ঢাকা ১০:৩৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




চীন থেকে করোনা চিকিৎসা সামগ্রী আনতে যাচ্ছে বিমানবাহিনী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:০৭:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০ ৬৭ বার পড়া হয়েছে

চীন থেকে করোনা চিকিৎসা সামগ্রী আনতে যাচ্ছে বিমানবাহিনী

অনলাইন রিপোর্ট | 

করোনাভাইরাস শনাক্তকারী কিট ও পিপিইসহ চিকিৎসা সামগ্রী আনছে চীন যাচ্ছে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বিমান।
শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সি-১৩০জে পরিবহন বিমানটি ১৬ জন এয়ার ক্রু নিয়ে চীনের উদ্দেশে চট্রগ্রামের আন্তর্জাতিক শাহ আমানত বিমানবন্দর ত্যাগ করবে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
এরইমধ্যে বিমানটি ঢাকায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বঙ্গবন্ধু ঘাঁটি থেকে চট্টগ্রামে গিয়ে পৌঁছেছে। বিমানবাহিনীর এয়ার কমডোর মো. জাহিদুর রহমান, জিডি(পি) দলনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। মিশন সম্পন্ন করার জন্য বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

আইএসপিআর’র প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনী করোনাভাইরাস প্রতিরোধকল্পে প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রকাশিত নীতিমালা অনুসরণ করে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এরই ধারাবাহিকতায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনী চীন সরকারের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে সেখান থেকে করোনা শনাক্তকরণের প্রয়োজনীয় কিট, এন-৯৫ মাস্ক, সার্জিক্যাল মাস্ক, ইলেট্রিক থার্মোমিটার, মেডিক্যাল সেফটি গ্লাস, প্রোটেক্টিভ গ্লাভস, গগলস এবং ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই)সহ চিকিৎসা সহায়ক সামগ্রী সংগ্রহের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। চিকিৎসা সহায়ক সামগ্রী সংগ্রহের

লক্ষ্যে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি সি-১৩০জে পরিবহন বিমান চীনের উদ্দেশে যাত্রা করবে।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় চীন সরকারের প্রসংশনীয় উদ্যোগ এবং বৈশ্বিক প্রাদুর্ভাব রোধে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অকৃত্রিম সহায়তার জন্য বন্ধুত্বের নিদর্শন স্বরূপ চীনের জন্য বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনীর পক্ষ থেকে ঐতিহ্যবাহী কিছু শুভেচ্ছা সামগ্রী যেমন- হস্ত ও কুটির শিল্পজাতীয় উপহার সামগ্রী বিমানবাহিনীর পরিবহন বিমানটিতে পাঠানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




চীন থেকে করোনা চিকিৎসা সামগ্রী আনতে যাচ্ছে বিমানবাহিনী

আপডেট সময় : ১০:০৭:০৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০

অনলাইন রিপোর্ট | 

করোনাভাইরাস শনাক্তকারী কিট ও পিপিইসহ চিকিৎসা সামগ্রী আনছে চীন যাচ্ছে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বিমান।
শুক্রবার (১৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর সি-১৩০জে পরিবহন বিমানটি ১৬ জন এয়ার ক্রু নিয়ে চীনের উদ্দেশে চট্রগ্রামের আন্তর্জাতিক শাহ আমানত বিমানবন্দর ত্যাগ করবে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
এরইমধ্যে বিমানটি ঢাকায় বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর বঙ্গবন্ধু ঘাঁটি থেকে চট্টগ্রামে গিয়ে পৌঁছেছে। বিমানবাহিনীর এয়ার কমডোর মো. জাহিদুর রহমান, জিডি(পি) দলনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। মিশন সম্পন্ন করার জন্য বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, বিবিপি, ওএসপি, এনডিইউ, পিএসসি প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিয়েছেন।

আইএসপিআর’র প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনী করোনাভাইরাস প্রতিরোধকল্পে প্রধানমন্ত্রীর দিক নির্দেশনায় বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রকাশিত নীতিমালা অনুসরণ করে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

এরই ধারাবাহিকতায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ব্যবস্থা জোরদার করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনী চীন সরকারের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে সেখান থেকে করোনা শনাক্তকরণের প্রয়োজনীয় কিট, এন-৯৫ মাস্ক, সার্জিক্যাল মাস্ক, ইলেট্রিক থার্মোমিটার, মেডিক্যাল সেফটি গ্লাস, প্রোটেক্টিভ গ্লাভস, গগলস এবং ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিই)সহ চিকিৎসা সহায়ক সামগ্রী সংগ্রহের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। চিকিৎসা সহায়ক সামগ্রী সংগ্রহের

লক্ষ্যে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি সি-১৩০জে পরিবহন বিমান চীনের উদ্দেশে যাত্রা করবে।

প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় চীন সরকারের প্রসংশনীয় উদ্যোগ এবং বৈশ্বিক প্রাদুর্ভাব রোধে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অকৃত্রিম সহায়তার জন্য বন্ধুত্বের নিদর্শন স্বরূপ চীনের জন্য বাংলাদেশ সশস্ত্রবাহিনীর পক্ষ থেকে ঐতিহ্যবাহী কিছু শুভেচ্ছা সামগ্রী যেমন- হস্ত ও কুটির শিল্পজাতীয় উপহার সামগ্রী বিমানবাহিনীর পরিবহন বিমানটিতে পাঠানো হয়েছে।