ঢাকা ১২:০০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo রূপালী ব্যাংকের ডিজিএম কর্তৃক সহকর্মী নারীকে যৌন হয়রানি: ধামাচাপা দিতে মরিয়া তদন্ত কমিটি Logo প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা হাতিয়ে বহাল তবিয়তে মাদারীপুরের দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারl Logo যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় Logo ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান Logo টাটা মটরস বাংলাদেশে উদ্বোধন করলো টাটা যোদ্ধা Logo আশা শিক্ষা কর্মসূচী কর্তৃক অভিভাবক মতবিনিময় সভা Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ!




মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসে রক্ত মিশিয়ে বিক্রি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৮:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০১৯ ৭৫ বার পড়া হয়েছে

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি |

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলায় গরুর মাংসের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বের হয়ে এসেছে ভয়ংকর চিত্র। মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসকে তাজা বলে চালানোর জন্য গরুর পুরোনো রক্ত মেশানো হতো মাংসে। আর মহিষের মাংসকে ক্রেতার কাছে বিক্রি করা হতো গরুর মাংস বলে।

শুক্রবার সকালে উপজেলা সড়ক বাজারে মাংসের দোকানগুলোতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম শরীফুল হক ক্রেতা সেজে এ অভিযান চালিয়ে ফ্রিজ থেকে বোতল ভর্তি গরুর পুরোনো ৬ লিটার রক্ত জব্দ করেছেন। এই রক্ত গুলো পুরোনো মাংসের মধ্যে মিশিয়ে বিক্রি করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল হক জানান, সকালে ক্রেতা সেজে সড়ক বাজার এলাকার সব কটি মাংসের দোকানে ঘুরে দাম এবং মান পর্যবেক্ষণ করেন। পরবর্তীতে থানা-পুলিশ ও স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো. রফিকুল ইসলামকে সাথে নিয়ে দোকান গুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হয়। মাংসের দোকাগুলোতে ফ্রিজ গুলো খুলে দেখা যায় বোতল ভর্তি গরুর পুরোনো রক্ত রাখা হয়েছে। পরে বোতলভর্তি রক্ত জব্দ করে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাংস সংরক্ষণ এবং গরুর নামে মহিষের মাংস বিক্রি ও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় ভোক্তা অধিকার আইনে ৬ টি দোকানদারকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণ মাংস জব্দ করে তাৎক্ষণিক জরিমানা আদায় করা হয়। পরবর্তীতে এই সব পাওয়া গেলে কঠিন শাস্তির ব্যাপারে দোকান মালিকদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল হক বলেন পুরো রমজান মাস জুড়ে অভিযান চলবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসে রক্ত মিশিয়ে বিক্রি

আপডেট সময় : ০৩:৪৮:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১০ মে ২০১৯

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি |

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আখাউড়া উপজেলায় গরুর মাংসের দোকানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বের হয়ে এসেছে ভয়ংকর চিত্র। মেয়াদোত্তীর্ণ মাংসকে তাজা বলে চালানোর জন্য গরুর পুরোনো রক্ত মেশানো হতো মাংসে। আর মহিষের মাংসকে ক্রেতার কাছে বিক্রি করা হতো গরুর মাংস বলে।

শুক্রবার সকালে উপজেলা সড়ক বাজারে মাংসের দোকানগুলোতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ কে এম শরীফুল হক ক্রেতা সেজে এ অভিযান চালিয়ে ফ্রিজ থেকে বোতল ভর্তি গরুর পুরোনো ৬ লিটার রক্ত জব্দ করেছেন। এই রক্ত গুলো পুরোনো মাংসের মধ্যে মিশিয়ে বিক্রি করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল হক জানান, সকালে ক্রেতা সেজে সড়ক বাজার এলাকার সব কটি মাংসের দোকানে ঘুরে দাম এবং মান পর্যবেক্ষণ করেন। পরবর্তীতে থানা-পুলিশ ও স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো. রফিকুল ইসলামকে সাথে নিয়ে দোকান গুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানো হয়। মাংসের দোকাগুলোতে ফ্রিজ গুলো খুলে দেখা যায় বোতল ভর্তি গরুর পুরোনো রক্ত রাখা হয়েছে। পরে বোতলভর্তি রক্ত জব্দ করে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মাংস সংরক্ষণ এবং গরুর নামে মহিষের মাংস বিক্রি ও মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় ভোক্তা অধিকার আইনে ৬ টি দোকানদারকে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি মেয়াদোত্তীর্ণ মাংস জব্দ করে তাৎক্ষণিক জরিমানা আদায় করা হয়। পরবর্তীতে এই সব পাওয়া গেলে কঠিন শাস্তির ব্যাপারে দোকান মালিকদের সতর্ক করে দেয়া হয়েছে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল হক বলেন পুরো রমজান মাস জুড়ে অভিযান চলবে।