ঢাকা ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ৩০ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম Logo কুবি বাংলা বিভাগের অ্যালামনাইদের ইফতার ও দোয়া মাহফিল




জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে জমি দখল: বি বাড়িয়া বিআরটিএ সহকারি পরিচালকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৩৭:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১ ১২৬ বার পড়া হয়েছে

পিন্টু শেখ: জালিয়াতি মামলায় বিআরটিএ’র সহকারি পরিচালক আলী আহসান মিলনের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
জালিয়াতি মামলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিআরটিয়ের সহকারি পরিচালক আলী আহসান মিলনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। ডিএমপির শ্যামপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে ওয়ারেন্ট তামিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
রাজধানীর জুরাইন এলাকার বাসিন্দা প্রবাসী খালেদ ইবনে এরশাদের জমি জাল জালিয়াতির মাধ্যমে জোরপূর্বক দখলে নেন আলী আহসান মিলন। এ ঘটনায় খালেদ ইবনে এরশাদ গত ১৮ অক্টেবর-২০২১ তারিখে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ঢাকার অধীনে একটি সিআর মামলা দায়ের করলে উক্ত মামলায় আদালত এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। সি আর মামলা নং-০৭/২১।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, খালেদ ইবনে এরশাদ দীর্ঘদিন দেশের বাহিরে থাকায় আলী আহসান মিলন সুযোগ পেয়ে তার ৪৫৬৪ নং খতিয়ানের ১৫০৫২ নং দাগের জমি দখলে নিয়ে জাল দলিল তৈরি করে অনেক বছর যাবত ভোগ দখল করে আসছেন।
মামলার বাদি খালেদ ইবনে এরাশাদ বলেন, আমি ছোট বেলা থেকেই দেশের বাইরে ছিলাম। ২০২০ সালে দেশে এসে আমার জায়গা জমি বুঝে নেয়ার চেষ্টা করি। এ সময় জানতে পারি আমার জুরাইন কমিশনার রোডের চেয়ারম্যান বাড়ী মোড়ের জমি দখলে আছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিআরটিএ’র সহকারি পরিচালক আলী আহসান মিলন। তার কাছে জমি দখলের কারণ জানতে চাইলে তিনি ২০০৫ সালে এই জমি কিনে নিয়েছেন বলে দাবি করেন!
খালেদ আরো বলেন, ২০০৪ সালে আমার মা লন্ডনে আমার কাছে ছিলেন এবং সেখানেই তিনি মারা যান। আলী আহসান মিলন যেদিন জমি রেজিস্ট্রেশনের তারিখ দেখিয়েছেন, সেই দিন আমার মা লন্ডনের এক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি ছিলেন। ওই দলিলে আমার মায়ের স্বাক্ষর কিভাবে এলো? এই দলিলটি সম্পূর্ন মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন ও জাল জালিয়াতিমূলক। একারণে আমি আদালতের নিকট সুবিচার প্রার্থনা করেছি।
উল্লেখ্য, সাবেক ছাত্রদল নেতা আলী আহসান মিলনের শ্বশুর আবদুস সালাম খান ছিলেন জুরাইনের সাবেক ৮৯ নং ওয়ার্ড (বর্তমান ৫৩ নং) বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
এ বিষয়ে শ্যামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হবে মো. মফিজুল আলম বলেন, ওয়ারেন্টের কপি হাতে পেলে আদালতের নির্দেশ তামিল করা হবে এবং আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে আলী আহসান মিলনের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে জমি দখল: বি বাড়িয়া বিআরটিএ সহকারি পরিচালকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

আপডেট সময় : ১১:৩৭:২১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১

পিন্টু শেখ: জালিয়াতি মামলায় বিআরটিএ’র সহকারি পরিচালক আলী আহসান মিলনের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
জালিয়াতি মামলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিআরটিয়ের সহকারি পরিচালক আলী আহসান মিলনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত। ডিএমপির শ্যামপুর থানার অফিসার ইনচার্জকে ওয়ারেন্ট তামিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
রাজধানীর জুরাইন এলাকার বাসিন্দা প্রবাসী খালেদ ইবনে এরশাদের জমি জাল জালিয়াতির মাধ্যমে জোরপূর্বক দখলে নেন আলী আহসান মিলন। এ ঘটনায় খালেদ ইবনে এরশাদ গত ১৮ অক্টেবর-২০২১ তারিখে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ঢাকার অধীনে একটি সিআর মামলা দায়ের করলে উক্ত মামলায় আদালত এই গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। সি আর মামলা নং-০৭/২১।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, খালেদ ইবনে এরশাদ দীর্ঘদিন দেশের বাহিরে থাকায় আলী আহসান মিলন সুযোগ পেয়ে তার ৪৫৬৪ নং খতিয়ানের ১৫০৫২ নং দাগের জমি দখলে নিয়ে জাল দলিল তৈরি করে অনেক বছর যাবত ভোগ দখল করে আসছেন।
মামলার বাদি খালেদ ইবনে এরাশাদ বলেন, আমি ছোট বেলা থেকেই দেশের বাইরে ছিলাম। ২০২০ সালে দেশে এসে আমার জায়গা জমি বুঝে নেয়ার চেষ্টা করি। এ সময় জানতে পারি আমার জুরাইন কমিশনার রোডের চেয়ারম্যান বাড়ী মোড়ের জমি দখলে আছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিআরটিএ’র সহকারি পরিচালক আলী আহসান মিলন। তার কাছে জমি দখলের কারণ জানতে চাইলে তিনি ২০০৫ সালে এই জমি কিনে নিয়েছেন বলে দাবি করেন!
খালেদ আরো বলেন, ২০০৪ সালে আমার মা লন্ডনে আমার কাছে ছিলেন এবং সেখানেই তিনি মারা যান। আলী আহসান মিলন যেদিন জমি রেজিস্ট্রেশনের তারিখ দেখিয়েছেন, সেই দিন আমার মা লন্ডনের এক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি ছিলেন। ওই দলিলে আমার মায়ের স্বাক্ষর কিভাবে এলো? এই দলিলটি সম্পূর্ন মিথ্যা বানোয়াট ভিত্তিহীন ও জাল জালিয়াতিমূলক। একারণে আমি আদালতের নিকট সুবিচার প্রার্থনা করেছি।
উল্লেখ্য, সাবেক ছাত্রদল নেতা আলী আহসান মিলনের শ্বশুর আবদুস সালাম খান ছিলেন জুরাইনের সাবেক ৮৯ নং ওয়ার্ড (বর্তমান ৫৩ নং) বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
এ বিষয়ে শ্যামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হবে মো. মফিজুল আলম বলেন, ওয়ারেন্টের কপি হাতে পেলে আদালতের নির্দেশ তামিল করা হবে এবং আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ বিষয়ে আলী আহসান মিলনের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।