ঢাকা ০৮:৫৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ




বসন্ত পঞ্চমীতে কুবিতে উদযাপিত হলো সরস্বতী পূজা

প্রতিনিধি, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
  • আপডেট সময় : ০৪:২৮:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ ৯৫ বার পড়া হয়েছে

জ্ঞান ও বিদ্যার দেবী সরস্বতীর আরাধনাকে কেন্দ্র করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রতিবারের মতো এবারও শ্রীশ্রী সরস্বতী পূজা আয়োজিত হয়েছে।

 

পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে ১১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (২৬ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিঃ) রোজ বৃহস্পতিবার কুবির মুক্তমঞ্চে এই পূজার আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে হিন্দু ধর্মাবলী শিক্ষার্থীরা দিনটি উৎযাপন করে।

 

এ নিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী রুপম চন্দ্র দাশ বলেন, “প্রতি বছরের মতো এবারও ক্যাম্পাসে সরস্বতী পূজার আয়োজন করা হয়েছে। আমরা যারা বাসায় যেতে পারিনি তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেই দিনটি উৎযাপন করছি।”

 

শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. দুলাল চন্দ্র নন্দী, একাউন্টটিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র দেব সহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

 

এ নিয়ে পূজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক সুব্রত সরকার বলেন, “আমরা আড়ম্বরপূর্ণ ভাবে পূজা করলেও আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যেমন এই পূজার জন্য অর্থের প্রয়োজন দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকা কিন্তু প্রশাসন আমাদের দিয়েছে মাত্র পয়ত্রিশ হাজার টাকা। সুতরাং এখানে আমাদের বড় অর্থ ঘাটতি রয়েছে।”

 

তাছাড়া সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জন্য কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্দির বা আলাদা কোনো কক্ষ না থাকার কথাটিও তুলে ধরেন তিনি। এ নিয়ে তিনি বলেন, “আমরা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছি মন্দির এবং একটি কক্ষের ব্যবস্থা করতে; যেন আমরা আমাদের প্রার্থনা এবং ধর্মীয় কাজগুলো সুষ্ঠু ভাবে করতে পারি। কিন্তু প্রশাসন আমাদের শুধু আশ্বাসই দিয়ে গেছে। প্রশাসন যদি আমাদের দাবিগুলো মেনে নেয় আমরা খুবই উপকৃত হবো।”

 

বৃহস্পতিবার সকাল ৬.৩০ টায় প্রতিমা আনয়ন ও সংস্থাপন করা হয়। ৯ টায় দেবীর বন্দনা শুরু হয় এবং ১০.৩০ টায় দেবীর চরণে পুষ্পাঞ্জলী অর্পণ করা হয়। দুপুর ১ টায় প্রসাদ বিতরণের মাধ্যমে পূজার সমাপ্তি হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বসন্ত পঞ্চমীতে কুবিতে উদযাপিত হলো সরস্বতী পূজা

আপডেট সময় : ০৪:২৮:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২৩

জ্ঞান ও বিদ্যার দেবী সরস্বতীর আরাধনাকে কেন্দ্র করে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে প্রতিবারের মতো এবারও শ্রীশ্রী সরস্বতী পূজা আয়োজিত হয়েছে।

 

পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে ১১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (২৬ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রিঃ) রোজ বৃহস্পতিবার কুবির মুক্তমঞ্চে এই পূজার আয়োজন করা হয়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে হিন্দু ধর্মাবলী শিক্ষার্থীরা দিনটি উৎযাপন করে।

 

এ নিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী রুপম চন্দ্র দাশ বলেন, “প্রতি বছরের মতো এবারও ক্যাম্পাসে সরস্বতী পূজার আয়োজন করা হয়েছে। আমরা যারা বাসায় যেতে পারিনি তারা বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেই দিনটি উৎযাপন করছি।”

 

শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পরিসংখ্যান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. দুলাল চন্দ্র নন্দী, একাউন্টটিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ্র দেব সহ বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

 

এ নিয়ে পূজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক সুব্রত সরকার বলেন, “আমরা আড়ম্বরপূর্ণ ভাবে পূজা করলেও আমাদের কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যেমন এই পূজার জন্য অর্থের প্রয়োজন দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকা কিন্তু প্রশাসন আমাদের দিয়েছে মাত্র পয়ত্রিশ হাজার টাকা। সুতরাং এখানে আমাদের বড় অর্থ ঘাটতি রয়েছে।”

 

তাছাড়া সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জন্য কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্দির বা আলাদা কোনো কক্ষ না থাকার কথাটিও তুলে ধরেন তিনি। এ নিয়ে তিনি বলেন, “আমরা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছি মন্দির এবং একটি কক্ষের ব্যবস্থা করতে; যেন আমরা আমাদের প্রার্থনা এবং ধর্মীয় কাজগুলো সুষ্ঠু ভাবে করতে পারি। কিন্তু প্রশাসন আমাদের শুধু আশ্বাসই দিয়ে গেছে। প্রশাসন যদি আমাদের দাবিগুলো মেনে নেয় আমরা খুবই উপকৃত হবো।”

 

বৃহস্পতিবার সকাল ৬.৩০ টায় প্রতিমা আনয়ন ও সংস্থাপন করা হয়। ৯ টায় দেবীর বন্দনা শুরু হয় এবং ১০.৩০ টায় দেবীর চরণে পুষ্পাঞ্জলী অর্পণ করা হয়। দুপুর ১ টায় প্রসাদ বিতরণের মাধ্যমে পূজার সমাপ্তি হয়।