হাছান মাহমুদের বক্তব্য কাণ্ডজ্ঞানহীন: রিজভী

সকালের সংবাদ ডেস্ক;সকালের সংবাদ ডেস্ক;
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:২৩ অপরাহ্ণ, ২৭ মে ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক |

কারাবন্দী খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ‘কাণ্ডজ্ঞানহীনের মতো’ বক্তব্য দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, মন্ত্রীদের বক্তব্যে মনে হচ্ছে প্রচ্ছন্নভাবে তারা খালেদা জিয়াকে কারাগারে বিনা চিকিৎসায় হত্যার নতুন ষড়যন্ত্র করছেন।

সোমবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ সব কথা বলেন।

‘সরকার খালেদা জিয়ার সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করে আসছে, আর বিএনপি এ নিয়ে অপরাজনীতি করছে’- তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, তথ্যমন্ত্রীসহ ক্ষমতাসীনরা খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন, তামাশা করছেন। তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য একটি জ্ঞান-বিজ্ঞানের আলো-বাতাসহীন হবু চন্দ্র রাজার গবুচন্দ্র মন্ত্রীর মতো। সাবেক একজন প্রধানমন্ত্রীর প্রতি নিষ্ঠুর আচরণ করা হচ্ছে।

রিজভী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমইউ) হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা হচ্ছে না। প্রকৃতপক্ষে সেখানে তার নামমাত্র চিকিৎসা হচ্ছে। ভর্তির পর এখনো তার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে আসেনি। তিনি বিছানা থেকে উঠতে পারছেন না, কিছু খেতে পারছেন না, হাত-পা নাড়াতে পারছেন না।

‘খালেদা জিয়াকে দেশের অভ্যন্তরের সর্বোচ্চ যে চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব, সেটিই দেওয়া হচ্ছে’- তথ্যমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের জবাবে বিএনপির এই নেতা বলেন, আপনি রোজা-রমজানের দিনেও স্বভাবগত মিথ্যাচার পরিত্যাগ করতে পারেননি। বিএসএমএমইউতে চিকিৎসার পর্যাপ্ত যন্ত্রপাতি নেই বলেই আওয়ামী লীগের নেতা ও মন্ত্রীদের চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়েছিল। তারা কারাবন্দী থাকার সময় স্কয়ার ও ল্যাব এইডে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছিল। খালেদা জিয়া ন্যূনতম চিকিৎসা সেবাটুকুও পাচ্ছেন না।

ঈদের আগেই খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে রিজভী বলেন, জামিনে বাধা প্রদান করবেন না। তাকে তার পছন্দ অনুযায়ী বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসার সুযোগ দিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দলের যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, সহ দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, বেলাল আহমেদ প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :