• ১৬ই মে ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২রা জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনার শীর্ষে ওবায়েদুল খান

সকালের সংবাদ ডেস্ক;
প্রকাশিত অক্টোবর ৩১, ২০১৯, ২৩:৩৭ অপরাহ্ণ
স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনার শীর্ষে ওবায়েদুল খান

ইসমাইল হোসেন টিটু:

দীর্ঘ সাত বছর পর হতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের একটি গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী সংগঠন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় কাউন্সিল।

আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা শুদ্ধি অভিযান বিতর্কিত ব্যক্তিদের বাদ দিয়ে ক্লিন ইমেজের নতুন নেতৃত্বে গঠনের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে সংগঠনটি বর্তমান সভাপতি মোল্লা মোহাম্মদ আবু কাওসার ও সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথ কে না নানান বিতর্কের কারনে পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। এ অবস্থায় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন কারা আসছেন তা নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা এবং প্রত্যাশীরা আবার কেউ কেউ নিজেদের পরিচিতি করতে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের ধরনা দিচ্ছে। দৌড়ঝাঁপ করছেন।

বিভিন্ন নেতাকর্মীরা তুলে ধরছেন প্রতিদিনের আওয়ামী লীগের দুর্দিনের আন্দোলন সংগ্রামের জন্য রাজপথে তাদের লড়াই-সংগ্রামের ফিরিস্তি । আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা মেধাবী ও ক্লিন ইমেজের নতুন নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করেছেন । সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মাল রঞ্জন গুহকে আহবায়ক ও গাজী মেজবাউল হোসেন সাচ্চু সদস্য সচিব করে জাতীয় সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের বিশ্বস্তসূত্রে জানা যায়, ইতিমধ্যে সভাপতি পদে নির্মল রঞ্জন গুহ, মতিউর রহমান মতি, আফজাল বাবু ও মুজিবুর রহমান স্বপনের নাম আলোচনায় রয়েছে। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদে একেএম আজিম সাজ্জাদ, সাজ্জাদ সাকিব বাদশা, সোহেল রানা টিপু এবং ওবায়দুল খানের নাম আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন।

একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে ১/১১ তে ওবায়েদুল খানের দলের জন্য ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির জন্য বেশকিছু  জন্য অবদান তাকে অনেকটাই এগিয়ে রেখেছে।  তবে কি হয় সেটা দেখতে শেষ পর্যন্ত কাউন্সিল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে ওবায়দুল খানের সমার্থকদের।

 

সূত্রে জানা যায়, ওবায়দুল খান একজন সৎ, সাহসী ক্লিন ইমেজের রাজনৈতিক কর্মী । ১/১১ এর দুঃশাসনের সময়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কৃষিবিদ আফম বাহাউদ্দীন নাছিমের পরামর্শ ও অনুপ্রেরনায় শত বাঁধা উপেক্ষা করে জীবন বাজি রেখে ওবায়দুল খান জননেত্রী শেখ হাসিনার নিঃশর্ত মুক্তির দাবী করে ৮৫৫ জন দেশবরেন্য সম্পাদক সহ সাংবাদিকদের স্বাক্ষর সংগ্রহ করে ছদ্মবেশে তৎকালীন প্রধান উপদেষ্টা বরাবর আবেদন দাখিল করে ছিলেন।

সকালের সংবাদের সাথে একান্ত আলাপকালে ওবায়দুল খান জানান, সংগ্রহকালে অবিসংবাদিত সাংবাদিক নেতা ইকবাল সোবহান চৌধুরী অনুপ্রেরনা ও সাহস যুগিয়েছিলেন। শ্রদ্বাভাজন সর্বজনাব রাহাত খান, হাবিবুর রহমান মিলন,গোলাম সারওয়ার, সাইফুল আলম, শ্যামল দত্ত, শামীম আহমেদ নঈম নিজাম, এহসানুল করিম হেলাল, আজিজুল ইসলাম ভুইঁয়া, আলতাফ মাহমুদ, শাহ আলমগীর, পথিক সাহা,শাবান মাহমুদ, সোহেল হায়দার চৌধুরী তাকে উৎসাহীত করে সাহস যুগিয়ে ছিলেন তাকে।

প্রধান উপদেষ্ঠা বরাবর জমাকৃত সাংবাদিকদের স্বাক্ষর সম্বলিত কপি ওবায়দুল খান আওয়ামী লীগের তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রয়াত মহামান্য রাস্ট্রপতি জননেতা জিল্লুল রহমান, তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত জননেতা সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ও দপ্তর সম্পাদক অাব্দুল মান্নান খানের কাছে হস্তান্তর করেন।

মহামান্য রাস্ট্রপতি জিল্লুর রহমান ঐ কপি হাতে পেয়ে ওবায়দুল খান কে বুকে জড়িয়ে ধরে তাঁকে অনেক দোয়া করে ছিলেন। এবং বলে ছিলেন ” এ দুঃসময়ে সাংবাদিকদের এই স্বাক্ষর আওয়ামী লীগের জন্য রাজনৈতিক দলিল”। মরহুম সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম তাঁকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলে ছিলেন ” আপনার প্রতি দল সারা জীবন কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করবে”।

ওবায়েদুল খান মনে করেন, ক্লিন ইমেজের নেতাদের রাজনীতিতে সম্মান জনক পদ পদবী পাবার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। সৎ, সাহসী ও পরিশ্রমী ক্লিন ইমেজের রাজনৈতিক নেতা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সহ প্রচার সম্পাদক ওবায়দুল হক খান একজন সৎ, সাহসী ক্লিন ইমেজের রাজনৈতিক কর্মী। আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের জাতীয় সম্মেলন তিনি যথাযথ মূল্যায়ন করবেন।

সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে ওবায়দুল হক কখনও তার রাজনৈতিক পদ পদবী ব্যবহার করে, কোন রুপ অবৈধ সুযোগ সুবিধা ভোগ করেননি। ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগ নেতা ছিলেন তিনি। ২০০১ এর বিএনপি-জামাত জোট সরকারের দুঃশাসনের বিরুদ্ধে প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে ওবায়দুল হক খান রাজপথে সোচ্চার ছিলেন। জোট সরকারের পেটোয়া বাহিনীর হাতে নির্যাতিত হয়েছেন।

২০০৩ সাল থেকে অদ্যবদি পর্যন্ত নিঃস্বার্থ স্ংগঠনের জন্য কাজ করে গেছেন। ২০০৩ সালে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নতুন সংগঠন হওয়ায় মিডিয়ার কাছে সংগঠনটির গুরুত্ব ছিলো না। ওবায়দুল হক খান দীর্ঘ পরিশ্রম করে সগঠনটিকে মিডিয়ার কাছে গ্রহনযোগ্য সংগঠনে পরিনত করতে সক্ষম হয়েছেন।

ওবায়দুল খান আরো জানান, জাতীয় সম্মেলনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে সংগঠনের যে পদের দায়িত্ব দেন, বিগত দিনের ন্যায় সৎ ও নিষ্ঠার সহিত যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করে যাবো। ইনশাআল্লাহ।

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৫
  • ১১:৫৮
  • ৪:৩২
  • ৬:৩৭
  • ৮:০০
  • ৫:১৬