ঢাকা ০৬:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গণপূর্ত প্রধান প্রকৌশলীর গাড়ি চাপায় পিষ্ট সহকারী প্রকৌশলী -উত্তাল গণপূর্ত Logo শাবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ Logo সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাহিনুরের সীমাহীন সম্পদ ও অনিয়ম -পর্ব-০১ Logo তামাক সেবনের আলাদা কক্ষ বানালেন গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী: রয়েছে দুর্নীতির পাহাড়সম অভিযোগ! Logo দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে বৃদ্ধাঙ্গুলি: কালবে সর্বোচ্চ পদ দখলে রেখেছে আগস্টিন! Logo আইআইএফসি ও মার্কটেল বাংলাদেশ’র মধ্যে কৌশলগত সহযোগিতা ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর Logo ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর পরিদর্শনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী Logo সর্বজনীন পেনশন প্রত্যাহারে শাবি শিক্ষক সমিতি মৌন মিছিল ও কালোব্যাজ ধারণ Logo শাবিপ্রবিতে কুমিল্লা স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের নবীনবরণ অনুষ্ঠিত Logo শাবিপ্রবি কেন্দ্রে সুষ্ঠভাবে গুচ্ছভর্তির তিন ইউনিটের পরীক্ষা সম্পন্ন




ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণে পুরনো ছবি এডিট করে ব্যবহার হচ্ছে: পুলিশ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৪০:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০ ১০৪ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন রিপোর্ট | 

করোনাভাইরাস প্রতিরোধের এই সময়ে পুরনো ছবি এডিট করে সোশাল মিডিয়ায় সেসব ছড়িয়ে পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করে মনোবল ভেঙে দেয়ার অভিযোগ করেছে বাহিনীটি।
আজ সোমবার পুলিশ সদর দপ্তর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই অভিযোগ জানিয়ে এসব ছবি ইন্টারনেটে না ছড়িয়ে বরং সতর্ক থাকতে সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাস প্রতিরোধের সময়ে একটি দুষ্ট চক্র অতীতের বিভিন্ন সময়ের পুরাতন ছবি ও ভিডিও, যেগুলোর বিষয়ে তদন্ত করে সেই সময়েই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল, তা এডিট করে বা কৌশলে ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন করে পোস্ট দিচ্ছে।
২০১১ সালে পুলিশ কর্তৃক বিএনপি-জামাতের অগ্নি-সন্ত্রাস দমনের ছবিও ফটোশপ করে ব্যবহার করা হচ্ছে। সাধারণ মানুষ সেগুলো সহজেই বিশ্বাস করে তার বিপরীতে তাদের উষ্মা প্রকাশ করছেন এবং তা শেয়ার করছেন।
এ ধরনের মিথ্যাচারের ফলে পুলিশের প্রায় শতভাগ সদস্য, যারা দেশ ও জাতির এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়েও করোনাভাইরাস আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারসহ নানা উপায়ে দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করে চলেছেন, তারা মানসিকভাবে ডিমোটিভেটেড হচ্ছেন।
প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসের ব্যাপক বিস্তার ঠেকাতে সরকার সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশনা দেয়ার পর তা মানাতে বেশ কয়েকটি স্থানে পুলিশের বলপ্রয়োগের ঘটনা সোশাল মিডিয়ায় আসার পর সমালোচনায় পড়ে এই বাহিনী।
বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, করোনার বিস্তাররোধে সারাদেশে লক্ষ কোটি মানুষের সাথে পুলিশের ইন্টারঅ্যাকশন বা সাক্ষাৎ হচ্ছে প্রতিদিন। এর মধ্যে গুটিকয় ঘটনা বা ইন্টারঅ্যাকশনের সময় পুলিশের কতিপয় সদস্যের বিরুদ্ধে অনাকাঙ্ক্ষিত বলপ্রয়োগের অভিযোগ উঠেছে এবং এই বিষয়গুলো নিউজ মিডিয়া, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা অন্য যে কোনও উপায়ে পুলিশ সদর দপ্তরের দৃষ্টিতে আসা মাত্রই মাঠ পর্যায়ে ইউনিট কমান্ডারদেরকে তাৎক্ষণিকভাবে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
পুলিশের মহাপরিদর্শক ব্যক্তিগতভাবে ভিডিও বার্তায় এবং মোবাইল ফোনে অপারেশনাল সকল কমান্ডারের সাথে কথা বলেছেন। অপারেশনাল ইউনিট কমান্ডারগণও মাঠ পর্যায়ে নিয়োজিত কর্মকর্তাদেরকে একইভাবে নির্দেশনা দিয়েছেন। এর ফলে, একই ধরনের ঘটনার আর কোনও পুনরাবৃত্তি হয়েছে বলে পুলিশ সদরদপ্তরের দৃষ্টিতে পড়েনি কিংবা জনপ্রিয় ও নির্ভরযোগ্য কোনও প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় এমন কোনও সংবাদ আমাদের চোখে পড়েনি। কিন্তু তারপরও কিছু নিউজ মিডিয়ায় নতুন করে পুরাতন অভিযোগগুলো নিয়ে এমনভাবে নিউজ ছাপা হচ্ছে, যাতে মনে হচ্ছে এখনও বলপ্রয়োগ অব্যাহত রয়েছে।
এরপরও এই ধরনের অপপ্রচার অব্যাহত থাকলে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাইবার টিমগুলোও গুজব ও মিথ্যা রটনাকারীদের খুঁজে বের করতে কাজ করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

