ঢাকা ০৯:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম Logo কুবি বাংলা বিভাগের অ্যালামনাইদের ইফতার ও দোয়া মাহফিল




দুইবারের এমপি’র ঠাই হল প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া গৃহহীনদের ঘরে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৩৯:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১ ৮৫ বার পড়া হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি;

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার দেয়া জমি ও ঘর পেয়েছেন দুবারের সাবেক সংসদ সদস্য এনামুল হক জজ মিয়া। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে এ উপজেলায় তার সাথে আরও ১৯৯ জনকে ঘরের চাবি ও দলিল বুঝিয়ে দিয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বাদল, পৌর মেয়র এসএম ইকবাল হোসেন সুমন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কাবেরী রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, এনামুল হক জজ মিয়া জাতীয় পার্টির সাবেক চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের পালিত মেয়ে নাজুকে ১৯৭২ সালে বিয়ে করেন। পরে ১৯৮৩ ও ১৯৮৬ সালে ময়মনসিংহ-১০ (গফরগাঁও) আসন থেকে জাতীয় পার্টির হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

এক সময় গফরগাঁও পৌর শহর ও ঢাকায় তার বিলাসবহুল বাড়ি-গাড়ি ছিল। কিন্তু বর্তমানে তিনি নিঃস্ব। সর্বশেষ ১২ শতক জমি মসজিদের নামে লিখে দিয়ে তিনি স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে এক রুমের ভাড়া বাসায় থাকছেন।

জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য ময়মনসিংহে ৪ হাজার ৭০৮ জন ভূমি ও গৃহহীন পরিবারের তালিকা করা হয়। এর মধ্যে জেলার ১৩ উপজেলায় ১৪৪টি স্পটে ১ হাজার ৩০৫টি গৃহের অনুমোদন দেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, সদরে ২৫০টি, গফরগাঁওয়ে ২০০টি, ভালুকায় ১৯৯টি, গৌরীপুরে ১০২টি, হালুয়াঘাটে ১০০টি, ফুলপুরে ৯৭টি, নান্দাইলে ৬২টি, ঈশ্বরগঞ্জ, মুক্তাগাছা, ত্রিশাল, ফুলবাড়িয়া, তারাকান্দায় ৫০টি করে এবং ধোবাউড়ায় ৪৫টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। তালিকায় থাকা বাকিদেরও পর্যায়ক্রমে প্রকল্পের আওতায় আনা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




দুইবারের এমপি’র ঠাই হল প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া গৃহহীনদের ঘরে

আপডেট সময় : ০৮:৩৯:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১

জেলা প্রতিনিধি;

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার দেয়া জমি ও ঘর পেয়েছেন দুবারের সাবেক সংসদ সদস্য এনামুল হক জজ মিয়া। শনিবার (২৩ জানুয়ারি) সকালে এ উপজেলায় তার সাথে আরও ১৯৯ জনকে ঘরের চাবি ও দলিল বুঝিয়ে দিয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বাদল, পৌর মেয়র এসএম ইকবাল হোসেন সুমন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কাবেরী রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, এনামুল হক জজ মিয়া জাতীয় পার্টির সাবেক চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের পালিত মেয়ে নাজুকে ১৯৭২ সালে বিয়ে করেন। পরে ১৯৮৩ ও ১৯৮৬ সালে ময়মনসিংহ-১০ (গফরগাঁও) আসন থেকে জাতীয় পার্টির হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

এক সময় গফরগাঁও পৌর শহর ও ঢাকায় তার বিলাসবহুল বাড়ি-গাড়ি ছিল। কিন্তু বর্তমানে তিনি নিঃস্ব। সর্বশেষ ১২ শতক জমি মসজিদের নামে লিখে দিয়ে তিনি স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে এক রুমের ভাড়া বাসায় থাকছেন।

জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য ময়মনসিংহে ৪ হাজার ৭০৮ জন ভূমি ও গৃহহীন পরিবারের তালিকা করা হয়। এর মধ্যে জেলার ১৩ উপজেলায় ১৪৪টি স্পটে ১ হাজার ৩০৫টি গৃহের অনুমোদন দেয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, সদরে ২৫০টি, গফরগাঁওয়ে ২০০টি, ভালুকায় ১৯৯টি, গৌরীপুরে ১০২টি, হালুয়াঘাটে ১০০টি, ফুলপুরে ৯৭টি, নান্দাইলে ৬২টি, ঈশ্বরগঞ্জ, মুক্তাগাছা, ত্রিশাল, ফুলবাড়িয়া, তারাকান্দায় ৫০টি করে এবং ধোবাউড়ায় ৪৫টি ঘর নির্মাণ করা হয়েছে। তালিকায় থাকা বাকিদেরও পর্যায়ক্রমে প্রকল্পের আওতায় আনা হবে।