• ১৬ই আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১লা ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গণধর্ষণের ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয়, গ্রাম ছাড়া নির্যাতিতা

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত ডিসেম্বর ২৭, ২০২০, ০৯:৫০ পূর্বাহ্ণ
গণধর্ষণের ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয়, গ্রাম ছাড়া নির্যাতিতা

অনলাইন ডেস্ক;

রংপুরের মিঠাপুকুরে জমিজমার কাগজপত্র ঠিক করে দেওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে গণধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ধর্ষকদের হুমকিতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা করলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

এদিকে পৃথক আরেকটি ঘটনায় চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।

মামলা সূত্র ও এলাকাবাসী জানায়, মিঠাপুকুর উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের পশ্চিম মুরাদপুর গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের কাছে ৫ বছর আগে ৬৬ শতক জমি ২ লাখ টাকায় বন্ধক নেন গৃহবধূ ও তার স্বামী। ওই সময় লিখিত স্ট্যাম্পও করে দেন তোফাজ্জল হোসেন।

ওই সম্পত্তি গৃহবধূ ও তার স্বামী ভোগদখল করে আসছেন। ১০ নভেম্বর জমিদাতা তোফাজ্জল হোসেন আরও ৪০ হাজার টাকা গ্রহণ করেন তাদের কাছে। কিন্তু, স্ট্যাম্প করে দিতে টালবাহানা করতে থাকেন।

একপর্যায়ে তোফাজ্জল হোসেনের সহযোগী আবু তাহের ও রবিউল হাসান বিষু ওই গৃহবধূকে ৪০ হাজার টাকার স্ট্যাম্প লিখে দিতে সহায়তার কথা বলে ২ লাখ টাকার মূল স্ট্যাম্পটি তার কাছ থেকে হাতিয়ে নেন।

এরপর তোফাজ্জল হোসেনের সহযোগী আবু তাহের ও রবিউল হাসান বিষু ওই গৃহবধূকে কৌশলে ২২ নভেম্বর ও ২৭ নভেম্বর ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও করে তা ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখায়।

ওই গৃহবধূ বৈরাতীহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে অভিযোগ করলে জড়িতরা ইউপি সদস্যকে হাত করে তার মাধ্যমে তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তাকে গ্রাম্যভাবে সমাধান করার আশ্বাসে থামিয়ে রাখেন।

কিন্তু অপরাধীরা ঘটনার স্থানীয়ভাবে সমাধানের আশ্বাস দিয়ে ওই গৃহবধূকে দুশ্চরিত্রা বলে গ্রাম থেকে তাড়িয়ে দেয়। পরে ওই গৃহবধূ মিঠাপুকুর থানায় তিনজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন।

অপরদিকে উপজেলার বড় হযরতপুর ইউনিয়নের চতুর্থ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

জানা গেছে, ছাত্রীটি গত ২৫ ডিসেম্বর সকালে অন্য শিশুদের সাথে বাড়ির বাইরে খেলা করছিল। পাশের বাড়িতে শিশুটি পানি খাওয়ার জন্য পাশের বাড়িতে যায়।

এসময় পাশের সেরুডাঙা খামার গ্রামের দুলু মিয়া (৪৫) শিশুটিকে পেছন থেকে জাপটে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। তার চিৎকারে অন্য শিশুরা দৌড়ে এলে দুলু মিয়া পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে শিশুটির বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেন।

মিঠাপুকুর থানার ওসি আমিরুজ্জামান জানান, গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিরা পলাতক থাকায় গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

error: Content is protected !!