ঢাকা ০৮:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




সবাইকে ধৈর্য আর প্রার্থনা করার অনুরোধ আশরাফুলের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০ ১৩০ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন রিপোর্ট | 

দেশজুড়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ১২’শ। মৃতের সংখ্যাও নেহায়েত কম না, ৪৬ জন।
দেশের এমন পরিস্থিতিতে বাংলা নব বর্ষের উদযাপন অসম্ভব বলা চলে। বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল অনুরোধ জানিয়েছেন, এবারের নববর্ষ যেন সবাই পরিবারের সঙ্গে ঘরে থেকেই বরণ করে সবাই।
‘এমন একটা দিন আজকে যেখানে বিশ্বে ১৯ লাখের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত। বাংলাদেশেও আট’শর বেশি মানুষ এই রোগে আক্রান্ত এবং চল্লিশ জনের বেশি মানুষ মারা গিয়েছে। এই মুহূর্তে আমাদের নববর্ষ বলে কিছু নেই। সবার একটাই চিন্তা, করোনা মুক্ত কবে হবো আমরা। এটার জন্য আসলে আমাদের বাসায় থাকতে হবে বেশি বেশি এবং যার যার ধর্মের সৃষ্টিকর্তাকে বেশি বেশি ডাকি। প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় আমরা বাসায় বন্দী আছি। কিন্তু করোনা-মুক্ত হতে হলে বাসাতেই থাকতে হবে। সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী চলতে হবে। আমাদের সচেতন থাকতে হবে, দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। আশা করি সামনে অনেক ভালো দিন অপেক্ষা করছে। এর জন্য ধৈর্য আর প্রার্থনা করতে হবে। সবাইকে আবারো জানাই শুভ নববর্ষ ১৪২৭।’
এর আগে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী অনুরোধ করেছেন, সবাই যেন ঘরে থেকেই নতুন বছর বরণ করেন।
করোনা ভাইরাস সংক্রমণে বর্তমানে বিশ্ব বিপর্যস্ত উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে মহামারী হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এ প্রেক্ষাপটে সবাইকে জনসমাগম এড়িয়ে এবারের বাংলা নববর্ষ ডিজিটাল পদ্ধতিতে ঘরে বসে উদযাপনের আহ্বান জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




সবাইকে ধৈর্য আর প্রার্থনা করার অনুরোধ আশরাফুলের

আপডেট সময় : ০৫:৩৪:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০

অনলাইন রিপোর্ট | 

দেশজুড়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ১২’শ। মৃতের সংখ্যাও নেহায়েত কম না, ৪৬ জন।
দেশের এমন পরিস্থিতিতে বাংলা নব বর্ষের উদযাপন অসম্ভব বলা চলে। বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল অনুরোধ জানিয়েছেন, এবারের নববর্ষ যেন সবাই পরিবারের সঙ্গে ঘরে থেকেই বরণ করে সবাই।
‘এমন একটা দিন আজকে যেখানে বিশ্বে ১৯ লাখের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত। বাংলাদেশেও আট’শর বেশি মানুষ এই রোগে আক্রান্ত এবং চল্লিশ জনের বেশি মানুষ মারা গিয়েছে। এই মুহূর্তে আমাদের নববর্ষ বলে কিছু নেই। সবার একটাই চিন্তা, করোনা মুক্ত কবে হবো আমরা। এটার জন্য আসলে আমাদের বাসায় থাকতে হবে বেশি বেশি এবং যার যার ধর্মের সৃষ্টিকর্তাকে বেশি বেশি ডাকি। প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় আমরা বাসায় বন্দী আছি। কিন্তু করোনা-মুক্ত হতে হলে বাসাতেই থাকতে হবে। সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী চলতে হবে। আমাদের সচেতন থাকতে হবে, দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। আশা করি সামনে অনেক ভালো দিন অপেক্ষা করছে। এর জন্য ধৈর্য আর প্রার্থনা করতে হবে। সবাইকে আবারো জানাই শুভ নববর্ষ ১৪২৭।’
এর আগে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে প্রধানমন্ত্রী অনুরোধ করেছেন, সবাই যেন ঘরে থেকেই নতুন বছর বরণ করেন।
করোনা ভাইরাস সংক্রমণে বর্তমানে বিশ্ব বিপর্যস্ত উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকে মহামারী হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এ প্রেক্ষাপটে সবাইকে জনসমাগম এড়িয়ে এবারের বাংলা নববর্ষ ডিজিটাল পদ্ধতিতে ঘরে বসে উদযাপনের আহ্বান জানান তিনি।