল্পপতি হবো।

ভর্তি পরীক্ষার শেষে দীপ্ত  বলেন, আমি আজকে ৭০টি প্রশ্নের উত্তর দাগিয়েছি। আশা করি সবগুলাই হবে। আমি শিল্পপতি হয়ে আমার মতো দৃষ্টি প্রতিবন্ধী যারা আছে তাদের জন্য বিশেষ কিছু করতে চাই। আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছিলাম ফলাফল এখনো পাইনি।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছেলের সাথে এসেছিলেন তার মা দীপিকা রাণী সরকার, পরীক্ষার পুরোটা সময় তাকে দেখা গিয়েছিল তিনি সৃষ্টিকর্তার কাছে সন্তানের জন্য প্রার্থনা করেছেন।

পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক এবং ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ বিভিন্ন হল পরিদর্শন করেন।

এসময় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস স্টাডিজ অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ গোলাম মোস্তফা, কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ রইছ উদদীন, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল হোসেন, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ শাহজাহান, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এস এম মাসুম বিল্লাহ, লাইফ এন্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ মনিরুজ্জামান খন্দকার, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ ওহিদুজ্জামান এবং প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোস্তফা কামাল সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।