ঢাকা ০২:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :




বাকেরগঞ্জের শিশু নির্যাতনের ভিডিও ভাইরালের পর আটক দুই

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৬:৩১:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০ ৬৫ বার পড়া হয়েছে

নিয়াজ মো. বরিশাল ব্যুরো || বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় কথিত মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে কোমরে দড়ি বেঁধে তিন কিশোরকে মধ্যযুগীয় বর্বর নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হয় ইতিমধ্যেই।
মঙ্গলবার সকালে কিশোর নির্যাতনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা ভাইরাল হয়। গত রোববার বাকেরগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ডের ভরপাশা গ্রামের একটি ধানক্ষেতে প্রকাশ্য এ ঘটনা ঘটে । এক আত্মিয়ের মোবাইল চুরির অভিযোগে সন্দেহজনক ভাবে ৩ কিশোরকে দড়ি দিয়ে বেধে নির্যাতন করেন পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ইদ্রিস সরদার এবং তার এক সহযোগী মিজান মাঝি ও আরও সহযোগী তিন চারজন । এসময় সেখানে উপস্থিত জনৈক ব্যাক্তি নির্যাতনের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে।
আজ নির্যাতনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং তার এক সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সাংবাদিকরা বরিশালের পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট সকলের নজরে আনেন। এরপর পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম ফুটেজ দেখে ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করেন।
নির্যাতিতরা হল- একই এলাকার বাসিন্দা তারেক মিরা, হাসান সিকদার এবং শুভ হাওলাদার। বর্বর এ ঘটনায় নির্যাতিত’র বাবা আয়নাল মিরা বাদী হয়ে বাকেরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন থানা ওসিথানা কতৃপক্ষ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বাকেরগঞ্জের শিশু নির্যাতনের ভিডিও ভাইরালের পর আটক দুই

আপডেট সময় : ০৬:৩১:৫৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল ২০২০

নিয়াজ মো. বরিশাল ব্যুরো || বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় কথিত মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে কোমরে দড়ি বেঁধে তিন কিশোরকে মধ্যযুগীয় বর্বর নির্যাতনের ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হয় ইতিমধ্যেই।
মঙ্গলবার সকালে কিশোর নির্যাতনের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা ভাইরাল হয়। গত রোববার বাকেরগঞ্জ উপজেলার পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ডের ভরপাশা গ্রামের একটি ধানক্ষেতে প্রকাশ্য এ ঘটনা ঘটে । এক আত্মিয়ের মোবাইল চুরির অভিযোগে সন্দেহজনক ভাবে ৩ কিশোরকে দড়ি দিয়ে বেধে নির্যাতন করেন পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ইদ্রিস সরদার এবং তার এক সহযোগী মিজান মাঝি ও আরও সহযোগী তিন চারজন । এসময় সেখানে উপস্থিত জনৈক ব্যাক্তি নির্যাতনের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে।
আজ নির্যাতনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পৌর এলাকার ৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং তার এক সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সাংবাদিকরা বরিশালের পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট সকলের নজরে আনেন। এরপর পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম ফুটেজ দেখে ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতার করেন।
নির্যাতিতরা হল- একই এলাকার বাসিন্দা তারেক মিরা, হাসান সিকদার এবং শুভ হাওলাদার। বর্বর এ ঘটনায় নির্যাতিত’র বাবা আয়নাল মিরা বাদী হয়ে বাকেরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন থানা ওসিথানা কতৃপক্ষ।