ঢাকা ১১:১১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo এমপি আনার খুন: রহস্যময় রূপে শীর্ষ দুই ব্যবসায়ী Logo রূপালী ব্যাংকের ডিজিএম কর্তৃক সহকর্মী নারীকে যৌন হয়রানি: ধামাচাপা দিতে মরিয়া তদন্ত কমিটি Logo প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা হাতিয়ে বহাল তবিয়তে মাদারীপুরের দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারl Logo যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় Logo ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান Logo টাটা মটরস বাংলাদেশে উদ্বোধন করলো টাটা যোদ্ধা Logo আশা শিক্ষা কর্মসূচী কর্তৃক অভিভাবক মতবিনিময় সভা Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১




৩২ বার হেরে এবার প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৭:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০১৯ ৯৩ বার পড়া হয়েছে

ড. শ্যাম বাবু ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে চান। ছবি: সংগৃহীত

সব ধরনের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। নির্বাচন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত হেরেছেন ৩২ বার। কিন্তু তাতেও দমে যাননি। এবার লোকসভা নির্বাচনে সংসদ সদস্য পদে জিতলে লড়বেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে। এমন ঘোষণাই দিয়েছেন ড. শ্যাম বাবু সুবুধি।

ড. শ্যাম বাবুর বয়স ৮৪ বছর। ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের বাসিন্দা। ১৯৬২ সাল থেকে নির্বাচন করছেন তিনি।

জীবনের অন্তিম সময়ে এসে সর্বোচ্চ পদে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্যাম বাবু। এবার লড়াই করবেন উড়িষ্যার আসকা ও বেরহামপুর আসন থেকে। প্রতিবার নির্বাচনী লড়াইয়ে হারলেও এবার জয়ী হওয়ার বিষয়ে আশাবাদী এ বৃদ্ধ। জয়ী হলেই প্রার্থী হবেন সরকারের সর্বোচ্চ পদে।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এক টুইটে জানায়, ড. শ্যাম ৬ দশক ধরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লোকসভা ও রাজ্যসভা নির্বাচনে লড়েছেন। কিন্তু কোনোবারই জিততে পারেননি তিনি। তবে বারবার প্রার্থী হওয়া তার একটিই কারণ- রাজ্যের দুর্নীতিকে নির্মূল করা।

শ্যাম বাবু বলেন, ‘৩২ বার আমি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি এবং প্রতিবারই হেরেছি। কিন্তু তার পরও দুর্নীতির বিরুদ্ধে এই সংগ্রাম আমাকে চালিয়ে যেতে হবে।’

নির্বাচনে প্রতীক ক্রিকেট ব্যাট বেছে নিয়েছেন। যাতে লেখা ‘প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী’। তিনি বলেন, ‘হারি-জিতি পরোয়া করি না। দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়েই যাব।’

অনেকেই শ্যাম বাবুর সাহসী পদক্ষেপের প্রশংসা করছেন। তিনি একাই মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চাইছেন।

ভারতীয় নাগরিক ড. শ্যাম বাবু সুবুধি। ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের এই বাসিন্দা জীবনের অন্তিম সময়ে এসে সর্বোচ্চ পদে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। লড়াই করবেন উড়িষ্যার আসকা ও বেরহামপুর আসন থেকে।

প্রসঙ্গত এবার সাত ধাপে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে। প্রথম দফায় আগামী ১১ এপ্রিল ২০টি রাজ্যের ৯১ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে। ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয় ধাপে ১৩ রাজ্যের ৯৭ আসনে, ২৩ এপ্রিল তৃতীয় ধাপে ১৪ রাজ্যের ১১৫ আসনে, ২৯ এপ্রিল চতুর্থ ধাপে ৯টি রাজ্যের ৭১ আসনে, ৬ মে পঞ্চম ধাপে ৭ রাজ্যের ৫১ আসনে, ১২ মে ষষ্ঠ ধাপে ৭ রাজ্যের ৫৯ আসনে এবং ১৯ মে সর্বশেষ ধাপে ভোট হবে ৮ রাজ্যের ৫৯ আসনে।

সাত ধাপে ভোটগ্রহণের পর ২৩ মে ভোট গণনা করে ফল প্রকাশ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




৩২ বার হেরে এবার প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী!