ট্যাগস :




ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণে পুরনো ছবি এডিট করে ব্যবহার হচ্ছে: পুলিশ

আপডেট সময় : ১০:৪০:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০

অনলাইন রিপোর্ট | 

করোনাভাইরাস প্রতিরোধের এই সময়ে পুরনো ছবি এডিট করে সোশাল মিডিয়ায় সেসব ছড়িয়ে পুলিশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করে মনোবল ভেঙে দেয়ার অভিযোগ করেছে বাহিনীটি।
আজ সোমবার পুলিশ সদর দপ্তর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই অভিযোগ জানিয়ে এসব ছবি ইন্টারনেটে না ছড়িয়ে বরং সতর্ক থাকতে সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাস প্রতিরোধের সময়ে একটি দুষ্ট চক্র অতীতের বিভিন্ন সময়ের পুরাতন ছবি ও ভিডিও, যেগুলোর বিষয়ে তদন্ত করে সেই সময়েই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছিল, তা এডিট করে বা কৌশলে ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নতুন করে পোস্ট দিচ্ছে।
২০১১ সালে পুলিশ কর্তৃক বিএনপি-জামাতের অগ্নি-সন্ত্রাস দমনের ছবিও ফটোশপ করে ব্যবহার করা হচ্ছে। সাধারণ মানুষ সেগুলো সহজেই বিশ্বাস করে তার বিপরীতে তাদের উষ্মা প্রকাশ করছেন এবং তা শেয়ার করছেন।
এ ধরনের মিথ্যাচারের ফলে পুলিশের প্রায় শতভাগ সদস্য, যারা দেশ ও জাতির এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়েও করোনাভাইরাস আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারসহ নানা উপায়ে দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করে চলেছেন, তারা মানসিকভাবে ডিমোটিভেটেড হচ্ছেন।
প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাসের ব্যাপক বিস্তার ঠেকাতে সরকার সবাইকে ঘরে থাকার নির্দেশনা দেয়ার পর তা মানাতে বেশ কয়েকটি স্থানে পুলিশের বলপ্রয়োগের ঘটনা সোশাল মিডিয়ায় আসার পর সমালোচনায় পড়ে এই বাহিনী।
বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, করোনার বিস্তাররোধে সারাদেশে লক্ষ কোটি মানুষের সাথে পুলিশের ইন্টারঅ্যাকশন বা সাক্ষাৎ হচ্ছে প্রতিদিন। এর মধ্যে গুটিকয় ঘটনা বা ইন্টারঅ্যাকশনের সময় পুলিশের কতিপয় সদস্যের বিরুদ্ধে অনাকাঙ্ক্ষিত বলপ্রয়োগের অভিযোগ উঠেছে এবং এই বিষয়গুলো নিউজ মিডিয়া, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বা অন্য যে কোনও উপায়ে পুলিশ সদর দপ্তরের দৃষ্টিতে আসা মাত্রই মাঠ পর্যায়ে ইউনিট কমান্ডারদেরকে তাৎক্ষণিকভাবে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
পুলিশের মহাপরিদর্শক ব্যক্তিগতভাবে ভিডিও বার্তায় এবং মোবাইল ফোনে অপারেশনাল সকল কমান্ডারের সাথে কথা বলেছেন। অপারেশনাল ইউনিট কমান্ডারগণও মাঠ পর্যায়ে নিয়োজিত কর্মকর্তাদেরকে একইভাবে নির্দেশনা দিয়েছেন। এর ফলে, একই ধরনের ঘটনার আর কোনও পুনরাবৃত্তি হয়েছে বলে পুলিশ সদরদপ্তরের দৃষ্টিতে পড়েনি কিংবা জনপ্রিয় ও নির্ভরযোগ্য কোনও প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক ও অনলাইন মিডিয়ায় এমন কোনও সংবাদ আমাদের চোখে পড়েনি। কিন্তু তারপরও কিছু নিউজ মিডিয়ায় নতুন করে পুরাতন অভিযোগগুলো নিয়ে এমনভাবে নিউজ ছাপা হচ্ছে, যাতে মনে হচ্ছে এখনও বলপ্রয়োগ অব্যাহত রয়েছে।
এরপরও এই ধরনের অপপ্রচার অব্যাহত থাকলে উপযুক্ত আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাইবার টিমগুলোও গুজব ও মিথ্যা রটনাকারীদের খুঁজে বের করতে কাজ করছে।