ঢাকা ১০:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ




বিজয় উৎসবের উদ্বোধন আজ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৪১:৪৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৬ বার পড়া হয়েছে

 

সকালের সংবাদ ডেস্কঃ সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত বর্ণাঢ্য বিজয় উৎসবের উদ্বোধন আজ বৃহস্পতিবার। জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জমান, বিশিষ্ট সাংবাদিক কামাল লোহানী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হাসান ইমাম, লেখক-প্রত্নতত্ত্ববিদ ড. এনামুল হকসহ দেশের শিল্প-সাহিত্যকসহ বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ সম্মিলিতভাবে বিকেল সাড়ে ৩টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ বিজয় উৎসবের উদ্বোধন করবেন।

প্রতি বছরের মত এবারও ঢাকা মহানগর জুড়ে ৮টি মঞ্চে বিজয় উৎসবের আয়োজন করেছে সংগঠনটি। ১৯৯০ সাল থেকে নিরবিচ্ছিন্নভাবে আয়োজিত বিজয় উৎসব ২৯ বছরে পদার্পন করেছে। এ বছর দিবসটির মর্মবাণী ‘স্বাধীনতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের দিন শেষ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবেই বাংলাদেশ’।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মিনারের মূলবেদীতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন, জাতীয় সঙ্গীত ও মুক্তিযুদ্ধের গান পরিবেশিত হবে।

এছাড়া আলোচনা সভা শেষে বিভিন্ন দল ও শিল্পীদের অংশগ্রহণে একক সঙ্গীত, দলীয় সঙ্গীত, একক আবৃতি ও পথনাটক পরিবেশিত হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




বিজয় উৎসবের উদ্বোধন আজ

আপডেট সময় : ১০:৪১:৪৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮

 

সকালের সংবাদ ডেস্কঃ সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত বর্ণাঢ্য বিজয় উৎসবের উদ্বোধন আজ বৃহস্পতিবার। জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জমান, বিশিষ্ট সাংবাদিক কামাল লোহানী, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব হাসান ইমাম, লেখক-প্রত্নতত্ত্ববিদ ড. এনামুল হকসহ দেশের শিল্প-সাহিত্যকসহ বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গ সম্মিলিতভাবে বিকেল সাড়ে ৩টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ বিজয় উৎসবের উদ্বোধন করবেন।

প্রতি বছরের মত এবারও ঢাকা মহানগর জুড়ে ৮টি মঞ্চে বিজয় উৎসবের আয়োজন করেছে সংগঠনটি। ১৯৯০ সাল থেকে নিরবিচ্ছিন্নভাবে আয়োজিত বিজয় উৎসব ২৯ বছরে পদার্পন করেছে। এ বছর দিবসটির মর্মবাণী ‘স্বাধীনতা বিরোধী যুদ্ধাপরাধীদের দিন শেষ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবেই বাংলাদেশ’।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ভাষা আন্দোলন ও মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে মিনারের মূলবেদীতে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন, জাতীয় সঙ্গীত ও মুক্তিযুদ্ধের গান পরিবেশিত হবে।

এছাড়া আলোচনা সভা শেষে বিভিন্ন দল ও শিল্পীদের অংশগ্রহণে একক সঙ্গীত, দলীয় সঙ্গীত, একক আবৃতি ও পথনাটক পরিবেশিত হবে।