আপডেট সময় : ০৪:৪৭:৩২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০১৯

ড. শ্যাম বাবু ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে চান। ছবি: সংগৃহীত

সব ধরনের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। নির্বাচন করতে গিয়ে এ পর্যন্ত হেরেছেন ৩২ বার। কিন্তু তাতেও দমে যাননি। এবার লোকসভা নির্বাচনে সংসদ সদস্য পদে জিতলে লড়বেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে। এমন ঘোষণাই দিয়েছেন ড. শ্যাম বাবু সুবুধি।

ড. শ্যাম বাবুর বয়স ৮৪ বছর। ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের বাসিন্দা। ১৯৬২ সাল থেকে নির্বাচন করছেন তিনি।

জীবনের অন্তিম সময়ে এসে সর্বোচ্চ পদে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শ্যাম বাবু। এবার লড়াই করবেন উড়িষ্যার আসকা ও বেরহামপুর আসন থেকে। প্রতিবার নির্বাচনী লড়াইয়ে হারলেও এবার জয়ী হওয়ার বিষয়ে আশাবাদী এ বৃদ্ধ। জয়ী হলেই প্রার্থী হবেন সরকারের সর্বোচ্চ পদে।

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই এক টুইটে জানায়, ড. শ্যাম ৬ দশক ধরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লোকসভা ও রাজ্যসভা নির্বাচনে লড়েছেন। কিন্তু কোনোবারই জিততে পারেননি তিনি। তবে বারবার প্রার্থী হওয়া তার একটিই কারণ- রাজ্যের দুর্নীতিকে নির্মূল করা।

শ্যাম বাবু বলেন, ‘৩২ বার আমি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি এবং প্রতিবারই হেরেছি। কিন্তু তার পরও দুর্নীতির বিরুদ্ধে এই সংগ্রাম আমাকে চালিয়ে যেতে হবে।’

নির্বাচনে প্রতীক ক্রিকেট ব্যাট বেছে নিয়েছেন। যাতে লেখা ‘প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী’। তিনি বলেন, ‘হারি-জিতি পরোয়া করি না। দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়েই যাব।’

অনেকেই শ্যাম বাবুর সাহসী পদক্ষেপের প্রশংসা করছেন। তিনি একাই মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চাইছেন।

ভারতীয় নাগরিক ড. শ্যাম বাবু সুবুধি। ভারতের উড়িষ্যা রাজ্যের এই বাসিন্দা জীবনের অন্তিম সময়ে এসে সর্বোচ্চ পদে লড়াই করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। লড়াই করবেন উড়িষ্যার আসকা ও বেরহামপুর আসন থেকে।

প্রসঙ্গত এবার সাত ধাপে ভারতের লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করা হবে। প্রথম দফায় আগামী ১১ এপ্রিল ২০টি রাজ্যের ৯১ আসনে ভোটগ্রহণ করা হবে। ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয় ধাপে ১৩ রাজ্যের ৯৭ আসনে, ২৩ এপ্রিল তৃতীয় ধাপে ১৪ রাজ্যের ১১৫ আসনে, ২৯ এপ্রিল চতুর্থ ধাপে ৯টি রাজ্যের ৭১ আসনে, ৬ মে পঞ্চম ধাপে ৭ রাজ্যের ৫১ আসনে, ১২ মে ষষ্ঠ ধাপে ৭ রাজ্যের ৫৯ আসনে এবং ১৯ মে সর্বশেষ ধাপে ভোট হবে ৮ রাজ্যের ৫৯ আসনে।

সাত ধাপে ভোটগ্রহণের পর ২৩ মে ভোট গণনা করে ফল প্রকাশ করা হবে।