ঢাকা ০৬:২৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo মঙ্গল শোভাযাত্রা – তাসফিয়া ফারহানা ঐশী Logo সাস্টিয়ান ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর ইফতার মাহফিল সম্পন্ন Logo কুবির চট্টগ্রাম স্টুডেন্টস ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের ইফতার ও পূর্নমিলনী Logo অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদের মায়ের মৃত্যুতে শাবির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্ত চিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের শোক প্রকাশ Logo শাবির অধ্যাপক জহীর উদ্দিনের মায়ের মৃত্যুতে উপাচার্যের শোক প্রকাশ Logo বিশ কোটিতে গণপূর্তের প্রধান হওয়ার মিশনে ‘ছাত্রদল ক্যাডার প্রকৌশলী’! Logo দূর্নীতির রাক্ষস ফায়ার সার্ভিসের এডি আনোয়ার! Logo ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হওয়া শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অবকাঠামোর সংস্কার শুরু Logo বুয়েটে নিয়মতান্ত্রিক ছাত্র রাজনীতির দাবিতে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের মানববন্ধন Logo কুবি উপাচার্যের বক্তব্যের প্রমাণ দিতে শিক্ষক সমিতির সাত দিনের আল্টিমেটাম




রাজধানীর দক্ষিণখানে ছাত্রলীগ সভাপতির বিরূদ্ধে চাঁদাবাজি- মারধরের অভিযোগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০২:৫২:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১ ১৫১ বার পড়া হয়েছে

ষ্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীর দক্ষিণখান মোল্লারটেক, তেঁতুলতলা এলাকায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সন্ধ্যার পর এই সংঘর্ষ বাঁধে। এতে তেঁতুলতলা এলাকার কয়েকজন গুরুতর আহত হয়।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, অত্র তেঁতুলতলা এলাকার একটি ছোট গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীর জুট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে মারামারির সূত্রপাত ঘটে।

ঘটনার অনুসন্ধানে জানা যায়, অত্র এলাকার ছোট একটি গার্মেন্টস রয়েছে। সেখানে মানুন নামের এক ব্যক্তি বৈধভাবে জুট ব্যবসা করে আসছে। ঐ গার্মেন্টসে এক শ্রমিকের বেতন উত্তোলনে আসেন দক্ষিণখান থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শামীম আহমেদ বাপ্পি। বাপ্পি এসেই গার্মেন্টসের গেটে লাথি মারেন ও ভেতরে প্রবেশ করে এমডিসহ কয়েকজনকে মারধর করেন। এক পর্যায়ে বাপ্পি দাবি করেন যে, এই গার্মেন্টসের জুট সব তাকে দিতে হবে। একই এলাকার মামুন (৩২)নামের এক জুট ব্যবসায়ীর সাথে গতকাল দক্ষিণখান থানা ছাত্রলীগের সভাপতি বাপ্পী (৩৪) এর হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে এলাকার কিছু মুরুব্বীদের মাধ্যমে তা সমাধান করা হয়। কিন্তু ২য় রমজান ইফতারের পর ছাত্রলীগ সভাপতি বাপ্পী তার দলবলসহ দেশীয় অস্ত্র সমেত তেঁতুলতলা এলাকায় হামলা করেন। এতে রুবেল, রানা ও মামুন নামের কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মীসহ কয়েকজন গুরুতর আহত হয়।

এ বিষয়ে দক্ষিণখান থানায় একটি মামলা দায়ের করছে আহত রুবেল। যার নং-২৪/১৬-০৪-২০২১ আহত রুবেল জানায়- ইফতারের পর বের হলে দেখতে পাই এলাকার এক ছোট ভাইকে ধরে নিয়ে যায় বাপ্পী ও তার গুন্ডা বাহিনী। আমি বাঁধা দিলে আমাকে এলোপাতাড়ি মারধর করা হয়। আমাকে বাঁচাতে মামুন এগিয়ে এলে তাকেও রামদাঁ দিয়ে হাতে কোপানো হয়। আল্লাহ সহায় ছিল বলে কোনরকমে জানে বেঁচে যাই।
মামুন বলেন- আমি বৈধভাবে জুটের ব্যবসা করি। ছাত্রলীগের বাপ্পী চাঁদা দাবি করলে আমি তা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ক্ষিপ্ত হয় বাপ্পী গ্রুপ ফলে অতর্কিত হামলা চালায় আমাদের উপর।
এ বিষয়ে, দক্ষিণখান থানা ছাত্রলীগের সভাপতি বাপ্পীকে ফোন করলে তিনি ঘটনা অস্বীকার করেন।
এখন পর্যন্ত এলকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। দক্ষিণখান থানা পুলিশ মোল্লারটেক এলাকায় টহল ও তদারকি করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




