বছর ধরে ওয়াসার খোঁড়াখুড়িতে ভোগান্তিতে চট্টগ্রামবাসী

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে ওয়াসার খোঁড়াখুড়ির পর রাস্তা মেরামতে দীর্ঘসূত্রিতায় ভোগান্তিতে নগরবাসী ও ব্যবসায়ীরা। ওয়াসার কাজের জন্য কোন কোন সড়ক বন্ধ হয়ে আছে বছর ধরে। এ অবস্থায় সড়ক মেরামতে দেরির দায় সিটি করপোরেশনের উপর চাপাচ্ছে ওয়সা। আর পরিকল্পনাবিদরা বলছেন, ওয়াসাসহ নগরীর অন্য সেবা সংস্থাগুলোকে সিটি করপোরেশনের অধীনে না আনলে কখনোই কাজের সমন্বয় হবে না।

ওয়াসার খোঁড়াখুঁড়িতে নগরীর মূল সড়ক থেকে অলিগলির এখন বেহাল অবস্থা। কর্ণফুলী পানি সরবরাহ প্রকল্পসহ চট্টগ্রামে ৪টি প্রকল্পের কাজ করছে ওয়াসা। নগরীর বিভিন্ন অংশে কাটা হচ্ছে সড়ক। এতে যান চলাচলে বিঘ্নসহ ধূলোবালিতে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগের শেষ নেই।

খোঁড়াখুঁড়ির পর সড়ক প্রাথমিক মেরামত করে ওয়াসা। চুড়ান্ত কার্পেটিং এর দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের। আর সেখানেই হচ্ছে দেরি, তাই বাড়ছে ভোগান্তি, দাবি ওয়াসার।

চট্টগ্রাম ওয়াসার প্রকল্প পরিচালক আরিফুল ইসলাম বলছেন, আরও যে সব প্রকল্প হাতে আছে। সেই প্রকল্পগুলোতে চেষ্টা করা হবে সমন্নয়ের মাধ্যমে ভোগান্তি কমিয়ে আনার।

সিটি করপোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বলছেন, মেরামত কাজে সময়ের ব্যবধান কমানোর চেষ্টা চলছে। খোঁড়াখুঁড়ি হলেই তা সঙ্গে সঙ্গে মেরামতের বিষয়ে চিন্তা করা হচ্ছে।

ভোগান্তি কমাতে সব সেবা সংস্থাকে সিটি করপোরেশনের অধীনে আনার বিকল্প নেই বলছেন এই নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি আশিক ইমরান। তার মতে, সিটি কর্পোরেশন ও ওয়াসার মধ্যে নূন্যতম সমন্নয়হীনতা নেই। তাদের এই সমন্নয়হীনতার কারণেই বাড়ছে দুর্ভোগ।

ওয়াসার অধিকাংশ প্রকল্পে নিয়োজিত বিদেশি পরামর্শক ও ঠিকাদাররা করোনা পরিস্থিতিতে নিজ দেশে চলে যাওয়ায় কাজের গতি কমে গেছে বলেও মনে করছেন নগর পরিকল্পনাবিদরা।

আপনার মতামত লিখুন :