ঢাকা ১১:২১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo পুলিশের হামলার পরও ৬ ঘন্টা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধে কুবি শিক্ষার্থীর Logo শাবিপ্রবির প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. কবির হোসেনের সফলতার একবছর পূর্তি Logo এবার আলোচনায় আওয়ামী লীগের থানা ওয়ার্ড কমিটিতে পদ বাণিজ্যে! Logo প্রত্যয় স্কিম প্রত্যাহার দাবি Logo শাবি উপাচার্যের কৃতিত্ব; মাত্র ৪বছরেই আয়োজন করছেন ২ বার কনভোকেশন Logo কুবিতে সমাপ্ত হলো আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব Logo পর্দা নামলো থিয়েটার কুবি আয়োজিত দুই দিনের আন্তর্জাতিক নাট্য উৎসব Logo রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীর কমান্ড্যান্ট শহীদ উল্লাহর সম্পদের খনি  Logo সাবরেজিস্ট্রার অফিসের হিসেবে ৬৭৭ কোটি টাকার নয় ছয় Logo সাংবাদিকদের নিয়ে মতিউরের স্ত্রীর বিতর্কিত বক্তব্যের প্রতিবাদ: হাজার কোটি টাকা মানহানী মামলার হুমকি বিএমইউজে’ র




কাশ্মীর সীমান্তে ভারতের গোলাবর্ষণ, দুই পাকিস্তানি নিহত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৫:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯ ৮০ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
সীমান্ত লঙ্ঘন করে পাক অধিকৃত কাশ্মীর লক্ষ্য করে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর ছোড়া গুলিতে পাকিস্তানি দুই বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া এতে আহত হয়েছেন আরো অন্তত একজন। সোমবার পাকিস্তান সরকারের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিরোধপূর্ণ কাশ্মীর অঞ্চলে সীমান্ত লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণ করেছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। গুলিতে দু’জন নিহত ও একজন আহত হয়েছেন।

হিমালয় অঞ্চলের এই উপত্যকায় প্রায়ই দুই দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের মাঝে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। তবে প্রতিবেশি চিরবৈরী দেশ দুটির মাঝে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে গত ৫ আগস্ট। ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর উত্তেজনা নতুন মাত্রা পায়। দুই দেশই পাল্টাপাল্টি পারমাণবিক হামলার হুমকি দিয়ে আসছে।

কাশ্মীরে কারফিউ জারি, মোবাইল নেটওয়ার্ক, ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্নের পাশাপাশি কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার। পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই প্রতিবেশির মাঝে বিভক্ত কাশ্মীর। নিজেদের নিয়ন্ত্রণে থাকা অংশ ছাড়াও কাশ্মীরের অপর অংশের মালিকানা দাবি করছে উভয় দেশ।

সোমবার পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারত যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে হামলা অব্যাহত রেখেছে। ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনী কোনো ধরনের উসকানি ছাড়াই রোববার পাক অধিকৃত কাশ্মীরে গোলাবর্ষণ করেছে। অধিকৃত কাশ্মীরের হট স্প্রিং ও চিরিকোট গ্রামের সীমান্তের কাছে গোলাবর্ষণে পাকিস্তানের দুই বেসামরিক নিহত ও একজন আহত হয়েছেন।

পাক এই মন্ত্রণালয় বলছে, সীমান্তে অব্যাহত অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘনের ঘটনায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানাতে ভারতীয় এক রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে পাকিস্তান। ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনীর সীমান্ত লঙ্ঘনের ঘটনা আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে ওই বিবৃতিতে জানিয়েছে ইসলামাবাদ।

১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছে থেকে স্বাধীনতা লাভের পর এ পর্যন্ত তিনবার যুদ্ধে জড়িয়েছে ভারত-পাকিস্তান; এর মধ্যে দুটি যুদ্ধ হয়েছে কাশ্মীরের মালিকানা কেন্দ্র করে।

ভারত বলছে, কাশ্মীরের অচলাবস্থা নিরসনে ধীরে ধীরে ফোন সংযোগ স্থাপন করা হচ্ছে। গ্রামীণ এলাকায় সরকারি বাস সেবা চালু করা হয়েছে। তবে কাশ্মীরের প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত শ্রীনগরে সেনাবাহিনীর টহলের পাশাপাশি জনসাধারণের চলাচলের ওপর কড়াকড়ি এখনও অব্যাহত রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




কাশ্মীর সীমান্তে ভারতের গোলাবর্ষণ, দুই পাকিস্তানি নিহত

আপডেট সময় : ০৫:৪৫:১৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক;
সীমান্ত লঙ্ঘন করে পাক অধিকৃত কাশ্মীর লক্ষ্য করে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর ছোড়া গুলিতে পাকিস্তানি দুই বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া এতে আহত হয়েছেন আরো অন্তত একজন। সোমবার পাকিস্তান সরকারের এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিরোধপূর্ণ কাশ্মীর অঞ্চলে সীমান্ত লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণ করেছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। গুলিতে দু’জন নিহত ও একজন আহত হয়েছেন।

হিমালয় অঞ্চলের এই উপত্যকায় প্রায়ই দুই দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের মাঝে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। তবে প্রতিবেশি চিরবৈরী দেশ দুটির মাঝে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে গত ৫ আগস্ট। ভারত অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর উত্তেজনা নতুন মাত্রা পায়। দুই দেশই পাল্টাপাল্টি পারমাণবিক হামলার হুমকি দিয়ে আসছে।

কাশ্মীরে কারফিউ জারি, মোবাইল নেটওয়ার্ক, ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্নের পাশাপাশি কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার। পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই প্রতিবেশির মাঝে বিভক্ত কাশ্মীর। নিজেদের নিয়ন্ত্রণে থাকা অংশ ছাড়াও কাশ্মীরের অপর অংশের মালিকানা দাবি করছে উভয় দেশ।

সোমবার পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারত যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে হামলা অব্যাহত রেখেছে। ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনী কোনো ধরনের উসকানি ছাড়াই রোববার পাক অধিকৃত কাশ্মীরে গোলাবর্ষণ করেছে। অধিকৃত কাশ্মীরের হট স্প্রিং ও চিরিকোট গ্রামের সীমান্তের কাছে গোলাবর্ষণে পাকিস্তানের দুই বেসামরিক নিহত ও একজন আহত হয়েছেন।

পাক এই মন্ত্রণালয় বলছে, সীমান্তে অব্যাহত অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘনের ঘটনায় আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানাতে ভারতীয় এক রাষ্ট্রদূতকে তলব করেছে পাকিস্তান। ভারতীয় নিরাপত্তাবাহিনীর সীমান্ত লঙ্ঘনের ঘটনা আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে ওই বিবৃতিতে জানিয়েছে ইসলামাবাদ।

১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছে থেকে স্বাধীনতা লাভের পর এ পর্যন্ত তিনবার যুদ্ধে জড়িয়েছে ভারত-পাকিস্তান; এর মধ্যে দুটি যুদ্ধ হয়েছে কাশ্মীরের মালিকানা কেন্দ্র করে।

ভারত বলছে, কাশ্মীরের অচলাবস্থা নিরসনে ধীরে ধীরে ফোন সংযোগ স্থাপন করা হচ্ছে। গ্রামীণ এলাকায় সরকারি বাস সেবা চালু করা হয়েছে। তবে কাশ্মীরের প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত শ্রীনগরে সেনাবাহিনীর টহলের পাশাপাশি জনসাধারণের চলাচলের ওপর কড়াকড়ি এখনও অব্যাহত রয়েছে।