রাজধানীর দক্ষিণখানে ছাত্রলীগ সভাপতির বিরূদ্ধে চাঁদাবাজি- মারধরের অভিযোগ

আপডেট সময় : ০২:৫২:৫৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১

ষ্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীর দক্ষিণখান মোল্লারটেক, তেঁতুলতলা এলাকায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সন্ধ্যার পর এই সংঘর্ষ বাঁধে। এতে তেঁতুলতলা এলাকার কয়েকজন গুরুতর আহত হয়।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, অত্র তেঁতুলতলা এলাকার একটি ছোট গার্মেন্টস ফ্যাক্টরীর জুট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে মারামারির সূত্রপাত ঘটে।

ঘটনার অনুসন্ধানে জানা যায়, অত্র এলাকার ছোট একটি গার্মেন্টস রয়েছে। সেখানে মানুন নামের এক ব্যক্তি বৈধভাবে জুট ব্যবসা করে আসছে। ঐ গার্মেন্টসে এক শ্রমিকের বেতন উত্তোলনে আসেন দক্ষিণখান থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শামীম আহমেদ বাপ্পি। বাপ্পি এসেই গার্মেন্টসের গেটে লাথি মারেন ও ভেতরে প্রবেশ করে এমডিসহ কয়েকজনকে মারধর করেন। এক পর্যায়ে বাপ্পি দাবি করেন যে, এই গার্মেন্টসের জুট সব তাকে দিতে হবে। একই এলাকার মামুন (৩২)নামের এক জুট ব্যবসায়ীর সাথে গতকাল দক্ষিণখান থানা ছাত্রলীগের সভাপতি বাপ্পী (৩৪) এর হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে এলাকার কিছু মুরুব্বীদের মাধ্যমে তা সমাধান করা হয়। কিন্তু ২য় রমজান ইফতারের পর ছাত্রলীগ সভাপতি বাপ্পী তার দলবলসহ দেশীয় অস্ত্র সমেত তেঁতুলতলা এলাকায় হামলা করেন। এতে রুবেল, রানা ও মামুন নামের কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মীসহ কয়েকজন গুরুতর আহত হয়।

এ বিষয়ে দক্ষিণখান থানায় একটি মামলা দায়ের করছে আহত রুবেল। যার নং-২৪/১৬-০৪-২০২১ আহত রুবেল জানায়- ইফতারের পর বের হলে দেখতে পাই এলাকার এক ছোট ভাইকে ধরে নিয়ে যায় বাপ্পী ও তার গুন্ডা বাহিনী। আমি বাঁধা দিলে আমাকে এলোপাতাড়ি মারধর করা হয়। আমাকে বাঁচাতে মামুন এগিয়ে এলে তাকেও রামদাঁ দিয়ে হাতে কোপানো হয়। আল্লাহ সহায় ছিল বলে কোনরকমে জানে বেঁচে যাই।
মামুন বলেন- আমি বৈধভাবে জুটের ব্যবসা করি। ছাত্রলীগের বাপ্পী চাঁদা দাবি করলে আমি তা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ক্ষিপ্ত হয় বাপ্পী গ্রুপ ফলে অতর্কিত হামলা চালায় আমাদের উপর।
এ বিষয়ে, দক্ষিণখান থানা ছাত্রলীগের সভাপতি বাপ্পীকে ফোন করলে তিনি ঘটনা অস্বীকার করেন।
এখন পর্যন্ত এলকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। দক্ষিণখান থানা পুলিশ মোল্লারটেক এলাকায় টহল ও তদারকি করছে।