ঢাকা ০৯:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




‘মৃত্যুর মিছিলে হয়তো আমিও চলে যেতে পারি’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৫১:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০ ১০৯ বার পড়া হয়েছে

ক্রীড়া প্রতিবেদক: 
করোনাভাইরাসের বিস্তার যত বাড়ছে, ততই চিন্তা বাড়ছে। সবার মতো ভীষণ চিন্তিত রুবেল হোসেনও। দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই বাংলাদেশ পেসার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিয়মিত নিজের উদ্বেগের কথা জানাচ্ছেন। কখনো কখনো করোনাকালে সমাজের অসংগতি নিয়ে ঝাঁজাল মন্তব্যও করছেন।

করোনা পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে যে মুনাফালোভী ব্যবসায়ীরা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়িয়েছেন, তাঁদের ‘করোনাভাইরাস’ বলে অভিহিত করেছেন। করোনা সংকটের সময়ে রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ দেখে অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন, ‘কিছু লিখব না, জানি না সামনে কী হবে মাবুদ।’ কঠিন এ সময়ে ভীষণ বিপদে নিম্নআয়ের মানুষেরা। এই মানুষদের বাঁচাতে রুবেল আহবান জানিয়েছেন, ‘দেশ এখন সংকটময় মুহূর্তে। এই দেশ আপনার আমার সকলের। নিম্ন আয়ের মানুষদের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে হবে। ভোটের সময় ভোটের স্লিপ যদি ঘরে ঘরে গিয়ে দিয়ে আসতে পারেন, তাহলে সরকারি অনুদান ঘরে ঘরে গিয়ে নয় কেন?’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মন্তব্য করেই সীমাবদ্ধ থাকেননি রুবেল, দাঁড়িয়েছেন দুস্থ মানুষদের পাশেও। তবুও চিন্তার শেষ নেই। করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে প্রাণহানির সংখ্যা। ভবিষ্যৎ এমনই অনিশ্চিত, আজ সন্ধ্যায় রুবেল লিখেছেন, ‘ভুল করে থাকলে ক্ষমা করে দেবেন। এই মৃত্যুর মিছিলে হয়তো আমিও চলে যেতে পারি।’

রুবেলের কথায় করোনাকালে মানুষের অসহায় জীবনটাই যেন প্রকাশ পেয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




‘মৃত্যুর মিছিলে হয়তো আমিও চলে যেতে পারি’

আপডেট সময় : ০৯:৫১:৪৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০

ক্রীড়া প্রতিবেদক: 
করোনাভাইরাসের বিস্তার যত বাড়ছে, ততই চিন্তা বাড়ছে। সবার মতো ভীষণ চিন্তিত রুবেল হোসেনও। দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকেই বাংলাদেশ পেসার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিয়মিত নিজের উদ্বেগের কথা জানাচ্ছেন। কখনো কখনো করোনাকালে সমাজের অসংগতি নিয়ে ঝাঁজাল মন্তব্যও করছেন।

করোনা পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে যে মুনাফালোভী ব্যবসায়ীরা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়িয়েছেন, তাঁদের ‘করোনাভাইরাস’ বলে অভিহিত করেছেন। করোনা সংকটের সময়ে রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ দেখে অসহায়ত্ব প্রকাশ করেছেন, ‘কিছু লিখব না, জানি না সামনে কী হবে মাবুদ।’ কঠিন এ সময়ে ভীষণ বিপদে নিম্নআয়ের মানুষেরা। এই মানুষদের বাঁচাতে রুবেল আহবান জানিয়েছেন, ‘দেশ এখন সংকটময় মুহূর্তে। এই দেশ আপনার আমার সকলের। নিম্ন আয়ের মানুষদের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিতে হবে। ভোটের সময় ভোটের স্লিপ যদি ঘরে ঘরে গিয়ে দিয়ে আসতে পারেন, তাহলে সরকারি অনুদান ঘরে ঘরে গিয়ে নয় কেন?’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মন্তব্য করেই সীমাবদ্ধ থাকেননি রুবেল, দাঁড়িয়েছেন দুস্থ মানুষদের পাশেও। তবুও চিন্তার শেষ নেই। করোনার সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বাড়ছে, তেমনি বাড়ছে প্রাণহানির সংখ্যা। ভবিষ্যৎ এমনই অনিশ্চিত, আজ সন্ধ্যায় রুবেল লিখেছেন, ‘ভুল করে থাকলে ক্ষমা করে দেবেন। এই মৃত্যুর মিছিলে হয়তো আমিও চলে যেতে পারি।’

রুবেলের কথায় করোনাকালে মানুষের অসহায় জীবনটাই যেন প্রকাশ পেয়েছে।