ঢাকা ০৭:৫১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




এসএ গেমসে স্বর্ণবিহীন আরেকটি দিন বাংলাদেশের

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:১৩:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ ৯৭ বার পড়া হয়েছে

বিশেষ সংবাদদাতা;
টানা তিন দিন এসএ গেমসে স্বর্ণবিহীন কাটলো বাংলাদেশের। কারাতের তিনটি ও তায়কোয়ানদোতে একটির পর আর কোনো স্বর্ণের মুখ দেখেননি বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদ। ইভেন্টও আস্তে আস্তে শেষ হয়ে আসছে। স্বর্ণ বাদে অন্য দুটি ঘরে (রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ) পদক একটু বাড়ছে।

বাংলাদেশের এখন সবচেয়ে বড় ভরসার নাম আরচারি। যে ডিসিপ্লিন আজ (শুক্রবার) শুরু হয়েছে। তবে পদকের লড়াই রোববার থেকে। সর্বশেষ ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত আরচারির ১০ ইভেন্টের সবকটিতে স্বর্ন জেতা ভারত এবার নেই। তাই বাংলাদেশ এখন স্বর্ণ বাড়ানোর জন্য তাকিয়ে তীরন্দাজদের দিকে।

কাবাডির মেয়েদের বিভাগে ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ। শুক্রবার শ্রীলংকাকে ১৭-১৬ পয়েন্টে হারানোর পর ব্রোঞ্জ নিশ্চিত হয়েছে মালেকাদের।

শুটিংয়ে মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ২৩৪.৬ স্কোর করে রৌপ্য পদক জিতেছেন আরদিনা ফেরদৌস আঁখি। এ ইভেন্টে স্বর্ণ ভারতের ও ব্রোঞ্জ পেয়েছে পাকিস্তানের প্রতিযোগী। মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তল দলগত ইভেন্টে ব্রোঞ্জ জিতেছে বাংলাদেশ। ভারোত্তোলনে মেয়েদের ৭১ কেজি ওজন শ্রেণীতে রোকেয়া সুলতানা সাথী রৌপ্য পদক জিতেছেন। তিনি স্ন্যাচে ৭০ ও ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ৮৫ মিলিয়ে তিনি তুলেছেন ১৫৫ কেজি।

ছেলেদের ৮৯ কেজি ওজন শ্রেণীতে বাংলাদেশের শাখায়েত হোসেন রৌপ্য পদক জিতেছেন। স্ন্যাচ (১২৩ কেজি) ও ক্লিন জার্ক (১৪৫ কেজি) মিলিয়ে তিনি তুলেছেন ২৬৮ কেজি। গলফের পুরুষ ব্যাক্তিগত ইভেন্টে রৌপ্য জিতেছেন বাংলাদেশের মোহাম্মদ ফরহাদ। পুরুষ দলীয় ইভেন্টে বাংলাদেশের মো. ফরহাদ, মো. সম্রাট, মো. শাহাবুদ্দিন ও মো. শফিক রৌপ্য পেয়েছেন।

মেয়েদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে রৌপ্য পেয়েছেন জাকিয়া সুলতানা। মেয়েদের দলগত ইভেন্ট থেকে বাংলাদেশের নাসিমা আক্তার, সোনিয়া আক্তার ও জাকিয়া সুলতানা রৌপ্য পেয়েছেন।

অ্যাথলেটিকসে ছেলেদের ১০০ মিটার রিলেতে আব্দুর রউফ-শরিফুল-মোহাম্মদ ইসমাইল-হাসান মিয়া ৪২.৩৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে চতুর্থ হয়েছেন । মেয়েদের ১০০ মিটার রিলেতে শরিফা খাতুন-সোহাগী আক্তার-তামান্না আক্তার-শিরিন আক্তারে গড়া বাংলাদেশ দল চতুর্থ হয়েছে।

