• ১২ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ২৮শে শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পাওনা টাকা আনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত জানুয়ারি ১২, ২০২১, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ণ
পাওনা টাকা আনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার তরুণী

অনলাইন ডেস্ক;

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে পাওনা ৫ হাজার টাকা আনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক পোশাক শ্রমিক তরুণী (২২)। ওই তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী মাসুদের বিরুদ্ধে।

গতকাল রোববার (১০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় কাইতাখালী এলাকার মমিন মিয়ার জমির পাশে নির্জন স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

রোববার রাতেই ধর্ষিতা তরুণীকে মুমূর্ষু অবস্থায় ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সোমবার (১১ জানুয়ারি) বন্দর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা গেছে, নবীগঞ্জ বড়বাড়ী এলাকার বুলুমিয়ার ছেলে মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ মিয়ার ধর্ষণের শিকার ওই তরুণী একই সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ শহরের রিভারভিউ মার্কেটের একটি গার্মেন্টেসে কাজ করত। সে সুবাদে উভয়ের সঙ্গে পূর্ব পরিচিত ও সখ্যতা গড়ে ওঠে। মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ ওই তরুণীর কাছে কয়েকমাস আগে ৫ হাজার টাকা ধার নেয় এবং বেতন পেলেই পরিশোধ করবে বলে প্রতিশ্রুতি দেয়। পরে ওই তরুণী তার পাওনা টাকা চাইলে তাকে নবীগঞ্জ বড়বাড়ি এলাকায় দেখা করতে বলে মাসুদ।

গতকাল রোববার মাদক ব্যবসায়ী মাসুদ তার সহযোগী মিলন নামে একজনকে দিয়ে ওই তরুণীকে ফোন করে কাইতাখালী এলাকার মমিন মিয়ার জমিতে একটি কুঠুরিতে যেতে বলে।

ওই কিশোরী সেখানে গেলে মাদক ব্যবসায়ী মাসুদসহ তার কয়েকজন সঙ্গীর সহযোগিতায় ওই তরুণীকে নির্জনস্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে ওই কিশোরী রিকশাযোগে নবীগঞ্জ ইস্পাহানী তার বোনের বাড়িতে আসলে তার বোন ও তার বোন জামাতা তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

বন্দর থানা-পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) তারিকুল ইসলাম বলেন, ধর্ষিতা ওই কিশোরীর চিকিৎসা চলছে। রাতেই হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন।

error: Content is protected !!