ঢাকা ০৭:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




পিরোজপুরে প্রাথমিক শিক্ষক কন্যার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৯:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০ ৬৬ বার পড়া হয়েছে

পিরোজপুর প্রতিনিধি; 

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে তানিয়া আক্তার (২৯) নামের এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে ওই গৃহবধূর আত্মহত্যা করেন এবং ওই দিন দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করেন পুলিশ।

তিনি উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের সেনা সদস্য ইব্রাহীম হোসেনের স্ত্রী ও ইন্দুরকানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলীর কন্যা।

স্থানীয় ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই গৃহবধূ উপজেলার বাজার সংলগ্ন চারাখালী এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। গত ১৫/১৬ বছর আগে ওই গৃহবধূর মা তার পিতা স্কুল শিক্ষক সেকেন্দার আলীকে ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে বিয়ে করেন। তার পিতার আর কোন সন্তান না থাকায় ওই একই বাসার পাশাপাশি থাকতেন তার স্কুল শিক্ষক পিতা।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) রাতে ওই গৃহবধূ তার মায়ের সঙ্গে মুঠো ফোনে কথা বলেন। এ নিয়ে বাড়িতে ছুটিতে থাকা সেনা সদস্য স্বামী ইব্রাহীম হোসেনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ওই দিন বেলা ১১টার দিকে বসত ঘরের তাদের নিজস্ব রুমের ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

নিহতের স্বামী ইব্রাহীম হোসেন জানান, তিনি সকালের খাবার খেয়ে চাল কিনতে বাজারে যান। বাসায় ফিরে ঘরের দরজা খুলে আমাদের নিজস্ব রুমে যাই। সেখানে তার (স্ত্রী) মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে থানা পুলিশকে খবর দেই।

থানা পুলিশের অফিসার ইন চার্জ মো. হাবিবুর রহমান জানান, প্রাথমিকভাবে ওই গৃহবধু তার স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ময়না তদন্তের জন্য তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




পিরোজপুরে প্রাথমিক শিক্ষক কন্যার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৪:৫৯:৩১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২০

পিরোজপুর প্রতিনিধি; 

পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে তানিয়া আক্তার (২৯) নামের এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) বেলা ১১টার দিকে ওই গৃহবধূর আত্মহত্যা করেন এবং ওই দিন দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করেন পুলিশ।

তিনি উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের সেনা সদস্য ইব্রাহীম হোসেনের স্ত্রী ও ইন্দুরকানী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলীর কন্যা।

স্থানীয় ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই গৃহবধূ উপজেলার বাজার সংলগ্ন চারাখালী এলাকায় একটি ভাড়া বাসায় থাকতেন। গত ১৫/১৬ বছর আগে ওই গৃহবধূর মা তার পিতা স্কুল শিক্ষক সেকেন্দার আলীকে ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে বিয়ে করেন। তার পিতার আর কোন সন্তান না থাকায় ওই একই বাসার পাশাপাশি থাকতেন তার স্কুল শিক্ষক পিতা।

বুধবার (১৫ এপ্রিল) রাতে ওই গৃহবধূ তার মায়ের সঙ্গে মুঠো ফোনে কথা বলেন। এ নিয়ে বাড়িতে ছুটিতে থাকা সেনা সদস্য স্বামী ইব্রাহীম হোসেনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ওই দিন বেলা ১১টার দিকে বসত ঘরের তাদের নিজস্ব রুমের ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

নিহতের স্বামী ইব্রাহীম হোসেন জানান, তিনি সকালের খাবার খেয়ে চাল কিনতে বাজারে যান। বাসায় ফিরে ঘরের দরজা খুলে আমাদের নিজস্ব রুমে যাই। সেখানে তার (স্ত্রী) মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে থানা পুলিশকে খবর দেই।

থানা পুলিশের অফিসার ইন চার্জ মো. হাবিবুর রহমান জানান, প্রাথমিকভাবে ওই গৃহবধু তার স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। ময়না তদন্তের জন্য তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।