এ ইভেন্টে শ্রীলঙ্কা (৪৪.৮৯ সেকেন্ড) স্বর্ণ ও ভারত (৪৫.৩৬ সেকেন্ড) রৌপ্য জিতেছে।

হ্যান্ডবলে বাংলাদেশ ৩৪-১৩ গোলে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। সেমিফাইনালে আগামীকাল (শনিবার ) সকাল ৯টায় বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভারতের। বিকাল ৪টায় পুরুষদের সেমিফাইনাল পাকিস্তানের সাথে।

সাঁতারে ছেলেদের ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ফয়সাল আহমেদ ১৭.০০,৩৩ মিনিট সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন। মেয়েদের ৪০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলেতে জুনাইনা আহমেদ ৫.২৫,২৩ মিনিট সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন।

ছেলেদের ২০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে জুয়েল আহমেদ ২.১৬,৩০ মিনিট সময় নিয়ে হয়েছেন পঞ্চম। মেয়েদের বিভাগে সুরাইয়া আক্তার ২.৩৮,৭৬ মিনিট সময় নিয়ে পঞ্চম হন। ষষ্ঠ হয়েছেন নাইমা আক্তার ২.৪৩,১৭ মিনিট সময় নিয়ে।

ছেলেদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে আরিফুল ইসলাম ১. ০২,৯৫ মিনিট সময় নিয়ে চতুর্থ হয়েছেন। সুকুমার রাজ হয়েছেন পঞ্চম (১.০৭,১২ মিনিট)।
মেয়েদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে রোমানা আক্তার ১.১৮,৮৭ মিনিট সময় নিয়ে পঞ্চম হয়েছেন। সপ্তম হয়েছেন মুক্তি খাতুন ১.২১,০৫ মিনিট সময় নিয়ে।

ছেলেদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে আসিফ রেজা ২৩.০৪ সেকেন্ড সময় চতুর্থ এবং মাহফিজুর রহমান সাগর ২৩.৭৮ পঞ্চম হয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




এসএ গেমসে স্বর্ণবিহীন আরেকটি দিন বাংলাদেশের

আপডেট সময় : ১০:১৩:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯

বিশেষ সংবাদদাতা;
টানা তিন দিন এসএ গেমসে স্বর্ণবিহীন কাটলো বাংলাদেশের। কারাতের তিনটি ও তায়কোয়ানদোতে একটির পর আর কোনো স্বর্ণের মুখ দেখেননি বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদ। ইভেন্টও আস্তে আস্তে শেষ হয়ে আসছে। স্বর্ণ বাদে অন্য দুটি ঘরে (রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ) পদক একটু বাড়ছে।

বাংলাদেশের এখন সবচেয়ে বড় ভরসার নাম আরচারি। যে ডিসিপ্লিন আজ (শুক্রবার) শুরু হয়েছে। তবে পদকের লড়াই রোববার থেকে। সর্বশেষ ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত আরচারির ১০ ইভেন্টের সবকটিতে স্বর্ন জেতা ভারত এবার নেই। তাই বাংলাদেশ এখন স্বর্ণ বাড়ানোর জন্য তাকিয়ে তীরন্দাজদের দিকে।

কাবাডির মেয়েদের বিভাগে ব্রোঞ্জ পেয়েছে বাংলাদেশ। শুক্রবার শ্রীলংকাকে ১৭-১৬ পয়েন্টে হারানোর পর ব্রোঞ্জ নিশ্চিত হয়েছে মালেকাদের।

শুটিংয়ে মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে ২৩৪.৬ স্কোর করে রৌপ্য পদক জিতেছেন আরদিনা ফেরদৌস আঁখি। এ ইভেন্টে স্বর্ণ ভারতের ও ব্রোঞ্জ পেয়েছে পাকিস্তানের প্রতিযোগী। মেয়েদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তল দলগত ইভেন্টে ব্রোঞ্জ জিতেছে বাংলাদেশ। ভারোত্তোলনে মেয়েদের ৭১ কেজি ওজন শ্রেণীতে রোকেয়া সুলতানা সাথী রৌপ্য পদক জিতেছেন। তিনি স্ন্যাচে ৭০ ও ক্লিন অ্যান্ড জার্কে ৮৫ মিলিয়ে তিনি তুলেছেন ১৫৫ কেজি।

