ঢাকা ১০:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ




কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালে পরিচালক নিয়োগ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১১:৫৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৩ এপ্রিল ২০২০ ৭৮ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন রিপোর্ট | 

নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য চিকিৎসায় বিশেষায়িত কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালের কার্যক্রম বেগবান করতে পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ডা. সারওয়ার উল আলম।
রোববার (১২ এপ্রিল) রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, পরিচালক নিয়োগের এ সংক্রান্ত আদেশটি শনিবার (১১ এপ্রিল) দেওয়া হয়।
ডা. আবুল কালাম আজাদ আরও বলেন, দেড়শ-দুইশ শয্যার হাসপাতালে পরিচালকের পদ নেই। সে কারণে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে এতদিন কোনো পরিচালক ছিল না। তবে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে এ হাসপাতালে পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় সুপার নিউমারারি (অতিরিক্ত) হিসেবে এই পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পদটি বিলুপ্ত হয়ে যাবে।
এর আগে এই হাসপাতালে ডা. মোহাম্মদ সেহাব উদ্দীন তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন। তিনি সহকারী পরিচালক পদমর্যাদার অধিকারী।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালে পরিচালক নিয়োগ

আপডেট সময় : ০৯:১১:৫৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৩ এপ্রিল ২০২০

অনলাইন রিপোর্ট | 

নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের জন্য চিকিৎসায় বিশেষায়িত কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতালের কার্যক্রম বেগবান করতে পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পরিচালক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ডা. সারওয়ার উল আলম।
রোববার (১২ এপ্রিল) রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, পরিচালক নিয়োগের এ সংক্রান্ত আদেশটি শনিবার (১১ এপ্রিল) দেওয়া হয়।
ডা. আবুল কালাম আজাদ আরও বলেন, দেড়শ-দুইশ শয্যার হাসপাতালে পরিচালকের পদ নেই। সে কারণে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে এতদিন কোনো পরিচালক ছিল না। তবে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে এ হাসপাতালে পরিচালক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় সুপার নিউমারারি (অতিরিক্ত) হিসেবে এই পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পদটি বিলুপ্ত হয়ে যাবে।
এর আগে এই হাসপাতালে ডা. মোহাম্মদ সেহাব উদ্দীন তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন। তিনি সহকারী পরিচালক পদমর্যাদার অধিকারী।