• ১৬ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১লা ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিয়ের ‘প্রলোভনে’ গৃহবধূকে ৮ বছর ধরে ‘ধর্ষণ’

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত ডিসেম্বর ১০, ২০২১, ২২:২০ অপরাহ্ণ
বিয়ের ‘প্রলোভনে’ গৃহবধূকে ৮ বছর ধরে ‘ধর্ষণ’

বগুড়া ব্যুরো: বগুড়ার ধুনটে বিয়ের প্রলোভনে এক গৃহবধূকে (৪৫) আট বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকায় পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে তার প্রতিবেশী উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের খাদুলী সাতানীপাড়া গ্রামের সানোয়ার হোসেনকে (৫০) গ্রেফতার করেছে।

এর আগে প্রতারণার শিকার ওই গৃহবধূ তার বিরুদ্ধে ধুনট থানায় মামলা করেন। শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ওসি কৃপা সিন্ধু বালা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এজাহার সূত্র ও স্থানীয়রা জানান, ধুনট উপজেলার চৌকিবাড়ী ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর গ্রামের জনৈক ব্যক্তির মেয়ের পার্শ্ববর্তী মথুরাপুর ইউনিয়নের খাদুলী সাতানীপাড়া গ্রামে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে তিন ছেলের মধ্যে একজন অন্ধ। স্বামী জীবিকার তাগিদে অন্য দুই ছেলেকে নিয়ে ঢাকায় থাকেন। এ সুযোগে প্রতিবেশী দুই সন্তানের জনক সানোয়ার হোসেন গৃহবধূকে বিয়ের প্রলোভন দেন। একপর্যায়ে রাজি হওয়ায় স্বামী ও সন্তানদের অগোচরে গত আট বছর ধরে তাকে ধর্ষণ করে আসছে।

গৃহবধূ এজাহারে উল্লেখ করেছেন, গত ৮ ডিসেম্বর অন্ধ ছেলে বাড়িতে না থাকায় সানোয়ার বাড়িতে ঢুকে শারীরিক সম্পর্ক করতে চায়। বিয়ে করতে বললে সানোয়ার অস্বীকৃতি জানায় ও ধর্ষণ করে কৌশলে সটকে পড়ে। পরে গৃহবধূ গ্রামের মাতবরদের কাছে নালিশ করে বিচার না পাওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকালে ধুনট থানায় প্রতিবেশী মৃত আলতাব হোসেনের ছেলে সানোয়ারের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা জানান, মামলাটি রেকর্ড ও বৃহস্পতিবার রাত ১০টার পর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে আসামি সানোয়ার হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার তাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা ও অন্যান্য আইনি কার্যক্রম চলছে।

error: Content is protected !!