ছেলেদের ৮৯ কেজি ওজন শ্রেণীতে বাংলাদেশের শাখায়েত হোসেন রৌপ্য পদক জিতেছেন। স্ন্যাচ (১২৩ কেজি) ও ক্লিন জার্ক (১৪৫ কেজি) মিলিয়ে তিনি তুলেছেন ২৬৮ কেজি। গলফের পুরুষ ব্যাক্তিগত ইভেন্টে রৌপ্য জিতেছেন বাংলাদেশের মোহাম্মদ ফরহাদ। পুরুষ দলীয় ইভেন্টে বাংলাদেশের মো. ফরহাদ, মো. সম্রাট, মো. শাহাবুদ্দিন ও মো. শফিক রৌপ্য পেয়েছেন।

মেয়েদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে রৌপ্য পেয়েছেন জাকিয়া সুলতানা। মেয়েদের দলগত ইভেন্ট থেকে বাংলাদেশের নাসিমা আক্তার, সোনিয়া আক্তার ও জাকিয়া সুলতানা রৌপ্য পেয়েছেন।

অ্যাথলেটিকসে ছেলেদের ১০০ মিটার রিলেতে আব্দুর রউফ-শরিফুল-মোহাম্মদ ইসমাইল-হাসান মিয়া ৪২.৩৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে চতুর্থ হয়েছেন । মেয়েদের ১০০ মিটার রিলেতে শরিফা খাতুন-সোহাগী আক্তার-তামান্না আক্তার-শিরিন আক্তারে গড়া বাংলাদেশ দল চতুর্থ হয়েছে।

এ ইভেন্টে শ্রীলঙ্কা (৪৪.৮৯ সেকেন্ড) স্বর্ণ ও ভারত (৪৫.৩৬ সেকেন্ড) রৌপ্য জিতেছে।

হ্যান্ডবলে বাংলাদেশ ৩৪-১৩ গোলে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। সেমিফাইনালে আগামীকাল (শনিবার ) সকাল ৯টায় বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভারতের। বিকাল ৪টায় পুরুষদের সেমিফাইনাল পাকিস্তানের সাথে।

সাঁতারে ছেলেদের ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ফয়সাল আহমেদ ১৭.০০,৩৩ মিনিট সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন। মেয়েদের ৪০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলেতে জুনাইনা আহমেদ ৫.২৫,২৩ মিনিট সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন।

ছেলেদের ২০০ মিটার ব্যাকস্ট্রোকে জুয়েল আহমেদ ২.১৬,৩০ মিনিট সময় নিয়ে হয়েছেন পঞ্চম। মেয়েদের বিভাগে সুরাইয়া আক্তার ২.৩৮,৭৬ মিনিট সময় নিয়ে পঞ্চম হন। ষষ্ঠ হয়েছেন নাইমা আক্তার ২.৪৩,১৭ মিনিট সময় নিয়ে।

ছেলেদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে আরিফুল ইসলাম ১. ০২,৯৫ মিনিট সময় নিয়ে চতুর্থ হয়েছেন। সুকুমার রাজ হয়েছেন পঞ্চম (১.০৭,১২ মিনিট)।
মেয়েদের ১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে রোমানা আক্তার ১.১৮,৮৭ মিনিট সময় নিয়ে পঞ্চম হয়েছেন। সপ্তম হয়েছেন মুক্তি খাতুন ১.২১,০৫ মিনিট সময় নিয়ে।

ছেলেদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে আসিফ রেজা ২৩.০৪ সেকেন্ড সময় চতুর্থ এবং মাহফিজুর রহমান সাগর ২৩.৭৮ পঞ্চম হয়েছেন।